০৬:১০ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪

কোহলিদের উড়িয়ে তিনে উঠে এলো রোহিতের মুম্বাই

নিজস্ব সংবাদ দাতা
  • আপডেট সময় ০৯:৪৮:১১ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১০ মে ২০২৩
  • / ৫৭ বার পড়া হয়েছে

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) চলতি মৌসুমে শুরুর দিকে কয়েক ম্যাচে হেরে তলানির দিকে চলে গিয়েছিল মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স। তবে টানা ম্যাচ জিতে শেষ দিকে এসে ঠিকই ঘুরে দাঁড়িয়েছে আইপিএলের ইতিহাসে সর্বোচ্চ পাঁচবারের চ্যাম্পিয়নরা।

মঙ্গলবার (১০ মে) ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে আসরের ৫৪তম ম্যাচে বিরাট কোহলির রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরুর করা ১৯৯ রান ২১ বল আর ৬ উইকেট হাতে রেখে অনায়াসে জিতে নিয়েছে রোহিত শর্মারা। এই জয়ে আট নম্বর থেকে এক লাফে পয়েন্ট তালিকার তিন নম্বরে উঠে এসেছে মুম্বাইয়ের ফ্র‍্যাঞ্চাইজিটি। মুম্বাইয়ের ঘরের মাঠ ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামের ব্যাটিং স্বর্গে টস জিতে বোলিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয় স্বাগতিকরা। পাওয়ার প্লেতে বিরাট কোহলি ও অনুজ রাওয়াতের উইকেট তুলে সফরকারীদের চাপে রাখেন জেসন বেহানড্রফ।

তবে আরসিবি অধিনায়ক ফাফ ডু প্লেসি ও গ্লেন ম্যাক্সওয়েলের সৌজন্যে বড় রানের পথে এগিয়ে যায় বেঙ্গালুরু। ডু প্লেসি ৪১ বলে করেছে ৫টি চার ও ৩টি ছক্কায় করেছেন ৬৫ রান। ম্যাক্সওয়েলও ২০৬ স্ট্রাইক রেটে ৩৩ বলে ৬৮ রান করেন। তার ইনিংসে ৮টি চার ও ৪টি ছক্কার মার ছিল। শেষ দিকে দীনেশ কার্তিকের ১৮ বলে ঝোড়ো ৩০ রানের ইনিংসে বেঙ্গালুরুর সংগ্রহ দাঁড়ায় ৬ উইকেটে ১৯৯ রান। বোলিংয়ে অস্ট্রেলিয়ান পেসার বেহানড্রফ একাই ৩ উইকেট নেন। এছাড়া একটি করে উইকেট পান ক্যামেরুন গ্রিন, ক্রিস জর্ডান ও কুমার কার্তিকেয়া।

২০০ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে মুম্বাইকে বিস্ফোরক সূচনা এনে দেন ওপেনার ঈশান কিষান। রোহিত শর্মা ৮ বল খেলে ৭ রানে আউট হলেও দ্রুতগতিতে রান তুলে মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যানদের কাজটা সহজ করেন বাঁহাতি ওপেনার ঈশান। পাওয়ার প্লেতে এই ব্যাটার ২১ বল খেলে ৪টি চার ও ৪টি ছক্কায় ৪২ রান করেন। এরপর বাকি কাজটুকু সূর্যকুমার যাদব ও নেহাল ওয়াধেরা দুজনে মিলেই সেরে দিয়েছেন। এই দুই ব্যাটার ৬৬ বলে ১৪০ রানের জুটি গড়ে বেঙ্গালুরুর কাছ থেকে ম্যাচ ছিনিয়ে নেন।সূর্যকুমারের ব্যাট থেকে এসেছে মাত্র ৩৫ বল ৭টি চারে ৬টি ছক্কার সৌজন্যে ৮৩ রান।

২২ বছরের তরুণ নেহাল ৩৪ বলে ৫২ রানে অপরাজিত থেকে ১৬.৩ ওভারেই জয়ের বন্দরে নিয়ে যান। এই জয়ে পয়েন্ট তালিকার আট থেকে তিনে উঠে গেছে মুম্বাই। ১১ ম্যাচে রোহিতদের পয়েন্ট এখন ১২। সমান ম্যাচে বেঙ্গালুরুর পয়েন্ট ১০। আর ১৬ ও ১৩ পয়েন্ট নিয়ে যথাক্রমে এক ও দুই নম্বরে আছে গুজরাট ও চেন্নাই।

