০৬:৩২ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২৩

চার ঘণ্টায়ও নিয়ন্ত্রণে আসেনি বঙ্গবাজারের আগুন

নিজস্ব সংবাদ দাতা
  • আপডেট সময় ১০:৩২:১৪ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ৪ এপ্রিল ২০২৩
  • / ৩৬ বার পড়া হয়েছে

রাজধানীর বঙ্গবাজারে লাগা আগুন চার ঘণ্টায়ও নিয়ন্ত্রণে আসেনি। ফায়ার সার্ভিসের ৫০টি ইউনিট আপ্রাণ চেষ্টা করলেও আগুন নেভাতে পারছে না। উল্টো বাতাসের কারণে আগুন আরও বাড়ছে। ওই এলাকায় দেখা দিয়েছে পানির স্বল্পতা।

সোমবার (৪ এপ্রিল) সকাল ১০টায় শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত আগুন নিয়ন্ত্রণে ফায়ার সার্ভিসের ৫০টি ইউনিট যোগ দিয়েছে। আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ করছে বিমান বাহিনীর পাশাপাশি সেনাবাহিনীর ফায়ার ফাইটার টিমও। বঙ্গোবাজারের এক ব্যবসায়ী জানান, সকালে আমার ভাই ফোন করে আগুন লাগার খবর দেয়। খবর পেয়ে আমি দ্রুত ঘটনাস্থলে এসে দেখি দাউদাউ করে আগুন জ্বলছে।

এমন অবস্থা দেখে আমি বাকরুদ্ধ হয়ে পেড়েছি। সরেজমিনে দেখা যায়, ফায়ার সার্ভিসের ইউনিটগুলো ঘটনাস্থলের চতুর্দিক থেকে পানি ছিটিয়ে আগুন নেভানোর চেষ্টা করছেন। পানির সংকট দেখা দেওয়ায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের হল থেকেও পানি আনতে দেখা গেছে দমকল বাহিনীর কর্মীদের। আর বিমানহিনীর হেলিকপ্টারটি রাজধানীর হাতির ঝিল লেক থেকে পানি নিয়ে যাচ্ছেন।

আবুল হাসান নামে অ্যানেক্স মার্কেটের এক দোকান মালিক বলেন, বঙ্গবাজার, মহানগর, আদর্শ ও গুলিস্তান মার্কেট আগুনে পুড়ে গেছে। এখন অ্যানেক্স মার্কেটে আগুন লেগেছে। বঙ্গবাজারে আগুন নিয়ন্ত্রণ করতে গিয়ে পানি সংকট দেখা দিয়েছে। এ কারণে আগুন নিয়ন্ত্রণে বেগ পেতে হচ্ছে ফায়ার সার্ভিস কর্মীদের। মার্কেটে ঈদ উপলক্ষে শাড়ি, জিন্সের প্যান্টসহ বিপুল কাপড়ের স্টক থাকায় আগুনের ব্যাপকতা বাড়ছে। ধোঁয়ায় ছেয়ে যাচ্ছে চারপাশ। এদিকে আগুনের সবকিছু হারিয়ে নিঃস্ব ব্যবসায়ীরা আহাজারি করছেন।

খবর পেয়ে আগে যারা ঘটনাস্থলে আসতে পেরেছেন তারা যে যার মতো করে দোকান থেকে কিছু কিছু জিনিস বের করেছেন। তবে বেশিরভাগ ব্যবসায়ীরাই কোনও মালামাল বের করতে পারেননি বলে জানান ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ীরা। অন্যদিকে পার্শ্ববর্তী ইসলামিয়া মার্কেটসহ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অমর একুশে হলের বিপরীতে থাকা দোকানের মালিক ও কর্মচারীদের তাদের দোকানে থাকা মালামাল বের করে রাখতে দেখা গেছে।

ট্যাগস

নিউজটি শেয়ার করুন

চার ঘণ্টায়ও নিয়ন্ত্রণে আসেনি বঙ্গবাজারের আগুন

আপডেট সময় ১০:৩২:১৪ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ৪ এপ্রিল ২০২৩

রাজধানীর বঙ্গবাজারে লাগা আগুন চার ঘণ্টায়ও নিয়ন্ত্রণে আসেনি। ফায়ার সার্ভিসের ৫০টি ইউনিট আপ্রাণ চেষ্টা করলেও আগুন নেভাতে পারছে না। উল্টো বাতাসের কারণে আগুন আরও বাড়ছে। ওই এলাকায় দেখা দিয়েছে পানির স্বল্পতা।

সোমবার (৪ এপ্রিল) সকাল ১০টায় শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত আগুন নিয়ন্ত্রণে ফায়ার সার্ভিসের ৫০টি ইউনিট যোগ দিয়েছে। আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ করছে বিমান বাহিনীর পাশাপাশি সেনাবাহিনীর ফায়ার ফাইটার টিমও। বঙ্গোবাজারের এক ব্যবসায়ী জানান, সকালে আমার ভাই ফোন করে আগুন লাগার খবর দেয়। খবর পেয়ে আমি দ্রুত ঘটনাস্থলে এসে দেখি দাউদাউ করে আগুন জ্বলছে।

এমন অবস্থা দেখে আমি বাকরুদ্ধ হয়ে পেড়েছি। সরেজমিনে দেখা যায়, ফায়ার সার্ভিসের ইউনিটগুলো ঘটনাস্থলের চতুর্দিক থেকে পানি ছিটিয়ে আগুন নেভানোর চেষ্টা করছেন। পানির সংকট দেখা দেওয়ায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের হল থেকেও পানি আনতে দেখা গেছে দমকল বাহিনীর কর্মীদের। আর বিমানহিনীর হেলিকপ্টারটি রাজধানীর হাতির ঝিল লেক থেকে পানি নিয়ে যাচ্ছেন।

আবুল হাসান নামে অ্যানেক্স মার্কেটের এক দোকান মালিক বলেন, বঙ্গবাজার, মহানগর, আদর্শ ও গুলিস্তান মার্কেট আগুনে পুড়ে গেছে। এখন অ্যানেক্স মার্কেটে আগুন লেগেছে। বঙ্গবাজারে আগুন নিয়ন্ত্রণ করতে গিয়ে পানি সংকট দেখা দিয়েছে। এ কারণে আগুন নিয়ন্ত্রণে বেগ পেতে হচ্ছে ফায়ার সার্ভিস কর্মীদের। মার্কেটে ঈদ উপলক্ষে শাড়ি, জিন্সের প্যান্টসহ বিপুল কাপড়ের স্টক থাকায় আগুনের ব্যাপকতা বাড়ছে। ধোঁয়ায় ছেয়ে যাচ্ছে চারপাশ। এদিকে আগুনের সবকিছু হারিয়ে নিঃস্ব ব্যবসায়ীরা আহাজারি করছেন।

খবর পেয়ে আগে যারা ঘটনাস্থলে আসতে পেরেছেন তারা যে যার মতো করে দোকান থেকে কিছু কিছু জিনিস বের করেছেন। তবে বেশিরভাগ ব্যবসায়ীরাই কোনও মালামাল বের করতে পারেননি বলে জানান ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ীরা। অন্যদিকে পার্শ্ববর্তী ইসলামিয়া মার্কেটসহ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অমর একুশে হলের বিপরীতে থাকা দোকানের মালিক ও কর্মচারীদের তাদের দোকানে থাকা মালামাল বের করে রাখতে দেখা গেছে।