০৮:১২ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

ইসরাইল নিয়ে বাইডেনের মন্তব্যে ক্ষু্ব্ধ নেতানিয়াহু

নিজস্ব সংবাদ দাতা
  • আপডেট সময় ১০:৫২:৫৪ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩০ মার্চ ২০২৩
  • / ৫১ বার পড়া হয়েছে

মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ইসরাইলকে সতর্ক করে দিয়ে বলেছেন, দেশটি একেবারে বিতর্কিত বিচারিক সংস্কারের জন্য চাপ প্রয়োগ ‘অব্যাহত রাখতে পারে না।’মঙ্গলবার সাংবাদিকদের বাইডেন বলেন, ‘তারা (ইসরাইল) এই পথে চলতে পারে না।’ ইসরাইলকে বিচারব্যবস্থা সংস্কার পরিকল্পনা বাতিল করার আহ্বান জানান তিনি।

আর এতেই চটেছেন ইসরাইলি প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু। ক্ষু্ব্ধ প্রতিক্রিয়া জনিয়ে পরে এক টুইটে তিনি বলেন, ‘ইসরাইল তাদের নিজেদের সিদ্ধান্ত নিজেরা নেবে। বাইরের চাপের ভিত্তিতে সিদ্ধান্ত নেবে না।’ বিবিসি জানায়, গত মঙ্গলবার মার্কিন প্রেসিডেন্ট বাইডেন নর্থ ক্যারোলাইনায় সাংবাদিকদের সামনে বক্তব্য রাখার সময় ইসরাইলের জোট সরকারকে বিচারব্যবস্থা সংস্কার পরিকল্পনা বাদ দিতে বলেন।

তিনি বলেন, ইসরাইলের অনেক শক্তিশালী সমর্থকের মতো আমিও খুবই উদ্বিগ্ন। আমি উদ্বিগ্ন যে তারা এ পথ বেছে নিয়েছে। আশা করি প্রধানমন্ত্রী এমনকিছু করবেন, যাতে তিনি আপোসমূলক কিছু একটা করার চেষ্টা নিতে পারেন। তবে সেটি এখনও দেখার বাকি।”এরপরই টুইটে বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুর ক্ষুব্ধ জবাবে বলা হয়, ‘ইসরাইল একটি সার্বভৌম রাষ্ট্র। তারা জনগণের ইচ্ছায় নিজেদের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে। সুহৃদ কোনও বন্ধুরাষ্ট্রের কথায় কিংবা বিদেশের চাপের ভিত্তিতে নয়।’

নতুন মেয়াদে দায়িত্ব পাওয়ার পর এখন পর্যন্ত নেতানিয়াহুকে ওয়াশিংটন সফরের আমন্ত্রণ জানানো হয়নি। আর এখন হোয়াইট হাউজ তাকে নিয়ে খুশি কিনা সেটি নেতানিয়াহুর জন্য একটি পরীক্ষা হিসাবেই দেখা হচ্ছে। মার্কিন প্রেসিডেন্ট আরো বলেন, তিনি ইসরাইলি নেতাকে হোয়াইট হাউসে আমন্ত্রণ জানানোর কথা বিবেচনা করছেন না। তিনি বলেন, অন্তত এক্ষুণি ইসরাইলি নেতাকে আমন্ত্রণ জানানোর কোন সম্ভাবনা নেই।

ট্যাগস

নিউজটি শেয়ার করুন

ইসরাইল নিয়ে বাইডেনের মন্তব্যে ক্ষু্ব্ধ নেতানিয়াহু

আপডেট সময় ১০:৫২:৫৪ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩০ মার্চ ২০২৩

মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ইসরাইলকে সতর্ক করে দিয়ে বলেছেন, দেশটি একেবারে বিতর্কিত বিচারিক সংস্কারের জন্য চাপ প্রয়োগ ‘অব্যাহত রাখতে পারে না।’মঙ্গলবার সাংবাদিকদের বাইডেন বলেন, ‘তারা (ইসরাইল) এই পথে চলতে পারে না।’ ইসরাইলকে বিচারব্যবস্থা সংস্কার পরিকল্পনা বাতিল করার আহ্বান জানান তিনি।

আর এতেই চটেছেন ইসরাইলি প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু। ক্ষু্ব্ধ প্রতিক্রিয়া জনিয়ে পরে এক টুইটে তিনি বলেন, ‘ইসরাইল তাদের নিজেদের সিদ্ধান্ত নিজেরা নেবে। বাইরের চাপের ভিত্তিতে সিদ্ধান্ত নেবে না।’ বিবিসি জানায়, গত মঙ্গলবার মার্কিন প্রেসিডেন্ট বাইডেন নর্থ ক্যারোলাইনায় সাংবাদিকদের সামনে বক্তব্য রাখার সময় ইসরাইলের জোট সরকারকে বিচারব্যবস্থা সংস্কার পরিকল্পনা বাদ দিতে বলেন।

তিনি বলেন, ইসরাইলের অনেক শক্তিশালী সমর্থকের মতো আমিও খুবই উদ্বিগ্ন। আমি উদ্বিগ্ন যে তারা এ পথ বেছে নিয়েছে। আশা করি প্রধানমন্ত্রী এমনকিছু করবেন, যাতে তিনি আপোসমূলক কিছু একটা করার চেষ্টা নিতে পারেন। তবে সেটি এখনও দেখার বাকি।”এরপরই টুইটে বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুর ক্ষুব্ধ জবাবে বলা হয়, ‘ইসরাইল একটি সার্বভৌম রাষ্ট্র। তারা জনগণের ইচ্ছায় নিজেদের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে। সুহৃদ কোনও বন্ধুরাষ্ট্রের কথায় কিংবা বিদেশের চাপের ভিত্তিতে নয়।’

নতুন মেয়াদে দায়িত্ব পাওয়ার পর এখন পর্যন্ত নেতানিয়াহুকে ওয়াশিংটন সফরের আমন্ত্রণ জানানো হয়নি। আর এখন হোয়াইট হাউজ তাকে নিয়ে খুশি কিনা সেটি নেতানিয়াহুর জন্য একটি পরীক্ষা হিসাবেই দেখা হচ্ছে। মার্কিন প্রেসিডেন্ট আরো বলেন, তিনি ইসরাইলি নেতাকে হোয়াইট হাউসে আমন্ত্রণ জানানোর কথা বিবেচনা করছেন না। তিনি বলেন, অন্তত এক্ষুণি ইসরাইলি নেতাকে আমন্ত্রণ জানানোর কোন সম্ভাবনা নেই।