ট্যাগস

নিউজটি শেয়ার করুন

কোহলিদের উড়িয়ে তিনে উঠে এলো রোহিতের মুম্বাই

আপডেট সময় ০৯:৪৮:১১ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১০ মে ২০২৩

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) চলতি মৌসুমে শুরুর দিকে কয়েক ম্যাচে হেরে তলানির দিকে চলে গিয়েছিল মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স। তবে টানা ম্যাচ জিতে শেষ দিকে এসে ঠিকই ঘুরে দাঁড়িয়েছে আইপিএলের ইতিহাসে সর্বোচ্চ পাঁচবারের চ্যাম্পিয়নরা।

মঙ্গলবার (১০ মে) ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে আসরের ৫৪তম ম্যাচে বিরাট কোহলির রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরুর করা ১৯৯ রান ২১ বল আর ৬ উইকেট হাতে রেখে অনায়াসে জিতে নিয়েছে রোহিত শর্মারা। এই জয়ে আট নম্বর থেকে এক লাফে পয়েন্ট তালিকার তিন নম্বরে উঠে এসেছে মুম্বাইয়ের ফ্র‍্যাঞ্চাইজিটি। মুম্বাইয়ের ঘরের মাঠ ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামের ব্যাটিং স্বর্গে টস জিতে বোলিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয় স্বাগতিকরা। পাওয়ার প্লেতে বিরাট কোহলি ও অনুজ রাওয়াতের উইকেট তুলে সফরকারীদের চাপে রাখেন জেসন বেহানড্রফ।

তবে আরসিবি অধিনায়ক ফাফ ডু প্লেসি ও গ্লেন ম্যাক্সওয়েলের সৌজন্যে বড় রানের পথে এগিয়ে যায় বেঙ্গালুরু। ডু প্লেসি ৪১ বলে করেছে ৫টি চার ও ৩টি ছক্কায় করেছেন ৬৫ রান। ম্যাক্সওয়েলও ২০৬ স্ট্রাইক রেটে ৩৩ বলে ৬৮ রান করেন। তার ইনিংসে ৮টি চার ও ৪টি ছক্কার মার ছিল। শেষ দিকে দীনেশ কার্তিকের ১৮ বলে ঝোড়ো ৩০ রানের ইনিংসে বেঙ্গালুরুর সংগ্রহ দাঁড়ায় ৬ উইকেটে ১৯৯ রান। বোলিংয়ে অস্ট্রেলিয়ান পেসার বেহানড্রফ একাই ৩ উইকেট নেন। এছাড়া একটি করে উইকেট পান ক্যামেরুন গ্রিন, ক্রিস জর্ডান ও কুমার কার্তিকেয়া।

২০০ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে মুম্বাইকে বিস্ফোরক সূচনা এনে দেন ওপেনার ঈশান কিষান। রোহিত শর্মা ৮ বল খেলে ৭ রানে আউট হলেও দ্রুতগতিতে রান তুলে মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যানদের কাজটা সহজ করেন বাঁহাতি ওপেনার ঈশান। পাওয়ার প্লেতে এই ব্যাটার ২১ বল খেলে ৪টি চার ও ৪টি ছক্কায় ৪২ রান করেন। এরপর বাকি কাজটুকু সূর্যকুমার যাদব ও নেহাল ওয়াধেরা দুজনে মিলেই সেরে দিয়েছেন। এই দুই ব্যাটার ৬৬ বলে ১৪০ রানের জুটি গড়ে বেঙ্গালুরুর কাছ থেকে ম্যাচ ছিনিয়ে নেন।সূর্যকুমারের ব্যাট থেকে এসেছে মাত্র ৩৫ বল ৭টি চারে ৬টি ছক্কার সৌজন্যে ৮৩ রান।

২২ বছরের তরুণ নেহাল ৩৪ বলে ৫২ রানে অপরাজিত থেকে ১৬.৩ ওভারেই জয়ের বন্দরে নিয়ে যান। এই জয়ে পয়েন্ট তালিকার আট থেকে তিনে উঠে গেছে মুম্বাই। ১১ ম্যাচে রোহিতদের পয়েন্ট এখন ১২। সমান ম্যাচে বেঙ্গালুরুর পয়েন্ট ১০। আর ১৬ ও ১৩ পয়েন্ট নিয়ে যথাক্রমে এক ও দুই নম্বরে আছে গুজরাট ও চেন্নাই।