০৩:৪৯ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪

জনগণ আর আ. লীগের চক্রান্তে পা দেবে না : ফখরুল

নিজস্ব সংবাদ দাতা
  • আপডেট সময় ০৬:০৭:০০ অপরাহ্ন, শনিবার, ১ এপ্রিল ২০২৩
  • / ৫০ বার পড়া হয়েছে

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, জনগণ আর আওয়ামী লীগের কোনো চক্রান্তে পা দেবে না। এবার জনগণ প্রতিরোধ গড়ে তুলে আপনাদের (আওয়ামী লীগ) সব চক্রান্তকে ব্যর্থ করে দেবে।

শনিবার (১ এপ্রিল) রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার ইনস্টিটিউটের সামনে ‘বিদ্যুৎ গ্যাসসহ দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি, আওয়ামী সরকারের সর্বগ্রাসী দুর্নীতির প্রতিবাদে এবং পূর্ব ঘোষিত ১০ দফা বাস্তবায়নের দাবিতে’ আয়োজিত অবস্থান কর্মসূচিতে তিনি এসব কথা বলেন।

মির্জা ফখরুল বলেন, জনগণ যেভাবে জেগে উঠছে আমরা বিশ্বাস করি, এ সরকারের পতন অবশ্যই হবে। আর এ পতন জনগণের অভ্যুত্থানের মধ্য দিয়েই হবে। এরপরেই জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠিত হবে। তিনি বলেন, আমাদের নেতা বেগম খালেদা জিয়াকে অন্যায়ভাবে আটকে রেখেছে; তাকে মুক্তি দিতে হবে।

আমাদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানকে অন্যায়ভাবে সাজা দিয়ে বিদেশে নির্বাসিত করে রাখা হয়েছে। তাকে দেশে ফিরিয়ে রাজনীতি করার সুযোগ করে দিতে হবে। পাশাপাশি আমাদের ৩৫ লাখ নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে যেসব মামলা দিয়েছে তা প্রত্যাহার করতে হবে।

ট্যাগস

নিউজটি শেয়ার করুন

জনগণ আর আ. লীগের চক্রান্তে পা দেবে না : ফখরুল

আপডেট সময় ০৬:০৭:০০ অপরাহ্ন, শনিবার, ১ এপ্রিল ২০২৩

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, জনগণ আর আওয়ামী লীগের কোনো চক্রান্তে পা দেবে না। এবার জনগণ প্রতিরোধ গড়ে তুলে আপনাদের (আওয়ামী লীগ) সব চক্রান্তকে ব্যর্থ করে দেবে।

শনিবার (১ এপ্রিল) রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার ইনস্টিটিউটের সামনে ‘বিদ্যুৎ গ্যাসসহ দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি, আওয়ামী সরকারের সর্বগ্রাসী দুর্নীতির প্রতিবাদে এবং পূর্ব ঘোষিত ১০ দফা বাস্তবায়নের দাবিতে’ আয়োজিত অবস্থান কর্মসূচিতে তিনি এসব কথা বলেন।

মির্জা ফখরুল বলেন, জনগণ যেভাবে জেগে উঠছে আমরা বিশ্বাস করি, এ সরকারের পতন অবশ্যই হবে। আর এ পতন জনগণের অভ্যুত্থানের মধ্য দিয়েই হবে। এরপরেই জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠিত হবে। তিনি বলেন, আমাদের নেতা বেগম খালেদা জিয়াকে অন্যায়ভাবে আটকে রেখেছে; তাকে মুক্তি দিতে হবে।

আমাদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানকে অন্যায়ভাবে সাজা দিয়ে বিদেশে নির্বাসিত করে রাখা হয়েছে। তাকে দেশে ফিরিয়ে রাজনীতি করার সুযোগ করে দিতে হবে। পাশাপাশি আমাদের ৩৫ লাখ নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে যেসব মামলা দিয়েছে তা প্রত্যাহার করতে হবে।