০৩:২৫ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪

গাজায় ইসরায়েলি বিমান হামলা

নিজস্ব সংবাদ দাতা
  • আপডেট সময় ০৯:২১:৫৩ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ৩ মে ২০২৩
  • / ৫৮ বার পড়া হয়েছে

খাদের আদনান নামের এক ফিলিস্তিনি বন্দির মৃত্যুকে কেন্দ্র করে হামাসের হামলার পাল্টা জবাব দিয়েছে ইসরায়েল। মঙ্গলবার (২ মে) রাতে গাজা উপত্যকায় বিমান হামলা চালিয়েছে ইসরায়েল।

এর আগে, ইসরায়েলের কারাগারে ৮৭ দিনের অনশনের পর খাদের আদনান নামে ওই ফিলিস্তিনির মৃত্যু হয়। তার মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পড়লে ফিলিস্তিনজুড়ে হাজার হাজার মানুষ রাস্তায় নেমে আসেন। তারা আদনানের মৃত্যুর জন্য ইসরায়েলকে দায়ী করে শাস্তি দাবি করেন।

এদিকে আদনানের মৃত্যুর প্রতিবাদে গাজা উপত্যকা থেকে ইসরায়েলকে লক্ষ্য করে রকেট ছোড়ে সশস্ত্র সংগঠন হামাস। এরপরই গাজার অন্তত দু’টি স্থান লক্ষ্য করে বিমান হামলা চালায় দখলদার ইসরায়েলি বাহিনী। ইসরায়েলের দাবি, গাজা উপত্যকা থেকে অন্তত ২৬টি রকেট ছোঁড়া হয়েছে। এর মধ্যে দুটি গিয়ে পড়ে দক্ষিণের শহর সেরতে।

রকেটের হামলায় শহরটিতে অন্তত তিনজন আহত হন। এর আগে, মঙ্গলবার দিনের বেলায় গাজার বিভিন্ন জায়গায় কামান হামলা চালায় ইসরায়েল। এরপর রাতের বেলা বিমান হামলা চালানো হয়। সূত্র: আল জাজিরা

ট্যাগস

নিউজটি শেয়ার করুন

গাজায় ইসরায়েলি বিমান হামলা

আপডেট সময় ০৯:২১:৫৩ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ৩ মে ২০২৩

খাদের আদনান নামের এক ফিলিস্তিনি বন্দির মৃত্যুকে কেন্দ্র করে হামাসের হামলার পাল্টা জবাব দিয়েছে ইসরায়েল। মঙ্গলবার (২ মে) রাতে গাজা উপত্যকায় বিমান হামলা চালিয়েছে ইসরায়েল।

এর আগে, ইসরায়েলের কারাগারে ৮৭ দিনের অনশনের পর খাদের আদনান নামে ওই ফিলিস্তিনির মৃত্যু হয়। তার মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পড়লে ফিলিস্তিনজুড়ে হাজার হাজার মানুষ রাস্তায় নেমে আসেন। তারা আদনানের মৃত্যুর জন্য ইসরায়েলকে দায়ী করে শাস্তি দাবি করেন।

এদিকে আদনানের মৃত্যুর প্রতিবাদে গাজা উপত্যকা থেকে ইসরায়েলকে লক্ষ্য করে রকেট ছোড়ে সশস্ত্র সংগঠন হামাস। এরপরই গাজার অন্তত দু’টি স্থান লক্ষ্য করে বিমান হামলা চালায় দখলদার ইসরায়েলি বাহিনী। ইসরায়েলের দাবি, গাজা উপত্যকা থেকে অন্তত ২৬টি রকেট ছোঁড়া হয়েছে। এর মধ্যে দুটি গিয়ে পড়ে দক্ষিণের শহর সেরতে।

রকেটের হামলায় শহরটিতে অন্তত তিনজন আহত হন। এর আগে, মঙ্গলবার দিনের বেলায় গাজার বিভিন্ন জায়গায় কামান হামলা চালায় ইসরায়েল। এরপর রাতের বেলা বিমান হামলা চালানো হয়। সূত্র: আল জাজিরা