০৯:৫৯ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪

ডাচ-বাংলার আরও আড়াই কোটি টাকা উদ্ধার, গ্রেপ্তার ৮

নিজস্ব সংবাদ দাতা
  • আপডেট সময় ০৬:২৩:১৬ অপরাহ্ন, রবিবার, ১২ মার্চ ২০২৩
  • / ৭০ বার পড়া হয়েছে

রাজধানীর উত্তরার তুরাগ এলাকায় অস্ত্রের মুখে ডাচ-বাংলা ব্যাংক লিমিটেডের ১১ কোটি ২৭ লাখ টাকা ছিনতাইয়ের ঘটনায় নতুন করে আরও ২ কোটি ৫৩ লাখ ৯৯ হাজার টাকা উদ্ধার করেছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) গোয়েন্দা বিভাগ। ফলে মোট উদ্ধার করা টাকার পরিমাণ বেড়ে দাঁড়াল ৬ কোটি ৪৩ লাখ ৪৮ হাজার ৫০০ টাকা।

রোববার (১২ মার্চ) দুপুরে ডিএমপির মিডিয়া অ্যান্ড পাবলিক রিলেশন্স বিভাগে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান অতিরিক্ত কমিশনার (ডিবি) মোহাম্মদ হারুন অর রশীদ। তিনি জানান, রাজধানীর মিরপুর, বনানী ও সিলেটের সুনামগঞ্জসহ বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে এই টাকা উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত আটজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (৯ মার্চ) সকাল ১১টার দিকে ডাচ-বাংলা ব্যাংকের বিভিন্ন বুথে টাকা রাখতে গেলে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে গাড়ি থেকে টাকা লুট করা হয় বলে অভিযোগ করেছে ব্যাংক কর্তৃপক্ষ। কর্তৃপক্ষ জানায়, একটি সিকিউরিটি কোম্পানির গাড়িতে ১১ কোটি ২৭ লাখ টাকা সাভার ইপিজেডের ডাচ-বাংলা ব্যাংকের বুথে রাখার জন্য নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল। এ সময় তুরাগ থানাধীন দিয়াবাড়ি ১১নং সড়কে পৌঁছালে সশস্ত্র অবস্থায় ছিনতাইকারীরা অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে টাকা ছিনিয়ে নেয়।

এর কয়েক ঘণ্টার ব্যবধানেই উত্তরা এলাকা থেকে ছিনতাই হওয়া সোয়া ১১ কোটি টাকার মধ্যে ৯ কোটি টাকা উদ্ধারের কথা জানায় ডিবি পুলিশ। পরে টাকা গণনা করে পাওয়া যায় ৩ কোটি ৮৯ লাখ টাকা। নতুন করে উদ্ধার নিয়ে মোট উদ্ধারকৃত টাকার পরিমাণ দাঁড়ায় ৬ কোটি ৪৩ লাখ ৪৮ হাজার ৫০০ টাকা।

ট্যাগস

নিউজটি শেয়ার করুন

ডাচ-বাংলার আরও আড়াই কোটি টাকা উদ্ধার, গ্রেপ্তার ৮

আপডেট সময় ০৬:২৩:১৬ অপরাহ্ন, রবিবার, ১২ মার্চ ২০২৩

রাজধানীর উত্তরার তুরাগ এলাকায় অস্ত্রের মুখে ডাচ-বাংলা ব্যাংক লিমিটেডের ১১ কোটি ২৭ লাখ টাকা ছিনতাইয়ের ঘটনায় নতুন করে আরও ২ কোটি ৫৩ লাখ ৯৯ হাজার টাকা উদ্ধার করেছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) গোয়েন্দা বিভাগ। ফলে মোট উদ্ধার করা টাকার পরিমাণ বেড়ে দাঁড়াল ৬ কোটি ৪৩ লাখ ৪৮ হাজার ৫০০ টাকা।

রোববার (১২ মার্চ) দুপুরে ডিএমপির মিডিয়া অ্যান্ড পাবলিক রিলেশন্স বিভাগে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান অতিরিক্ত কমিশনার (ডিবি) মোহাম্মদ হারুন অর রশীদ। তিনি জানান, রাজধানীর মিরপুর, বনানী ও সিলেটের সুনামগঞ্জসহ বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে এই টাকা উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত আটজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (৯ মার্চ) সকাল ১১টার দিকে ডাচ-বাংলা ব্যাংকের বিভিন্ন বুথে টাকা রাখতে গেলে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে গাড়ি থেকে টাকা লুট করা হয় বলে অভিযোগ করেছে ব্যাংক কর্তৃপক্ষ। কর্তৃপক্ষ জানায়, একটি সিকিউরিটি কোম্পানির গাড়িতে ১১ কোটি ২৭ লাখ টাকা সাভার ইপিজেডের ডাচ-বাংলা ব্যাংকের বুথে রাখার জন্য নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল। এ সময় তুরাগ থানাধীন দিয়াবাড়ি ১১নং সড়কে পৌঁছালে সশস্ত্র অবস্থায় ছিনতাইকারীরা অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে টাকা ছিনিয়ে নেয়।

এর কয়েক ঘণ্টার ব্যবধানেই উত্তরা এলাকা থেকে ছিনতাই হওয়া সোয়া ১১ কোটি টাকার মধ্যে ৯ কোটি টাকা উদ্ধারের কথা জানায় ডিবি পুলিশ। পরে টাকা গণনা করে পাওয়া যায় ৩ কোটি ৮৯ লাখ টাকা। নতুন করে উদ্ধার নিয়ে মোট উদ্ধারকৃত টাকার পরিমাণ দাঁড়ায় ৬ কোটি ৪৩ লাখ ৪৮ হাজার ৫০০ টাকা।