০৮:৩৫ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪

আওয়ামী লীগ থেকে স্থায়ী বহিষ্কার হতে পারেন জাহাঙ্গীর

নিজস্ব সংবাদ দাতা
  • আপডেট সময় ১০:০১:৫৩ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ৩ মে ২০২৩
  • / ৪০ বার পড়া হয়েছে

দলীয় সিদ্ধান্তের বাহিরে গিয়ে গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হওয়ায় আওয়ামী লীগ থেকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কার হতে পারেন জাহাঙ্গীর আলম। ওয়াশিংটনে সফররত দলটির সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশে ফিরলে এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত আসতে পারে।

মঙ্গলবার (২ মে) আওয়ামী লীগ সভাপতির ধানমন্ডির রাজনৈতিক কার্যালয়ে গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে আওয়ামী লীগের সমন্বয় টিমের বৈঠকে এ বিষয়ে আলোচনা হয়। জানা গেছে, বৈঠকে উপস্থিত নেতারা বলেছেন, এর আগেও জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে নিয়ে কটূক্তি করার কারণে বহিষ্কার হয়েছিলেন জাহাঙ্গীর আলম। পরে আওয়ামী লীগ থেকে বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহার করা হয়।

সেই প্রত্যাহারের যে শর্ত ছিল সেটিকে তিনি বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়েছেন। এর ফলে, জাহাঙ্গীর আলমকে স্থায়ী বহিষ্কার এবং তার সঙ্গে বিএনপি-জামায়াতের যোগসূত্র আছে কি না, সেটি খতিয়ে দেখার বিষয়ে আলোচনা হয়। এ বিষয়ে আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এসএম কামাল হোসেন গণমাধ্যমকে বলেন, জাহাঙ্গীরের বিষয়ে দলীয় সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশে ফিরলেই সিদ্ধান্ত হবে।

বৈঠকে শুরুতে গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী আজমত উল্লাহ খান তার নির্বাচনী এলাকার বর্তমান পরিস্থিতি তুলে ধরেন। তার বক্তব্যের পর সমন্বয় টিমের নেতারা বক্তব্য রাখেন। বৈঠকে আওয়ামী লীগের নির্বাচন পরিচালনা টিমের প্রধান সমন্বয়ক ও দলের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া, সমন্বয়ক দলের সাংগঠনিক সম্পাদক মির্জা আজম, সমন্বয় টিমের উপদেষ্টা ও গাজীপুর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আ ক ম মোজাম্মেল হক উপস্থিত ছিলেন।

এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য অ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম, ডা. মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন, সিমিন হোসেন রিমি, সাংগঠনিক সম্পাদক এস. এম কামাল হোসেন, সুজিত রায় নন্দী, মহিলা বিষয়ক সম্পাদক জাহানারা বেগম, মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক সম্পাদক মৃণাল কান্তি দাস, বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন, শিক্ষা ও মানবসম্পদ বিষয়ক সম্পাদক বেগম শামসুন নাহার, শিল্প ও বাণিজ্য বিষয়ক সম্পাদক মো. সিদ্দিকুর রহমান, সংস্কৃতি বিষয়ক সম্পাদক অসীম কুমার উকিল প্রমুখ।

ট্যাগস

নিউজটি শেয়ার করুন

আওয়ামী লীগ থেকে স্থায়ী বহিষ্কার হতে পারেন জাহাঙ্গীর

আপডেট সময় ১০:০১:৫৩ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ৩ মে ২০২৩

দলীয় সিদ্ধান্তের বাহিরে গিয়ে গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হওয়ায় আওয়ামী লীগ থেকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কার হতে পারেন জাহাঙ্গীর আলম। ওয়াশিংটনে সফররত দলটির সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশে ফিরলে এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত আসতে পারে।

মঙ্গলবার (২ মে) আওয়ামী লীগ সভাপতির ধানমন্ডির রাজনৈতিক কার্যালয়ে গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে আওয়ামী লীগের সমন্বয় টিমের বৈঠকে এ বিষয়ে আলোচনা হয়। জানা গেছে, বৈঠকে উপস্থিত নেতারা বলেছেন, এর আগেও জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে নিয়ে কটূক্তি করার কারণে বহিষ্কার হয়েছিলেন জাহাঙ্গীর আলম। পরে আওয়ামী লীগ থেকে বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহার করা হয়।

সেই প্রত্যাহারের যে শর্ত ছিল সেটিকে তিনি বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়েছেন। এর ফলে, জাহাঙ্গীর আলমকে স্থায়ী বহিষ্কার এবং তার সঙ্গে বিএনপি-জামায়াতের যোগসূত্র আছে কি না, সেটি খতিয়ে দেখার বিষয়ে আলোচনা হয়। এ বিষয়ে আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এসএম কামাল হোসেন গণমাধ্যমকে বলেন, জাহাঙ্গীরের বিষয়ে দলীয় সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশে ফিরলেই সিদ্ধান্ত হবে।

বৈঠকে শুরুতে গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী আজমত উল্লাহ খান তার নির্বাচনী এলাকার বর্তমান পরিস্থিতি তুলে ধরেন। তার বক্তব্যের পর সমন্বয় টিমের নেতারা বক্তব্য রাখেন। বৈঠকে আওয়ামী লীগের নির্বাচন পরিচালনা টিমের প্রধান সমন্বয়ক ও দলের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া, সমন্বয়ক দলের সাংগঠনিক সম্পাদক মির্জা আজম, সমন্বয় টিমের উপদেষ্টা ও গাজীপুর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আ ক ম মোজাম্মেল হক উপস্থিত ছিলেন।

এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য অ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম, ডা. মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন, সিমিন হোসেন রিমি, সাংগঠনিক সম্পাদক এস. এম কামাল হোসেন, সুজিত রায় নন্দী, মহিলা বিষয়ক সম্পাদক জাহানারা বেগম, মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক সম্পাদক মৃণাল কান্তি দাস, বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন, শিক্ষা ও মানবসম্পদ বিষয়ক সম্পাদক বেগম শামসুন নাহার, শিল্প ও বাণিজ্য বিষয়ক সম্পাদক মো. সিদ্দিকুর রহমান, সংস্কৃতি বিষয়ক সম্পাদক অসীম কুমার উকিল প্রমুখ।