০৩:১৪ অপরাহ্ন, শনিবার, ২০ জুলাই ২০২৪

কেন্দ্রে জালভোটের ঘটনা ঘটলে সংশ্লিষ্টদের চাকরিচ্যুত করা হবে: ইসি হাবিব

মফস্বল ডেস্ক
  • আপডেট সময় ০৮:৪০:৩৫ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৭ ডিসেম্বর ২০২৩
  • / ১৮২ বার পড়া হয়েছে

নির্বাচন কমিশনার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) মো. আহসান হাবিব খান বলেছেন, দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে কোথাও জালভোটের প্রমাণ পেলে তাৎক্ষণিকভাবে প্রিসাইডিং, পোলিং, সহকারী প্রিসাইডিং অফিসারকে সাসপেন্ড করা হবে। এছাড়া চাকরিচ্যুত করার জন্য যা যা করা দরকার তাই করা হবে। তবে বর্তমানে এখন যারা প্রশাসন, আইনশৃঙ্খলা ও নির্বাচন সংশ্লিষ্ট যারা আছেন, তারা সবাই পরীক্ষিত, তাদের দ্বারা কোনো অনিয়ম হবে না। এখন প্রার্থীদের ও গণমাধ্যমের সহযোগিতা দরকার। আমাকে সবাই আশ্বস্ত করছেন, তারাও সহযোগিতা করবেন।

বুধবার পটুয়াখালী জেলা প্রশাসকের দরবার হলে আচরণবিধি ও অন্যান্য বিষয়ে অনুষ্ঠিতব্য মতবিনিময় সভা শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

আহসান হাবিব খান বলেন, এখন ছবিযুক্ত ভোটার তালিকা রয়েছে। ছবি মিলিয়ে ভোটারদের ভোটকেন্দ্রে প্রবেশ করতে হবে। একজন ব্যক্তিও যেন না বলে, আমার ভোট আগেই দেওয়া হয়েছে। কেন্দ্রে কেন্দ্রে দায়িত্ব ভাগ করে নেন কোথাও যেন জালভোট না দেওয়া হয়। দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন সুষ্ঠু করতে বয়স্ক কমিশনাররা শুধু জীবনটা দেওয়া ছাড়া সব কিছু করছেন। দেশের বিভিন্ন প্রান্তে ছুটে চলছেন। সবার সহযোগিতায় বিশ্বের কাছে, নিজের বিবেকের কাছে প্রমাণ করতে পারি দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন ভবিষ্যতের জন্য অনুকরণীয়, অনুসরণীয় পাথেয় হয়ে থাকে যেন।

বরিশালের বিভাগীয় কমিশনার মো. শওকত আলীর সভাপতিত্বে উপস্থিত ছিলেন- বরিশাল অতিরিক্ত ডিআইজি মো. শহিদুল্লাহ, জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা ও জেলা প্রশাসক মো. কুতুবুল আলম, পটুয়াখালী পুলিশ সুপার সাইদুল ইসলাম, জেলা নির্বাচন অফিসার খান আবি শাহানুর খানসহ পটুয়াখালী ও বরগুনা জেলার রিটার্নিং অফিসার, সহকারী রিটার্নিং অফিসার, আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীসহ নির্বাচন সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা, প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীরা।

ট্যাগস

নিউজটি শেয়ার করুন

কেন্দ্রে জালভোটের ঘটনা ঘটলে সংশ্লিষ্টদের চাকরিচ্যুত করা হবে: ইসি হাবিব

আপডেট সময় ০৮:৪০:৩৫ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৭ ডিসেম্বর ২০২৩

নির্বাচন কমিশনার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) মো. আহসান হাবিব খান বলেছেন, দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে কোথাও জালভোটের প্রমাণ পেলে তাৎক্ষণিকভাবে প্রিসাইডিং, পোলিং, সহকারী প্রিসাইডিং অফিসারকে সাসপেন্ড করা হবে। এছাড়া চাকরিচ্যুত করার জন্য যা যা করা দরকার তাই করা হবে। তবে বর্তমানে এখন যারা প্রশাসন, আইনশৃঙ্খলা ও নির্বাচন সংশ্লিষ্ট যারা আছেন, তারা সবাই পরীক্ষিত, তাদের দ্বারা কোনো অনিয়ম হবে না। এখন প্রার্থীদের ও গণমাধ্যমের সহযোগিতা দরকার। আমাকে সবাই আশ্বস্ত করছেন, তারাও সহযোগিতা করবেন।

বুধবার পটুয়াখালী জেলা প্রশাসকের দরবার হলে আচরণবিধি ও অন্যান্য বিষয়ে অনুষ্ঠিতব্য মতবিনিময় সভা শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

আহসান হাবিব খান বলেন, এখন ছবিযুক্ত ভোটার তালিকা রয়েছে। ছবি মিলিয়ে ভোটারদের ভোটকেন্দ্রে প্রবেশ করতে হবে। একজন ব্যক্তিও যেন না বলে, আমার ভোট আগেই দেওয়া হয়েছে। কেন্দ্রে কেন্দ্রে দায়িত্ব ভাগ করে নেন কোথাও যেন জালভোট না দেওয়া হয়। দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন সুষ্ঠু করতে বয়স্ক কমিশনাররা শুধু জীবনটা দেওয়া ছাড়া সব কিছু করছেন। দেশের বিভিন্ন প্রান্তে ছুটে চলছেন। সবার সহযোগিতায় বিশ্বের কাছে, নিজের বিবেকের কাছে প্রমাণ করতে পারি দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন ভবিষ্যতের জন্য অনুকরণীয়, অনুসরণীয় পাথেয় হয়ে থাকে যেন।

বরিশালের বিভাগীয় কমিশনার মো. শওকত আলীর সভাপতিত্বে উপস্থিত ছিলেন- বরিশাল অতিরিক্ত ডিআইজি মো. শহিদুল্লাহ, জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা ও জেলা প্রশাসক মো. কুতুবুল আলম, পটুয়াখালী পুলিশ সুপার সাইদুল ইসলাম, জেলা নির্বাচন অফিসার খান আবি শাহানুর খানসহ পটুয়াখালী ও বরগুনা জেলার রিটার্নিং অফিসার, সহকারী রিটার্নিং অফিসার, আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীসহ নির্বাচন সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা, প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীরা।