০৫:৫৩ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২০ মে ২০২৪

দুর্যোগ মোকাবিলায় প্রতি ওয়ার্ডে স্বেচ্ছাসেবী দেওয়া হচ্ছে

নিজস্ব সংবাদ দাতা
  • আপডেট সময় ০৯:৪৫:১৮ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২ মে ২০২৩
  • / ৪৭ বার পড়া হয়েছে

দুর্যোগ মোকাবিলায় ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের প্রতিটি ওয়ার্ডে স্বেচ্ছাসেবী দল গঠন করা হবে। যেকোনো দুর্যোগ পরবর্তী সময় তাৎক্ষণিক এসব স্বেচ্ছাসেবীরা ঝাঁপিয়ে পড়বে। এই দলে থাকবে ন্যূনতম ২০০ সদস্য।

মঙ্গলবার (২ মে) দুপুরে নগর ভবনে মেয়র মোহাম্মদ হানিফ মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটির তৃতীয় সভা শেষে সাংবাদিকদের কাছে এমন তথ্য দেন মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস।

মেয়র ব্যারিস্টার শেখ তাপস বলেন, এসব স্বেচ্ছাসেবী নেওয়া হবে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের স্কাউটসে অংশগ্রহণকারী শিক্ষার্থী, বিএনসিসি, রেড ক্রিসেন্ট, মার্কেটের নিরাপত্তারক্ষী সদস্যদের থেকে। তাদের বয়স সীমা থাকবে ১৬ বছর থেকে ৩০ বছর পর্যন্ত তবে মার্কেটের নিরাপত্তারক্ষীদের বয়সের ক্ষেত্রে শিথিলতা থাকবে। আগামী ৩০ মে এর মধ্যে প্রতিটি ওয়ার্ডেই এসব স্বেচ্ছাসেবী দল গঠন করা হবে। স্বেচ্ছাসেবীদের প্রশিক্ষণ ও মহড়ার জন্য আগামী বাজেটে প্রয়োজনীয় অর্থ বরাদ্দ রাখা হবে বলে জানান তিনি।

প্রাথমিক পর্যায়ে প্রতি তিন মাসে এবং পরবর্তীতে প্রতি মাসেই স্বেচ্ছাসেবীদের নিয়ে আমরা অঞ্চলভিত্তিক প্রশিক্ষণ ও মহড়ার আয়োজন করা হবে। এসব প্রশিক্ষণ ও মহড়ায় যে ব্যয় হবে তা সিটি করপোরেশন বহন করবে। সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে মেয়র তাপস বলেন, রাজউক ইতোমধ্যে ৪২টি ভবন ঝুঁকিপূর্ণ হিসেবে চিহ্নিত করেছে এবং ১৯৭টি ভবন সংস্কারের সুপারিশ করেছে। এ তালিকা আগামী ৭ দিনের মধ্যে রাজউক আমাদেরকে হস্তান্তর করবে। অপরদিকে যে ৪২টি ভবন চিহ্নিত করা হয়েছে, সেগুলো সরকারি বা বেসরকারি যাই হউক না কেন ভেঙে ফেলার আশু পদক্ষেপ নেবো।

আজকের বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন, সিটি করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মিজানুর রহমান, ঢাকা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির (ডিসিসিআই) সভাপতি ব্যারিস্টার সামির সাত্তার, দক্ষিণ সিটির দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা বিষয়ক স্থায়ী কমিটির সভাপতি ও ৬ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মো. সিরাজুল ইসলাম ভাট্টিসহ অনেকে।

ট্যাগস

নিউজটি শেয়ার করুন

দুর্যোগ মোকাবিলায় প্রতি ওয়ার্ডে স্বেচ্ছাসেবী দেওয়া হচ্ছে

আপডেট সময় ০৯:৪৫:১৮ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২ মে ২০২৩

দুর্যোগ মোকাবিলায় ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের প্রতিটি ওয়ার্ডে স্বেচ্ছাসেবী দল গঠন করা হবে। যেকোনো দুর্যোগ পরবর্তী সময় তাৎক্ষণিক এসব স্বেচ্ছাসেবীরা ঝাঁপিয়ে পড়বে। এই দলে থাকবে ন্যূনতম ২০০ সদস্য।

মঙ্গলবার (২ মে) দুপুরে নগর ভবনে মেয়র মোহাম্মদ হানিফ মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটির তৃতীয় সভা শেষে সাংবাদিকদের কাছে এমন তথ্য দেন মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস।

মেয়র ব্যারিস্টার শেখ তাপস বলেন, এসব স্বেচ্ছাসেবী নেওয়া হবে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের স্কাউটসে অংশগ্রহণকারী শিক্ষার্থী, বিএনসিসি, রেড ক্রিসেন্ট, মার্কেটের নিরাপত্তারক্ষী সদস্যদের থেকে। তাদের বয়স সীমা থাকবে ১৬ বছর থেকে ৩০ বছর পর্যন্ত তবে মার্কেটের নিরাপত্তারক্ষীদের বয়সের ক্ষেত্রে শিথিলতা থাকবে। আগামী ৩০ মে এর মধ্যে প্রতিটি ওয়ার্ডেই এসব স্বেচ্ছাসেবী দল গঠন করা হবে। স্বেচ্ছাসেবীদের প্রশিক্ষণ ও মহড়ার জন্য আগামী বাজেটে প্রয়োজনীয় অর্থ বরাদ্দ রাখা হবে বলে জানান তিনি।

প্রাথমিক পর্যায়ে প্রতি তিন মাসে এবং পরবর্তীতে প্রতি মাসেই স্বেচ্ছাসেবীদের নিয়ে আমরা অঞ্চলভিত্তিক প্রশিক্ষণ ও মহড়ার আয়োজন করা হবে। এসব প্রশিক্ষণ ও মহড়ায় যে ব্যয় হবে তা সিটি করপোরেশন বহন করবে। সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে মেয়র তাপস বলেন, রাজউক ইতোমধ্যে ৪২টি ভবন ঝুঁকিপূর্ণ হিসেবে চিহ্নিত করেছে এবং ১৯৭টি ভবন সংস্কারের সুপারিশ করেছে। এ তালিকা আগামী ৭ দিনের মধ্যে রাজউক আমাদেরকে হস্তান্তর করবে। অপরদিকে যে ৪২টি ভবন চিহ্নিত করা হয়েছে, সেগুলো সরকারি বা বেসরকারি যাই হউক না কেন ভেঙে ফেলার আশু পদক্ষেপ নেবো।

আজকের বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন, সিটি করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মিজানুর রহমান, ঢাকা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির (ডিসিসিআই) সভাপতি ব্যারিস্টার সামির সাত্তার, দক্ষিণ সিটির দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা বিষয়ক স্থায়ী কমিটির সভাপতি ও ৬ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মো. সিরাজুল ইসলাম ভাট্টিসহ অনেকে।