০৫:৫৮ অপরাহ্ন, রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪

জুয়ার বিজ্ঞাপনে অংশ নিয়ে তোপের মুখে ম্যাককালাম

নিজস্ব সংবাদ দাতা
  • আপডেট সময় ০৫:৫৭:০৬ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ এপ্রিল ২০২৩
  • / ৬৬ বার পড়া হয়েছে

ক্রিকেট ভিত্তিক একাধিক জুয়া (বেটিং) কোম্পানি এখন বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠছে। তবে বাংলাদেশসহ বিশ্বের অনেক দেশে এ ধরনের কার্যক্রমে কঠোর নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। আবার বেশ কিছু দেশে জুয়াকে বৈধতা দেওয়া হয়েছে।

সম্প্রতি এমনই এক জুয়া কোম্পানির বিজ্ঞাপনে অংশ নিয়েছিলেন নিউজিল্যান্ডের সাবেক অধিনায়কের ব্রেন্ডন ম্যাককালাম। যা ইউটিউবে প্রচার হওয়ার পর থেকেই নেটিজনদের তোপের মুখে পড়েছেন সাবেক এই বিধ্বংসী ব্যাটার। বিজ্ঞাপনের ভিডিওটিতে দেখা যায়, মরুভূমিতে একটি স্পোর্টস কার চালাচ্ছেন ম্যাককালাম।

একপর্যায়ে নিজেকে সে কোম্পানির ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর হিসেবে পরিচয় করিয়ে দেন। এমনকি অনলাইন জুয়ার সেই ওয়েবসাইটে নিবন্ধিত হতে আহ্বান জানান বর্তমানে ইংল্যান্ড টেস্ট দলের এই প্রধান কোচ। নিউজিল্যান্ডে ইউটিউবে দেখতে গেলেই বিজ্ঞাপনের ভিডিওটি বারবার ভেসে আসছিল। যা নিয়ে দেশটির মানুষের মধ্যে বিরূপ প্রতিক্রিয়া দেখা দেয়। এমনকি সরকারি কর্তৃপক্ষের কাছেও আনুষ্ঠানিকভাবে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

নিউজিল্যান্ডের আইনে অনলাইন বেটিং অবৈধ। তাই আপত্তি ওঠায় শেষ পর্যন্ত নিউজিল্যান্ডের অভ্যন্তরে ম্যাককালামের বেটিংয়ের বিজ্ঞাপনটি সরিয়ে নিয়েছে ইউটিউব। ওয়াননিউজকে এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন ভিডিও মাধ্যমটির মূল প্রতিষ্ঠান গুগল আলফাবেট।

ট্যাগস

নিউজটি শেয়ার করুন

জুয়ার বিজ্ঞাপনে অংশ নিয়ে তোপের মুখে ম্যাককালাম

আপডেট সময় ০৫:৫৭:০৬ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ এপ্রিল ২০২৩

ক্রিকেট ভিত্তিক একাধিক জুয়া (বেটিং) কোম্পানি এখন বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠছে। তবে বাংলাদেশসহ বিশ্বের অনেক দেশে এ ধরনের কার্যক্রমে কঠোর নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। আবার বেশ কিছু দেশে জুয়াকে বৈধতা দেওয়া হয়েছে।

সম্প্রতি এমনই এক জুয়া কোম্পানির বিজ্ঞাপনে অংশ নিয়েছিলেন নিউজিল্যান্ডের সাবেক অধিনায়কের ব্রেন্ডন ম্যাককালাম। যা ইউটিউবে প্রচার হওয়ার পর থেকেই নেটিজনদের তোপের মুখে পড়েছেন সাবেক এই বিধ্বংসী ব্যাটার। বিজ্ঞাপনের ভিডিওটিতে দেখা যায়, মরুভূমিতে একটি স্পোর্টস কার চালাচ্ছেন ম্যাককালাম।

একপর্যায়ে নিজেকে সে কোম্পানির ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর হিসেবে পরিচয় করিয়ে দেন। এমনকি অনলাইন জুয়ার সেই ওয়েবসাইটে নিবন্ধিত হতে আহ্বান জানান বর্তমানে ইংল্যান্ড টেস্ট দলের এই প্রধান কোচ। নিউজিল্যান্ডে ইউটিউবে দেখতে গেলেই বিজ্ঞাপনের ভিডিওটি বারবার ভেসে আসছিল। যা নিয়ে দেশটির মানুষের মধ্যে বিরূপ প্রতিক্রিয়া দেখা দেয়। এমনকি সরকারি কর্তৃপক্ষের কাছেও আনুষ্ঠানিকভাবে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

নিউজিল্যান্ডের আইনে অনলাইন বেটিং অবৈধ। তাই আপত্তি ওঠায় শেষ পর্যন্ত নিউজিল্যান্ডের অভ্যন্তরে ম্যাককালামের বেটিংয়ের বিজ্ঞাপনটি সরিয়ে নিয়েছে ইউটিউব। ওয়াননিউজকে এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন ভিডিও মাধ্যমটির মূল প্রতিষ্ঠান গুগল আলফাবেট।