০৩:৩৬ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪

দুর্নীতি মামলায় অভিযুক্ত স্বামী বনি, যা বললেন কৌশানি

নিজস্ব সংবাদ দাতা
  • আপডেট সময় ০৯:৪২:২৪ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১১ মার্চ ২০২৩
  • / ৭৯ বার পড়া হয়েছে

পশ্চিমবঙ্গে আলোচিত শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় টালিউড অভিনেতা বনি সেনগুপ্ত। এ বিষয় দুদফায় জিজ্ঞাসাবাদ করেছে এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (ইডি)। বৃহস্পতিবার বনি সেনগুপ্তকে দীর্ঘ সময় জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। এ নিয়ে মুখ খুলেছেন বনির স্ত্রী কৌশানি মুখার্জি। কারণ এ ঘটনায় নাম জড়িয়য়েছে তারও। খবর হিন্দুস্তান টাইমসের।

অভিনেত্রীর বিরুদ্ধেও কুন্তলের কাছ থেকে মোটা টাকা নেওয়ার প্রমাণ রয়েছে বলে ইডি সূত্রে খবর প্রকাশ করেছে ওপার বাংলার কয়েকটি গণমাধ্যম। বৃহস্পতিবার এক সাক্ষাৎকারে সব অভিযোগ অস্বীকার করেন কৌশানি। তিনি বলেন, কাজের সূত্রে যা প্রাপ্য সেটিই নিয়েছি। কুন্তলের সঙ্গে আমার কোনো ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক নেই।

কুন্তল একজন ইভেন্ট ম্যানেজার। ওর সৌজন্যে কয়েকটি জায়গায় হাজির হয়েছিলাম। তার যা প্রাপ্য সেটাই আমাকে ও পাঠিয়েছে। এ রকম হাজারটা ইভেন্ট ম্যানেজারের সঙ্গে আমরা কাজ করি। কে কীভাবে টাকা উপার্জন করছেন সেটি তো আমাদের পক্ষে জানা সম্ভব নয়। এর পর তিনি জানান, বনি সেনগুপ্তের পেশাদারি যাবতীয় লেনদেন দেখেন তার মা ও বাবা। এ ব্যাপারে আমার কোনো ভূমিকা নেই।

বনির টাকার হিসাব ও আর ওর মা-বাবা দিতে পারবেন। আমাদের সম্পর্ক ঘরের মধ্যে। আমি সম্পর্ক ঘরের বাইরে কখনো বের করিনি। বনি যে এত দামি গাড়ি কিনেছেন, তাতে তার মনে কোনো প্রশ্ন জাগেনি? কৌশানি বলেন, বনি একজন সফল অভিনেতা। তিনি একটা দামি গাড়ি কিনবেন এতে প্রশ্ন জাগার কী আছে? এটি ওর পেশাদারি ব্যাপার। আমি তার মধ্যে প্রশ্ন তুলতে যাব কেন?

ট্যাগস

নিউজটি শেয়ার করুন

দুর্নীতি মামলায় অভিযুক্ত স্বামী বনি, যা বললেন কৌশানি

আপডেট সময় ০৯:৪২:২৪ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১১ মার্চ ২০২৩

পশ্চিমবঙ্গে আলোচিত শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় টালিউড অভিনেতা বনি সেনগুপ্ত। এ বিষয় দুদফায় জিজ্ঞাসাবাদ করেছে এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (ইডি)। বৃহস্পতিবার বনি সেনগুপ্তকে দীর্ঘ সময় জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। এ নিয়ে মুখ খুলেছেন বনির স্ত্রী কৌশানি মুখার্জি। কারণ এ ঘটনায় নাম জড়িয়য়েছে তারও। খবর হিন্দুস্তান টাইমসের।

অভিনেত্রীর বিরুদ্ধেও কুন্তলের কাছ থেকে মোটা টাকা নেওয়ার প্রমাণ রয়েছে বলে ইডি সূত্রে খবর প্রকাশ করেছে ওপার বাংলার কয়েকটি গণমাধ্যম। বৃহস্পতিবার এক সাক্ষাৎকারে সব অভিযোগ অস্বীকার করেন কৌশানি। তিনি বলেন, কাজের সূত্রে যা প্রাপ্য সেটিই নিয়েছি। কুন্তলের সঙ্গে আমার কোনো ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক নেই।

কুন্তল একজন ইভেন্ট ম্যানেজার। ওর সৌজন্যে কয়েকটি জায়গায় হাজির হয়েছিলাম। তার যা প্রাপ্য সেটাই আমাকে ও পাঠিয়েছে। এ রকম হাজারটা ইভেন্ট ম্যানেজারের সঙ্গে আমরা কাজ করি। কে কীভাবে টাকা উপার্জন করছেন সেটি তো আমাদের পক্ষে জানা সম্ভব নয়। এর পর তিনি জানান, বনি সেনগুপ্তের পেশাদারি যাবতীয় লেনদেন দেখেন তার মা ও বাবা। এ ব্যাপারে আমার কোনো ভূমিকা নেই।

বনির টাকার হিসাব ও আর ওর মা-বাবা দিতে পারবেন। আমাদের সম্পর্ক ঘরের মধ্যে। আমি সম্পর্ক ঘরের বাইরে কখনো বের করিনি। বনি যে এত দামি গাড়ি কিনেছেন, তাতে তার মনে কোনো প্রশ্ন জাগেনি? কৌশানি বলেন, বনি একজন সফল অভিনেতা। তিনি একটা দামি গাড়ি কিনবেন এতে প্রশ্ন জাগার কী আছে? এটি ওর পেশাদারি ব্যাপার। আমি তার মধ্যে প্রশ্ন তুলতে যাব কেন?