০৬:৩২ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪

ডা. জাফরুল্লাহ ছিলেন নির্ভীক এবং স্পষ্টবাদী মানুষ : ফখরুল

নিজস্ব সংবাদ দাতা
  • আপডেট সময় ০৫:৫২:৫৯ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ এপ্রিল ২০২৩
  • / ৫২ বার পড়া হয়েছে

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী ছিলেন অসাধারণ সাহসী, সৎ, দেশপ্রেমিক, নির্ভীক এবং স্পষ্টবাদী মানুষ। আমরা তার প্রতি শ্রদ্ধা জানাচ্ছি। বৃহস্পতিবার (১৩ এপ্রিল) কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের পাদদেশে ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীর মরদেহে শ্রদ্ধা জানানো শেষে তিনি এ কথা বলেন।

মির্জা ফখরুল বলেন, গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র, গণস্বাস্থ্য হাসপাতাল, ওষুধ সবকিছুই ছিল তার বাংলাদেশের স্বাস্থ্য খাতকে সামনের দিকে এগিয়ে নেওয়ার স্বপ্ন। তিনি স্বাস্থ্যনীতি করতে চেয়েছিলেন। কিন্তু সেটি পারেননি। ওটা করতে পারলে বাংলাদেশের সব মানুষই স্বাস্থ্যসেবা পেত। দেশ ও মানুষের জন্য কথা বলতে তিনি কখনও পিছপা হতেন না। দেশটাকে সত্যিকার অর্থে জনগণের কল্যাণমূলক রাষ্ট্র নির্মাণ করার জন্য তিনি সারাটা জীবন উৎসর্গ করেছেন।

তিনি বলেন, আমরা বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল, বেগম খালেদা জিয়া, আমাদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের পক্ষ থেকে তার প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে এসেছি। তার চলে যাওয়ায় আমাদের অপূরণীয় ক্ষতি হলো। তার শূন্য স্থান আর কখনও পূরণ হওয়ার নয়। তার প্রতি আমরা শ্রদ্ধা ও স্যালুট জানাচ্ছি। এর আগে, বৃহস্পতিবার সকাল ১০টা থেকে সর্বস্তরের মানুষের শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীর মরদেহে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে রাখা হয়।

বারডেম হাসপাতালের হিমঘর থেকে ফ্রিজিং ভ্যানে মরদেহ কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে নেওয়ার পর সবার আগে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক এ কে আজাদ চৌধুরী। পরে বিপ্লবী কমিউনিস্ট লীগের নেতারা, রাশেদ খান মেননের নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধি দল, ঢাকা ও জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকরা, চিকিৎসক, রাজনীতিবিদ, সাংবাদিকসহ নানা শ্রেণি-পেশার মানুষ শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।

ট্যাগস

নিউজটি শেয়ার করুন

ডা. জাফরুল্লাহ ছিলেন নির্ভীক এবং স্পষ্টবাদী মানুষ : ফখরুল

আপডেট সময় ০৫:৫২:৫৯ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ এপ্রিল ২০২৩

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী ছিলেন অসাধারণ সাহসী, সৎ, দেশপ্রেমিক, নির্ভীক এবং স্পষ্টবাদী মানুষ। আমরা তার প্রতি শ্রদ্ধা জানাচ্ছি। বৃহস্পতিবার (১৩ এপ্রিল) কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের পাদদেশে ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীর মরদেহে শ্রদ্ধা জানানো শেষে তিনি এ কথা বলেন।

মির্জা ফখরুল বলেন, গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র, গণস্বাস্থ্য হাসপাতাল, ওষুধ সবকিছুই ছিল তার বাংলাদেশের স্বাস্থ্য খাতকে সামনের দিকে এগিয়ে নেওয়ার স্বপ্ন। তিনি স্বাস্থ্যনীতি করতে চেয়েছিলেন। কিন্তু সেটি পারেননি। ওটা করতে পারলে বাংলাদেশের সব মানুষই স্বাস্থ্যসেবা পেত। দেশ ও মানুষের জন্য কথা বলতে তিনি কখনও পিছপা হতেন না। দেশটাকে সত্যিকার অর্থে জনগণের কল্যাণমূলক রাষ্ট্র নির্মাণ করার জন্য তিনি সারাটা জীবন উৎসর্গ করেছেন।

তিনি বলেন, আমরা বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল, বেগম খালেদা জিয়া, আমাদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের পক্ষ থেকে তার প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে এসেছি। তার চলে যাওয়ায় আমাদের অপূরণীয় ক্ষতি হলো। তার শূন্য স্থান আর কখনও পূরণ হওয়ার নয়। তার প্রতি আমরা শ্রদ্ধা ও স্যালুট জানাচ্ছি। এর আগে, বৃহস্পতিবার সকাল ১০টা থেকে সর্বস্তরের মানুষের শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীর মরদেহে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে রাখা হয়।

বারডেম হাসপাতালের হিমঘর থেকে ফ্রিজিং ভ্যানে মরদেহ কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে নেওয়ার পর সবার আগে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক এ কে আজাদ চৌধুরী। পরে বিপ্লবী কমিউনিস্ট লীগের নেতারা, রাশেদ খান মেননের নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধি দল, ঢাকা ও জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকরা, চিকিৎসক, রাজনীতিবিদ, সাংবাদিকসহ নানা শ্রেণি-পেশার মানুষ শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।