০৫:১৩ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২৩

আদালতে সাক্ষ্য দেওয়ায় দুই সাংবাদিককে মারধর

মফস্বল ডেস্ক
  • আপডেট সময় ০৯:৩২:২৫ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১১ অগাস্ট ২০২৩
  • / ৩১ বার পড়া হয়েছে

ঝিনাইদহে আদালতে সাক্ষী প্রদানের জেরে দুই সাংবাদিককে মারধর করেছে বিবাদীপক্ষ। বৃহস্পতিবার (১০ আগস্ট) দুপুরে জেলার আদালত চত্বরে এই ঘটনা ঘটে।

হামলার শিকার এখন টেলিভিশন ও প্রতিদিনের বাংলাদেশ পত্রিকার স্টাফ রিপোর্টার আব্দুর রহমান মিল্টন বলেন, মামলায় সাক্ষ্য প্রদান শেষে আদালত থেকে ১টা ৪০ মিনিটের দিকে ইজিবাইকে চড়ে শহরের উদ্দেশ্যে রওনা হলে মামলার আসামি শামিমুল ইসলাম শামীম (৫২) ও জহুরুল ইসলাম হিরো (৫২) আমাকে ও ডেইলি বাংলাদেশের প্রতিনিধি রামিম হাসানকে জামার কলার ধরে ইজিবাইক থেকে নামায়। এরপর তারা আমার মাথা ও শরীরের বিভিন্ন অংশে বেদমভাবে মারধর শুরু করে। এ সময় রামিম হাসান আমাকে বাঁচাতে গেলে তার ওপরও হামলা চালানো হয়। এ সময় আমাদের চিৎকারে আশপাশের লোকজন ছুটে এলে আসামিরা পালিয়ে যায়।

তিনি আরও বলেন, বর্তমানে মামলার বাদী ও আমরা (সাক্ষী) নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি। তাই ঝিনাইদহ সদর থানায় অভিযোগ দায়ের করেছি।

এ বিষয়ে ঝিনাইদহ সদর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ সোহেল রানা বলেন, এ ঘটনায় থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। খুব দ্রুত তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

ট্যাগস

নিউজটি শেয়ার করুন

আদালতে সাক্ষ্য দেওয়ায় দুই সাংবাদিককে মারধর

আপডেট সময় ০৯:৩২:২৫ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১১ অগাস্ট ২০২৩

ঝিনাইদহে আদালতে সাক্ষী প্রদানের জেরে দুই সাংবাদিককে মারধর করেছে বিবাদীপক্ষ। বৃহস্পতিবার (১০ আগস্ট) দুপুরে জেলার আদালত চত্বরে এই ঘটনা ঘটে।

হামলার শিকার এখন টেলিভিশন ও প্রতিদিনের বাংলাদেশ পত্রিকার স্টাফ রিপোর্টার আব্দুর রহমান মিল্টন বলেন, মামলায় সাক্ষ্য প্রদান শেষে আদালত থেকে ১টা ৪০ মিনিটের দিকে ইজিবাইকে চড়ে শহরের উদ্দেশ্যে রওনা হলে মামলার আসামি শামিমুল ইসলাম শামীম (৫২) ও জহুরুল ইসলাম হিরো (৫২) আমাকে ও ডেইলি বাংলাদেশের প্রতিনিধি রামিম হাসানকে জামার কলার ধরে ইজিবাইক থেকে নামায়। এরপর তারা আমার মাথা ও শরীরের বিভিন্ন অংশে বেদমভাবে মারধর শুরু করে। এ সময় রামিম হাসান আমাকে বাঁচাতে গেলে তার ওপরও হামলা চালানো হয়। এ সময় আমাদের চিৎকারে আশপাশের লোকজন ছুটে এলে আসামিরা পালিয়ে যায়।

তিনি আরও বলেন, বর্তমানে মামলার বাদী ও আমরা (সাক্ষী) নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি। তাই ঝিনাইদহ সদর থানায় অভিযোগ দায়ের করেছি।

এ বিষয়ে ঝিনাইদহ সদর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ সোহেল রানা বলেন, এ ঘটনায় থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। খুব দ্রুত তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।