০৭:৪৬ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪

‘আমার বউ একটাই, ডিভোর্সের পর বউ থাকে না’

নিজস্ব সংবাদ দাতা
  • আপডেট সময় ১২:৩১:১৮ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৩
  • / ১০১ বার পড়া হয়েছে

সিলেটের ব্যবসায়ী পারভেজ মাহমুদ অপুর সঙ্গে বিচ্ছেদের পর গাজীপুরের ব্যবসায়ী ও রাজনীতিবিদ রকিব সরকারকে বিয়ে করেন চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহি। এটি তাদের দুজনেরই দ্বিতীয় বিয়ে। সে সময় নায়িকার বিয়ে নিয়ে কম হইচই হয়নি। তবে এই দম্পতির ভালোবাসার কাছে সব নেতিবাচক মন্তব্য হার মেনেছে। আপাতত দুই থেকে তিন হওয়ার অপেক্ষায় প্রহর গুনছেন দুজনে।

মাহিকে বিয়ের পর রকিবের প্রথম সংসার ও সন্তানদের বিষয়টি আলোচনায় উঠে আসে। কারণ, নায়িকার স্বামীর প্রথম সংসারে বিচ্ছেদ হয়েছে কি না, সেটি তখনও স্পষ্ট ছিল না। গুঞ্জন ওঠে, প্রথম স্ত্রীকে ডিভোর্স না দিয়েই মাহিকে বিয়ে করেছেন রকিব। যদিও সময়ের সঙ্গে সেসব আলোচনা বিলীন হয়ে গিয়েছে। তবে সম্প্রতি রকিবের এক স্ট্যাটাসে প্রথম সংসারে বিচ্ছেদের বিষয়টি স্পষ্ট হয়েছে।

শনিবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) মধ্যরাতে সোশ্যাল মিডিয়ায় মাহির একটি ছবি পোস্ট করে রকিব লিখেছেন, ‘আমার একমাত্র বৌয়ের চিত্রধারক আমি।’তার সেই পোস্টে নেটিজেনদের একজন লিখেছেন, ‘দুইমাত্র হবে কাকা।’ জবাবে রকিব লেখেন, ‘আমার বউ একটাই, ডিভোর্সের পর বউ থাকে না।’

এদিকে স্বামীর সেই পোস্ট ও মন্তব্যের স্ক্রিনশট নিজের ওয়ালে শেয়ার করে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেছেন মাহি। তিনি লিখেছেন, ‘আজকের তারিখটা স্বর্ণাক্ষরে লিখে রাখব প্রিয় ডাইরিটাতে। তোমার এই একটা লাইন কথার জন্য আমি যুগ যুগ ধরে অপেক্ষা করেছিলাম। অনেক ভালোবাসি তোমাকে।’প্রসঙ্গত, রকিব সরকারকে স্বামী হিসেবে পেয়ে স্বপ্নপূরণ হয়েছে মাহির। স্বামীকে নিয়ে ওমরাহ করে এসেছেন এই নায়িকা।

প্রায়ই বিভিন্ন জায়গায় ঘুরতে যান তারা। কখনও বন্ধুদের সঙ্গে, আবার কখনও শুধু তারা দুজনে। রাজনীতির মাঠেও স্ত্রীর ছায়াসঙ্গী হয়ে আছেন রকিব। সব মিলিয়ে দারুণ জমে উঠেছে মাহি-রকিবের দাম্পত্য জীবন। সোশ্যাল মিডিয়ায় মাহির করা বিভিন্ন পোস্ট থেকে স্পষ্ট বোঝা যায়, বিয়ের পর স্বামীকে নিয়ে বেশ সুখেই আছেন তিনি। এই দম্পতির ভালোবাসার নমুনা প্রতিনিয়ত দেখছে নেটিজেনরা।

ট্যাগস

নিউজটি শেয়ার করুন

‘আমার বউ একটাই, ডিভোর্সের পর বউ থাকে না’

আপডেট সময় ১২:৩১:১৮ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৩

সিলেটের ব্যবসায়ী পারভেজ মাহমুদ অপুর সঙ্গে বিচ্ছেদের পর গাজীপুরের ব্যবসায়ী ও রাজনীতিবিদ রকিব সরকারকে বিয়ে করেন চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহি। এটি তাদের দুজনেরই দ্বিতীয় বিয়ে। সে সময় নায়িকার বিয়ে নিয়ে কম হইচই হয়নি। তবে এই দম্পতির ভালোবাসার কাছে সব নেতিবাচক মন্তব্য হার মেনেছে। আপাতত দুই থেকে তিন হওয়ার অপেক্ষায় প্রহর গুনছেন দুজনে।

মাহিকে বিয়ের পর রকিবের প্রথম সংসার ও সন্তানদের বিষয়টি আলোচনায় উঠে আসে। কারণ, নায়িকার স্বামীর প্রথম সংসারে বিচ্ছেদ হয়েছে কি না, সেটি তখনও স্পষ্ট ছিল না। গুঞ্জন ওঠে, প্রথম স্ত্রীকে ডিভোর্স না দিয়েই মাহিকে বিয়ে করেছেন রকিব। যদিও সময়ের সঙ্গে সেসব আলোচনা বিলীন হয়ে গিয়েছে। তবে সম্প্রতি রকিবের এক স্ট্যাটাসে প্রথম সংসারে বিচ্ছেদের বিষয়টি স্পষ্ট হয়েছে।

শনিবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) মধ্যরাতে সোশ্যাল মিডিয়ায় মাহির একটি ছবি পোস্ট করে রকিব লিখেছেন, ‘আমার একমাত্র বৌয়ের চিত্রধারক আমি।’তার সেই পোস্টে নেটিজেনদের একজন লিখেছেন, ‘দুইমাত্র হবে কাকা।’ জবাবে রকিব লেখেন, ‘আমার বউ একটাই, ডিভোর্সের পর বউ থাকে না।’

এদিকে স্বামীর সেই পোস্ট ও মন্তব্যের স্ক্রিনশট নিজের ওয়ালে শেয়ার করে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেছেন মাহি। তিনি লিখেছেন, ‘আজকের তারিখটা স্বর্ণাক্ষরে লিখে রাখব প্রিয় ডাইরিটাতে। তোমার এই একটা লাইন কথার জন্য আমি যুগ যুগ ধরে অপেক্ষা করেছিলাম। অনেক ভালোবাসি তোমাকে।’প্রসঙ্গত, রকিব সরকারকে স্বামী হিসেবে পেয়ে স্বপ্নপূরণ হয়েছে মাহির। স্বামীকে নিয়ে ওমরাহ করে এসেছেন এই নায়িকা।

প্রায়ই বিভিন্ন জায়গায় ঘুরতে যান তারা। কখনও বন্ধুদের সঙ্গে, আবার কখনও শুধু তারা দুজনে। রাজনীতির মাঠেও স্ত্রীর ছায়াসঙ্গী হয়ে আছেন রকিব। সব মিলিয়ে দারুণ জমে উঠেছে মাহি-রকিবের দাম্পত্য জীবন। সোশ্যাল মিডিয়ায় মাহির করা বিভিন্ন পোস্ট থেকে স্পষ্ট বোঝা যায়, বিয়ের পর স্বামীকে নিয়ে বেশ সুখেই আছেন তিনি। এই দম্পতির ভালোবাসার নমুনা প্রতিনিয়ত দেখছে নেটিজেনরা।