০৬:২২ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪

তৃতীয় পাকিস্তানি হিসেবে ‘সেঞ্চুরি’র মাইলফলক বাবরের

নিজস্ব সংবাদ দাতা
  • আপডেট সময় ০৫:৩৬:২৮ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৩
  • / ৬২ বার পড়া হয়েছে

ঘরের মাঠে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে পাঁচ ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজে মাঠে নেমেছিল স্বাগতিক পাকিস্তান। সিরিজের প্রথম ম্যাচে কিউইদের গুড়িয়ে দিয়ে ৮৮ রানে জয় তুলে নেয় দ্য গ্রিন ম্যানরা। এই ম্যাচে মাঠে নেমেই মাইলফলক স্পর্শ করেছেন পাক অধিনায়ক বাবর আজম।

শোয়েব মালিক ও মোহাম্মদ হাফিজের পর তৃতীয় পাকিস্তানি হিসেবে ১০০ আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলার রেকর্ড গড়েছেন বর্তমান সময়ের অন্যতম সেরা এই ব্যাটার।শুক্রবার (১৪ এপ্রিল) রাতে লাহোরের গাদ্দাফি স্টেডিয়ামে সিরিজের প্রথম টি-টোয়েন্টিতে আগে ব্যাট করে ১৯ দশমিক ৫ ওভারে অল-আউট হয়ে ১৮২ রান সংগ্রহ করে পাকিস্তান। জবাবে রান তাড়া করতে নেমে পাকিস্তানি বোলারদের তোপের মুখে মাত্র ৯৪ রানেই গুটিয়ে যায় সফরকারীরা।

ফলে ৮৮ রানের বড় ব্যবধানে জয়ে সিরিজ শুরু করেছে ২০০৯ সালের বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা। এই জয়ে পাঁচ ম্যাচ সিরিজে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে গেল বাবরের দল। একই ভেন্যুতে সিরিজের দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টি ম্যাচে শনিবার (১৫ এপ্রিল) রাতে মুখোমুখি হবে দল দুটি।পাকিস্তানিদের মধ্যে বাবরের চেয়ে বেশি টি-টোয়েন্টি খেলা শোয়েব মালিক ও মোহাম্মদ হাফিজ ২০০৬ সাল থেকে ২০২১ সাল পর্যন্ত যথাক্রমে ১২৩ ও ১১৯টি ম্যাচে দেশকে প্রতিনিধিত্ব করেছেন। সব মিলিয়ে বাবর আজমের চেয়ে বেশি টি-টোয়েন্টি খেলেছেন বিশ্বের ১৯ জন ক্রিকেটার। এই তালিকায় ১৪৮ ম্যাচ নিয়ে সবার শীর্ষে রয়েছেন ভারত অধিনায়ক রোহিত শর্মা।

সর্বোচ্চ ম্যাচ খেলার তালিকায় শোয়েব মালিক দুইয়ে, পল স্টার্লিং তিনে (১২৪), মার্টিন গাপটিল চারে (১২২) ও মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ পাঁচ নম্বরে (১২১) রয়েছেন। পাকিস্তানির মধ্যে মালিক-হাফিজদের চেয়ে কম টি-টোয়েন্টি খেললেও বাবর আজমের রান সবচেয়ে বেশি। এ ফরম্যাটে তিনি করেছেন ৩ হাজার ৩৫৫ রান। ২ হাজার ৬৩৫ রান নিয়ে এ তালিকার দুইয়ে আছেন মোহাম্মদ রিজওয়ান। হাফিজ ২ হাজার ৬৩৫ ও শোয়েব ২ হাজার ৪২৩ রান করেছেন।

ট্যাগস

নিউজটি শেয়ার করুন

তৃতীয় পাকিস্তানি হিসেবে ‘সেঞ্চুরি’র মাইলফলক বাবরের

আপডেট সময় ০৫:৩৬:২৮ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৩

ঘরের মাঠে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে পাঁচ ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজে মাঠে নেমেছিল স্বাগতিক পাকিস্তান। সিরিজের প্রথম ম্যাচে কিউইদের গুড়িয়ে দিয়ে ৮৮ রানে জয় তুলে নেয় দ্য গ্রিন ম্যানরা। এই ম্যাচে মাঠে নেমেই মাইলফলক স্পর্শ করেছেন পাক অধিনায়ক বাবর আজম।

শোয়েব মালিক ও মোহাম্মদ হাফিজের পর তৃতীয় পাকিস্তানি হিসেবে ১০০ আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলার রেকর্ড গড়েছেন বর্তমান সময়ের অন্যতম সেরা এই ব্যাটার।শুক্রবার (১৪ এপ্রিল) রাতে লাহোরের গাদ্দাফি স্টেডিয়ামে সিরিজের প্রথম টি-টোয়েন্টিতে আগে ব্যাট করে ১৯ দশমিক ৫ ওভারে অল-আউট হয়ে ১৮২ রান সংগ্রহ করে পাকিস্তান। জবাবে রান তাড়া করতে নেমে পাকিস্তানি বোলারদের তোপের মুখে মাত্র ৯৪ রানেই গুটিয়ে যায় সফরকারীরা।

ফলে ৮৮ রানের বড় ব্যবধানে জয়ে সিরিজ শুরু করেছে ২০০৯ সালের বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা। এই জয়ে পাঁচ ম্যাচ সিরিজে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে গেল বাবরের দল। একই ভেন্যুতে সিরিজের দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টি ম্যাচে শনিবার (১৫ এপ্রিল) রাতে মুখোমুখি হবে দল দুটি।পাকিস্তানিদের মধ্যে বাবরের চেয়ে বেশি টি-টোয়েন্টি খেলা শোয়েব মালিক ও মোহাম্মদ হাফিজ ২০০৬ সাল থেকে ২০২১ সাল পর্যন্ত যথাক্রমে ১২৩ ও ১১৯টি ম্যাচে দেশকে প্রতিনিধিত্ব করেছেন। সব মিলিয়ে বাবর আজমের চেয়ে বেশি টি-টোয়েন্টি খেলেছেন বিশ্বের ১৯ জন ক্রিকেটার। এই তালিকায় ১৪৮ ম্যাচ নিয়ে সবার শীর্ষে রয়েছেন ভারত অধিনায়ক রোহিত শর্মা।

সর্বোচ্চ ম্যাচ খেলার তালিকায় শোয়েব মালিক দুইয়ে, পল স্টার্লিং তিনে (১২৪), মার্টিন গাপটিল চারে (১২২) ও মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ পাঁচ নম্বরে (১২১) রয়েছেন। পাকিস্তানির মধ্যে মালিক-হাফিজদের চেয়ে কম টি-টোয়েন্টি খেললেও বাবর আজমের রান সবচেয়ে বেশি। এ ফরম্যাটে তিনি করেছেন ৩ হাজার ৩৫৫ রান। ২ হাজার ৬৩৫ রান নিয়ে এ তালিকার দুইয়ে আছেন মোহাম্মদ রিজওয়ান। হাফিজ ২ হাজার ৬৩৫ ও শোয়েব ২ হাজার ৪২৩ রান করেছেন।