০৫:২৯ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২০ মে ২০২৪

কোরবানির ঈদের আগে ৫ সিটি নির্বাচন

নিজস্ব সংবাদ দাতা
  • আপডেট সময় ০৫:২৫:০২ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৩ মার্চ ২০২৩
  • / ৫৯ বার পড়া হয়েছে

কোরবানি ঈদের আগেই পাঁচ সিটি করপোরেশন নির্বাচন সম্পন্ন করা হবে বলে জানিয়েছেন নির্বাচন কমিশনার বেগম রাশেদা সুলতানা। বৃহস্পতিবার (২৩ মার্চ) দুপুরে আগারগাঁওয়ের নির্বাচন ভবনে নিজ কার্যালয়ে সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান তিনি।

পাঁচ সিটি করপোরেশন হলো গাজীপুর, রাজশাহী, সিলেট, খুলনা ও বরিশাল। রাশেদা সুলতানা বলেন, ২৩ মে থেকে জুনের মধ্যেই পাঁচ সিটির নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। অর্থাৎ কোরবানির আগেই সব সিটি নির্বাচন শেষ করা হবে। তবে কোনটা কবে হবে সেটা তফসিলে ঠিক হবে। তিনি বলেন, কাউকে ভোটের মাঠে আনা নির্বাচন কমিশনের কাজ নয়। আমরা সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য তাদের আহ্বান করতে পারি।

কিন্তু ভোটে আসার বিষয়টি তাদের ব্যাপার। ইসি রাশেদা বলেন, সংলাপের বিষয়ে আইনে কিছু বলা নেই। তবে, প্রয়োজন হলে নিশ্চয়ই আমরা বসব। এ ছাড়া গণপ্রতিনিধিত্ব আদেশ (আরপিও) সংশোধনের বিষয়টি আগামী ২৮ মার্চ মন্ত্রিপরিষদে উঠবে বলেও জানান তিনি।

রাশেদা সুলতানা বলেন, আরপিও সংশোধন হলে এটি যুগান্তকারী আইন হবে এবং এতে প্রার্থী, সমর্থক সবার আচরণগত পরিবর্তন হবে। তিনি বলেন, আরপিও পাস হলে কমিশন, কমিশনের যারা ফিল্ডে কাজ করবেন প্রত্যেকের জন্য এটা খুব ভালো কাজ হবে। বাংলাদেশ থেকে সবকিছু নির্মূল করা সম্ভব নয়। তবে অনেকটাই কমবে।

ট্যাগস

নিউজটি শেয়ার করুন

কোরবানির ঈদের আগে ৫ সিটি নির্বাচন

আপডেট সময় ০৫:২৫:০২ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৩ মার্চ ২০২৩

কোরবানি ঈদের আগেই পাঁচ সিটি করপোরেশন নির্বাচন সম্পন্ন করা হবে বলে জানিয়েছেন নির্বাচন কমিশনার বেগম রাশেদা সুলতানা। বৃহস্পতিবার (২৩ মার্চ) দুপুরে আগারগাঁওয়ের নির্বাচন ভবনে নিজ কার্যালয়ে সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান তিনি।

পাঁচ সিটি করপোরেশন হলো গাজীপুর, রাজশাহী, সিলেট, খুলনা ও বরিশাল। রাশেদা সুলতানা বলেন, ২৩ মে থেকে জুনের মধ্যেই পাঁচ সিটির নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। অর্থাৎ কোরবানির আগেই সব সিটি নির্বাচন শেষ করা হবে। তবে কোনটা কবে হবে সেটা তফসিলে ঠিক হবে। তিনি বলেন, কাউকে ভোটের মাঠে আনা নির্বাচন কমিশনের কাজ নয়। আমরা সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য তাদের আহ্বান করতে পারি।

কিন্তু ভোটে আসার বিষয়টি তাদের ব্যাপার। ইসি রাশেদা বলেন, সংলাপের বিষয়ে আইনে কিছু বলা নেই। তবে, প্রয়োজন হলে নিশ্চয়ই আমরা বসব। এ ছাড়া গণপ্রতিনিধিত্ব আদেশ (আরপিও) সংশোধনের বিষয়টি আগামী ২৮ মার্চ মন্ত্রিপরিষদে উঠবে বলেও জানান তিনি।

রাশেদা সুলতানা বলেন, আরপিও সংশোধন হলে এটি যুগান্তকারী আইন হবে এবং এতে প্রার্থী, সমর্থক সবার আচরণগত পরিবর্তন হবে। তিনি বলেন, আরপিও পাস হলে কমিশন, কমিশনের যারা ফিল্ডে কাজ করবেন প্রত্যেকের জন্য এটা খুব ভালো কাজ হবে। বাংলাদেশ থেকে সবকিছু নির্মূল করা সম্ভব নয়। তবে অনেকটাই কমবে।