০৬:১৯ অপরাহ্ন, রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪

খুলনায় পুলিশ-বিএনপি সংঘর্ষে আহত ১২

নিজস্ব সংবাদ দাতা
  • আপডেট সময় ০৭:২০:০৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ১ এপ্রিল ২০২৩
  • / ৬০ বার পড়া হয়েছে

খুলনায় বিএনপি নেতাকর্মীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ হয়েছে। এ সময় ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া, ইটপাটকেল, টিয়ারশেল ও রাবার বুলেট নিক্ষেপের ঘটনায় আহত হয়েছেন প্রায় ১২ জন। তবে পুলিশ কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, হঠাৎ করে তাদের ওপরে ইটপাটকেল নিক্ষেপ করা হয়।

শনিবার (১ এপ্রিল) বিকেলে খুলনা মহানগরীর কেডি ঘোষ রোডে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনার পর একই দিন বিকেল ৪টার দিকে প্রেস ব্রিফিং করেছে বিএনপি। প্রেস ব্রিফিংয়ে বক্তব্য দেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান নিতাই রায় চৌধুরী ও বিএনপির তথ্য বিষয়ক সম্পাদক আজিজুল বারী হেলাল।

বিএনপি নেতাদের অভিযোগ, ‘শনিবার দুপুর ২টায় ১০ দফা দাবিতে নগরীর কেডি ঘোষ রোডে দলীয় কার্যালয় চত্বরে বিএনপির অবস্থান কর্মসূচি ছিল। খুলনা থানার সামনে দিয়ে একটি খণ্ড মিছিল এই কর্মসূচিতে আসার সময় পুলিশ তাদেরকে বাধা দেয় এবং লাঠিচার্জ করে। তখন পুলিশের সঙ্গে বিএনপি নেতাকর্মীদের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষে বিএনপির ১২ জন নেতাকর্মী আহত হয়েছেন।

এ ছাড়াও ঘটনাস্থল থেকে বিএনপির পাঁচজনকে আটক করেছে পুলিশ।’ খুলনা মহানগর বিএনপির মিডিয়া সেলের সদস্য সচিব মো. মিজানুর রহমান মিল্টন জানান, শনিবার বিকেলে সংঘর্ষের ঘটনায় প্রায় ১২ জন নেতাকর্মী আহত হয়েছেন। খুলনা মেট্রোপলিটন পুলিশের ডেপুটি কমিশনার (দক্ষিণ) মো. তাজুল ইসলাম জানান, শনিবার বিকেলে হঠাৎ করে বিএনপির দুটি দল দুই দিক থেকে আসে, স্লোগান দিতে থাকে।

এদের মধ্যে কিছু উচ্ছৃঙ্খল ছেলেরা হঠাৎ করে আমাদের ওপর ইটপাটকেল মারা শুরু করলে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষার জন্য টিয়ারশেল ও শর্টগানের গুলি ছুড়তে বাধ্য হই। তাদের ইটপাটকেলের আঘাতে পুলিশের কয়েকজন সদস্য আহত হয়েছেন। বর্তমানে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে।

ট্যাগস

নিউজটি শেয়ার করুন

খুলনায় পুলিশ-বিএনপি সংঘর্ষে আহত ১২

আপডেট সময় ০৭:২০:০৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ১ এপ্রিল ২০২৩

খুলনায় বিএনপি নেতাকর্মীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ হয়েছে। এ সময় ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া, ইটপাটকেল, টিয়ারশেল ও রাবার বুলেট নিক্ষেপের ঘটনায় আহত হয়েছেন প্রায় ১২ জন। তবে পুলিশ কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, হঠাৎ করে তাদের ওপরে ইটপাটকেল নিক্ষেপ করা হয়।

শনিবার (১ এপ্রিল) বিকেলে খুলনা মহানগরীর কেডি ঘোষ রোডে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনার পর একই দিন বিকেল ৪টার দিকে প্রেস ব্রিফিং করেছে বিএনপি। প্রেস ব্রিফিংয়ে বক্তব্য দেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান নিতাই রায় চৌধুরী ও বিএনপির তথ্য বিষয়ক সম্পাদক আজিজুল বারী হেলাল।

বিএনপি নেতাদের অভিযোগ, ‘শনিবার দুপুর ২টায় ১০ দফা দাবিতে নগরীর কেডি ঘোষ রোডে দলীয় কার্যালয় চত্বরে বিএনপির অবস্থান কর্মসূচি ছিল। খুলনা থানার সামনে দিয়ে একটি খণ্ড মিছিল এই কর্মসূচিতে আসার সময় পুলিশ তাদেরকে বাধা দেয় এবং লাঠিচার্জ করে। তখন পুলিশের সঙ্গে বিএনপি নেতাকর্মীদের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষে বিএনপির ১২ জন নেতাকর্মী আহত হয়েছেন।

এ ছাড়াও ঘটনাস্থল থেকে বিএনপির পাঁচজনকে আটক করেছে পুলিশ।’ খুলনা মহানগর বিএনপির মিডিয়া সেলের সদস্য সচিব মো. মিজানুর রহমান মিল্টন জানান, শনিবার বিকেলে সংঘর্ষের ঘটনায় প্রায় ১২ জন নেতাকর্মী আহত হয়েছেন। খুলনা মেট্রোপলিটন পুলিশের ডেপুটি কমিশনার (দক্ষিণ) মো. তাজুল ইসলাম জানান, শনিবার বিকেলে হঠাৎ করে বিএনপির দুটি দল দুই দিক থেকে আসে, স্লোগান দিতে থাকে।

এদের মধ্যে কিছু উচ্ছৃঙ্খল ছেলেরা হঠাৎ করে আমাদের ওপর ইটপাটকেল মারা শুরু করলে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষার জন্য টিয়ারশেল ও শর্টগানের গুলি ছুড়তে বাধ্য হই। তাদের ইটপাটকেলের আঘাতে পুলিশের কয়েকজন সদস্য আহত হয়েছেন। বর্তমানে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে।