০৫:৫২ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

আচরণবিধি লঙ্ঘন, ইসিতে যে ব্যাখ্যা দিলেন আজমত উল্লা

নিজস্ব সংবাদ দাতা
  • আপডেট সময় ০১:০৬:২০ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ৮ মে ২০২৩
  • / ৪১ বার পড়া হয়েছে

আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগে নির্বাচন কমিশনে (ইসি) গিয়ে ব্যাখ্যা দিয়েছেন গাজীপুর সিটি করপোরেশন (গাসিক) নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী আজমত উল্লা খান। রোববার (৭ মে) বিকেলে নির্বাচন ভবনে এ বিষয়ে শুনানি হয়।

শুনানি শেষে আজমত উল্লা বলেন, আমি আমার অবস্থান ইসিতে পরিষ্কার করেছি। আমি বলেছি, আমার জ্ঞাতসারে আমি নির্বাচন বিধিমালার কোনোকিছু লঙ্ঘন করিনি। অবাধ, সুষ্ঠু ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচনের জন্য আমার পক্ষ থেকে সব ধরনের সহযোগিতা থাকবে। আচরণবিধি ভঙ্গ না করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছি।

তিনি বলেন, ইসির কর্মকর্তারা আমার বক্তব্য শুনেছেন। তারপর ওনারা যে সিদ্ধান্ত জানাবেন তা মাথা পেতে নেব। রেজাল্ট আসুক, তারপর আপনারা জানবেন। এদিকে আজমত উল্লার ব্যাখ্যায় নির্বাচন কমিশন সন্তুষ্ট বলে জানিয়েছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কাজী হাবিবুল আউয়াল। উল্লেখ্য, আগামী ২৫ মে অনুষ্ঠিত হবে গাজীপুর সিটি নির্বাচন। নির্বাচনে আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগে পরপর দু’বার ইসির পক্ষ থেকে আজমত উল্লা খানকে শোকজ করা হয়।

এর মধ্যে গত ২৭ এপ্রিল শোডাউন করায় আজমত উল্লার কাছে ব্যাখ্যা তলব করে নির্বাচন কমিশন। কিন্তু এমধ্যেই তার উপস্থিতিতে গত ৪ এপ্রিল যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী মো. জাহিদ আহসান রাসেল সভা করে মেয়র প্রার্থী আজমত উল্লা খানের পক্ষে ভোট চাওয়ায় নতুন করে বিপদে পড়েনে তিনি। ফলে আবারও আজমত উল্লাকে শোকজ করা হয় নৌকার প্রার্থীকে।

শোকজে প্রার্থিতা কেন বাতিল হবে না তার ব্যাখ্যা সশরীরে ইসিতে এসে দিতে বলা হয় তাকে। এরই ধারাবাহিকতায় আজ (রোববার) বিকেল ৩টায় আগারগাঁওয়ে নির্বাচন কমিশন ভবনে ব্যাখ্যা দিতে যান নৌকার এই প্রার্থী।

ট্যাগস

নিউজটি শেয়ার করুন

আচরণবিধি লঙ্ঘন, ইসিতে যে ব্যাখ্যা দিলেন আজমত উল্লা

আপডেট সময় ০১:০৬:২০ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ৮ মে ২০২৩

আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগে নির্বাচন কমিশনে (ইসি) গিয়ে ব্যাখ্যা দিয়েছেন গাজীপুর সিটি করপোরেশন (গাসিক) নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী আজমত উল্লা খান। রোববার (৭ মে) বিকেলে নির্বাচন ভবনে এ বিষয়ে শুনানি হয়।

শুনানি শেষে আজমত উল্লা বলেন, আমি আমার অবস্থান ইসিতে পরিষ্কার করেছি। আমি বলেছি, আমার জ্ঞাতসারে আমি নির্বাচন বিধিমালার কোনোকিছু লঙ্ঘন করিনি। অবাধ, সুষ্ঠু ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচনের জন্য আমার পক্ষ থেকে সব ধরনের সহযোগিতা থাকবে। আচরণবিধি ভঙ্গ না করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছি।

তিনি বলেন, ইসির কর্মকর্তারা আমার বক্তব্য শুনেছেন। তারপর ওনারা যে সিদ্ধান্ত জানাবেন তা মাথা পেতে নেব। রেজাল্ট আসুক, তারপর আপনারা জানবেন। এদিকে আজমত উল্লার ব্যাখ্যায় নির্বাচন কমিশন সন্তুষ্ট বলে জানিয়েছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কাজী হাবিবুল আউয়াল। উল্লেখ্য, আগামী ২৫ মে অনুষ্ঠিত হবে গাজীপুর সিটি নির্বাচন। নির্বাচনে আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগে পরপর দু’বার ইসির পক্ষ থেকে আজমত উল্লা খানকে শোকজ করা হয়।

এর মধ্যে গত ২৭ এপ্রিল শোডাউন করায় আজমত উল্লার কাছে ব্যাখ্যা তলব করে নির্বাচন কমিশন। কিন্তু এমধ্যেই তার উপস্থিতিতে গত ৪ এপ্রিল যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী মো. জাহিদ আহসান রাসেল সভা করে মেয়র প্রার্থী আজমত উল্লা খানের পক্ষে ভোট চাওয়ায় নতুন করে বিপদে পড়েনে তিনি। ফলে আবারও আজমত উল্লাকে শোকজ করা হয় নৌকার প্রার্থীকে।

শোকজে প্রার্থিতা কেন বাতিল হবে না তার ব্যাখ্যা সশরীরে ইসিতে এসে দিতে বলা হয় তাকে। এরই ধারাবাহিকতায় আজ (রোববার) বিকেল ৩টায় আগারগাঁওয়ে নির্বাচন কমিশন ভবনে ব্যাখ্যা দিতে যান নৌকার এই প্রার্থী।