০৪:২১ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২৩

‘আগামী দশকে আরেকটি মহামারি আসতে পারে’

নিজস্ব সংবাদ দাতা
  • আপডেট সময় ০৯:৩০:০৭ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৩
  • / ৩৬ বার পড়া হয়েছে

আগামী এক দশকের মধ্যে করোনাভাইরাসের মতো আরও একটি মহামারি আঘাত হানতে পারে বলে সতর্ক করেছে লন্ডনভিত্তিক স্বাস্থ্য বিশ্লেষণ সংস্থা এয়ারফিনিটি।

সম্প্রতি সংস্থাটির অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে (www.airfinity.com) এ সংক্রান্ত একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করা হয়। এয়ারফিনিটি বলছে, জলবায়ু পরিবর্তন, আন্তর্জাতিক ভ্রমণ বেড়ে যাওয়া, জনসংখ্যা বৃদ্ধি এবং জুনোটিক রোগ (প্রাণী থেকে মানুষের মধ্যে সংক্রমিত হয় এমন রোগ) মহামারির ঝুঁকিতে অবদান রাখে।

তবে নতুন ভাইরাসের প্রকোপ শুরুর ১০০ দিনের মধ্যে কার্যকর ভ্যাকসিন পাওয়া গেলে মহামারির শঙ্কা অনেকটাই কমে যাবে। ভাইরাসটি যদি বার্ড ফ্লুর মতো হয়, তবে ভিন্ন পরিস্থিতি দেখা দেবে। এটি মানুষ থেকে মানুষে সংক্রমিত হওয়ার ক্ষমতা অর্জন করে যুক্তরাজ্যে মাত্র ২৪ ঘণ্টায় ১৫ হাজার মানুষের প্রাণ কেড়ে নিতে পারে।

বিশ্বে গত দুই দশকে তিনটি বড় করোনাভাইরাস দেখা গেছে, এগুলো হলো- সার্স, মার্স ও কোভিড-১৯। ২০০৯ সালে দেখা দিয়েছিল সোয়ান ফ্লু মহামারি। স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা বর্তমানে পরবর্তী সম্ভাব্য মহামারি মোকাবিলায় মনোযোগ দিচ্ছেন।

ট্যাগস

নিউজটি শেয়ার করুন

‘আগামী দশকে আরেকটি মহামারি আসতে পারে’

আপডেট সময় ০৯:৩০:০৭ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৩

আগামী এক দশকের মধ্যে করোনাভাইরাসের মতো আরও একটি মহামারি আঘাত হানতে পারে বলে সতর্ক করেছে লন্ডনভিত্তিক স্বাস্থ্য বিশ্লেষণ সংস্থা এয়ারফিনিটি।

সম্প্রতি সংস্থাটির অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে (www.airfinity.com) এ সংক্রান্ত একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করা হয়। এয়ারফিনিটি বলছে, জলবায়ু পরিবর্তন, আন্তর্জাতিক ভ্রমণ বেড়ে যাওয়া, জনসংখ্যা বৃদ্ধি এবং জুনোটিক রোগ (প্রাণী থেকে মানুষের মধ্যে সংক্রমিত হয় এমন রোগ) মহামারির ঝুঁকিতে অবদান রাখে।

তবে নতুন ভাইরাসের প্রকোপ শুরুর ১০০ দিনের মধ্যে কার্যকর ভ্যাকসিন পাওয়া গেলে মহামারির শঙ্কা অনেকটাই কমে যাবে। ভাইরাসটি যদি বার্ড ফ্লুর মতো হয়, তবে ভিন্ন পরিস্থিতি দেখা দেবে। এটি মানুষ থেকে মানুষে সংক্রমিত হওয়ার ক্ষমতা অর্জন করে যুক্তরাজ্যে মাত্র ২৪ ঘণ্টায় ১৫ হাজার মানুষের প্রাণ কেড়ে নিতে পারে।

বিশ্বে গত দুই দশকে তিনটি বড় করোনাভাইরাস দেখা গেছে, এগুলো হলো- সার্স, মার্স ও কোভিড-১৯। ২০০৯ সালে দেখা দিয়েছিল সোয়ান ফ্লু মহামারি। স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা বর্তমানে পরবর্তী সম্ভাব্য মহামারি মোকাবিলায় মনোযোগ দিচ্ছেন।