০৭:৫৭ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪

আরাভের ভারতীয় পাসপোর্ট বাতিলের আবেদন করবে ঢাকা

নিজস্ব সংবাদ দাতা
  • আপডেট সময় ০৯:৪১:১৬ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৩ মার্চ ২০২৩
  • / ৭৭ বার পড়া হয়েছে

পুলিশ পরিদর্শক মামুন হত্যা মামলার আসামি আরাভ খান ওরফে রবিউল ইসলামের ভারতীয় পাসপোর্ট বাতিলে দেশটির হাইকমিশনে চিঠি দিচ্ছে ঢাকা। পাসপোর্টটি বাতিল করা হলে তাকে দেশে ফিরিয়ে আনা সহজ হবে বলে জানা গেছে।

জানা গেছে, আরাভ খান বাংলাদেশি পাসপোর্টে নয়, ভারতীয় পাসপোর্টে দুবাইয়ে অবস্থান করছেন। এখন তাকে বাংলাদেশে ফেরাতে হলে ভারতীয় পাসপোর্ট বাতিল করতে হবে। অথবা যে কোনো ভাবে প্রমাণ করতে হবে যে তিনি প্রকৃতভাবে বাংলাদেশের নাগরিক। জালিয়াতি করে তিনি ভারতীয় পাসপোর্ট তৈরি করে দুবাইয়ে প্রবেশ করেছেন। এদিকে ইতোমধ্যে আরাভের ভারতীয় পাসপোর্ট বাতিলে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) একটি চিঠি পুলিশ সদর দপ্তরের মাধ্যমে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়েছে।

এখন মন্ত্রণালয় থেকে চিঠিটি ভারতীয় হাইকমিশনে পাঠানো হবে। এ বিষয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান বলেন, ভারতের সহযোগিতা ছাড়া আরাভকে ফেরত আনা সম্ভব নয়। তিনি বাংলাদেশের পাসপোর্ট দিয়ে দুবাই যাননি। এখন তাকে ফেরত আনতে ভারতকে অনুরোধ করতে হবে। ২০১৮ সালের ৯ জুলাই গাজীপুরের কালীগঞ্জ উপজেলায় উলুখোলা এলাকার একটি জঙ্গল থেকে পুলিশ পরিদর্শক মামুনের হাত-পা বাঁধা বস্তাবন্দি পোড়া মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

ওই খুনের আসামি হয়ে দেশ ছেড়েছিলেন আরাভ খান ওরফে রবিউল ইসলাম। দেশ থেকে পালিয়ে তিনি প্রথমে ভারত যান। কলকাতার একটি বস্তিতে কয়েকবছর বসবাস করার পর তিনি আরাভ খান নামে ভুয়া ভারতীয় পাসপোর্ট তৈরি করে দুবাই চলে যান। এখন তিনি দুবাইয়ের বড় স্বর্ণ ব্যবসায়ী। সম্প্রতি বিপুল অর্থ বিনিয়োগ করে দুবাইয়ে ‘আরাভ জুয়েলার্স’ নামে একটি স্বর্ণের দোকানের উদ্বোধন করেন তিনি।

ট্যাগস

নিউজটি শেয়ার করুন

আরাভের ভারতীয় পাসপোর্ট বাতিলের আবেদন করবে ঢাকা

আপডেট সময় ০৯:৪১:১৬ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৩ মার্চ ২০২৩

পুলিশ পরিদর্শক মামুন হত্যা মামলার আসামি আরাভ খান ওরফে রবিউল ইসলামের ভারতীয় পাসপোর্ট বাতিলে দেশটির হাইকমিশনে চিঠি দিচ্ছে ঢাকা। পাসপোর্টটি বাতিল করা হলে তাকে দেশে ফিরিয়ে আনা সহজ হবে বলে জানা গেছে।

জানা গেছে, আরাভ খান বাংলাদেশি পাসপোর্টে নয়, ভারতীয় পাসপোর্টে দুবাইয়ে অবস্থান করছেন। এখন তাকে বাংলাদেশে ফেরাতে হলে ভারতীয় পাসপোর্ট বাতিল করতে হবে। অথবা যে কোনো ভাবে প্রমাণ করতে হবে যে তিনি প্রকৃতভাবে বাংলাদেশের নাগরিক। জালিয়াতি করে তিনি ভারতীয় পাসপোর্ট তৈরি করে দুবাইয়ে প্রবেশ করেছেন। এদিকে ইতোমধ্যে আরাভের ভারতীয় পাসপোর্ট বাতিলে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) একটি চিঠি পুলিশ সদর দপ্তরের মাধ্যমে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়েছে।

এখন মন্ত্রণালয় থেকে চিঠিটি ভারতীয় হাইকমিশনে পাঠানো হবে। এ বিষয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান বলেন, ভারতের সহযোগিতা ছাড়া আরাভকে ফেরত আনা সম্ভব নয়। তিনি বাংলাদেশের পাসপোর্ট দিয়ে দুবাই যাননি। এখন তাকে ফেরত আনতে ভারতকে অনুরোধ করতে হবে। ২০১৮ সালের ৯ জুলাই গাজীপুরের কালীগঞ্জ উপজেলায় উলুখোলা এলাকার একটি জঙ্গল থেকে পুলিশ পরিদর্শক মামুনের হাত-পা বাঁধা বস্তাবন্দি পোড়া মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

ওই খুনের আসামি হয়ে দেশ ছেড়েছিলেন আরাভ খান ওরফে রবিউল ইসলাম। দেশ থেকে পালিয়ে তিনি প্রথমে ভারত যান। কলকাতার একটি বস্তিতে কয়েকবছর বসবাস করার পর তিনি আরাভ খান নামে ভুয়া ভারতীয় পাসপোর্ট তৈরি করে দুবাই চলে যান। এখন তিনি দুবাইয়ের বড় স্বর্ণ ব্যবসায়ী। সম্প্রতি বিপুল অর্থ বিনিয়োগ করে দুবাইয়ে ‘আরাভ জুয়েলার্স’ নামে একটি স্বর্ণের দোকানের উদ্বোধন করেন তিনি।