০২:৪১ অপরাহ্ন, শনিবার, ২০ জুলাই ২০২৪

দেহব্যবসার অভিযোগে অভিনেত্রী গ্রেপ্তার

নিজস্ব সংবাদ দাতা
  • আপডেট সময় ০৫:৫১:৪৮ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৩
  • / ৬৪ বার পড়া হয়েছে

দেহব্যবসার অভিযোগে বলিউড অভিনেত্রী-কাস্টিং ডিরেক্টর আরতি মিত্তলকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। ফাঁদ পেতে ২৭ বছর বয়সী আরতিকে গ্রেপ্তার করে মুম্বাই ক্রাইম ব্রাঞ্চ। তা ছাড়াও মুম্বাইয়ের গোরগাঁও থেকে দুজন মডেলকে উদ্ধার করে রিহ্যাবে পাঠানো হয়েছে।

পুলিশ ইন্সপেক্টর মনোজ সুতার গোপন সূত্রে জানতে পারেন আরতি দেহব্যবসার র‌্যাকেট পরিচালনা করেন। তারপর কাস্টমার সাজিয়ে নিজের টিমের দুজনকে পাঠান এবং আরতিকে ফোন করে দুজন মেয়ের কথা বলেন। আরতি দুজন মেয়ের ব্যবস্থা করে দেওয়ার কথা দেন। কিন্তু বিনিময়ে ৬০ হাজার রুপি দাবি করেন।

মনোজ সুতার বলেন, ‘ফোনে কথা বলার পর আরতি আমাকে দুজন নারীর ছবি পাঠান। এই দুই মডেল জুহু বা গোরগাঁওয়ের কোনো হোটেলে যেতে পারবেন বলেও জানান। তারপর আমি দুজন ডামি কাস্টমার পাঠাই। আরতি দুই নারীকে নিয়ে হাজির হন এবং তাদের হাতে কনডম তুলে দেন। আর এই পুরো ঘটনা স্পাই ক্যামেরায় দৃশ্যধারণ করা হয়েছে।’

এরপর বেশ কিছু হোটেলে অভিযান চালায় ক্রাইম ব্রাঞ্চ। পরে দিনদোশি থানায় যোগাযোগ করে এবং আরতি মিত্তলের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে দুই মডেল জানিয়েছেন, আরতি তাদের প্রত্যেককে ১৫ হাজার রুপি করে দেওয়ার কথা ছিল। প্রসঙ্গত, শুধু কাস্টিং ডিরেক্টরই নন, অভিনেত্রী হিসেবেও কাজ করেছেন আরতি। হিন্দি টেলিভিশনের পরিচিত মুখ তিনি।

‘আপনাপন’-এর মতো সিরিয়ালে অভিনয় করেছেন। এ সিরিয়ালের কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করেন রাজশ্রী ঠাকুর। ‘পরশুরাম’ সিরিয়ালেও কাজ করেছেন আরতি। কয়েক দিন আগে আর মাধবনের সঙ্গে একটি সিনেমায় অভিনয়ের কথা জানান অভিযুক্ত আরতি মিত্তল।

ট্যাগস

নিউজটি শেয়ার করুন

দেহব্যবসার অভিযোগে অভিনেত্রী গ্রেপ্তার

আপডেট সময় ০৫:৫১:৪৮ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৩

দেহব্যবসার অভিযোগে বলিউড অভিনেত্রী-কাস্টিং ডিরেক্টর আরতি মিত্তলকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। ফাঁদ পেতে ২৭ বছর বয়সী আরতিকে গ্রেপ্তার করে মুম্বাই ক্রাইম ব্রাঞ্চ। তা ছাড়াও মুম্বাইয়ের গোরগাঁও থেকে দুজন মডেলকে উদ্ধার করে রিহ্যাবে পাঠানো হয়েছে।

পুলিশ ইন্সপেক্টর মনোজ সুতার গোপন সূত্রে জানতে পারেন আরতি দেহব্যবসার র‌্যাকেট পরিচালনা করেন। তারপর কাস্টমার সাজিয়ে নিজের টিমের দুজনকে পাঠান এবং আরতিকে ফোন করে দুজন মেয়ের কথা বলেন। আরতি দুজন মেয়ের ব্যবস্থা করে দেওয়ার কথা দেন। কিন্তু বিনিময়ে ৬০ হাজার রুপি দাবি করেন।

মনোজ সুতার বলেন, ‘ফোনে কথা বলার পর আরতি আমাকে দুজন নারীর ছবি পাঠান। এই দুই মডেল জুহু বা গোরগাঁওয়ের কোনো হোটেলে যেতে পারবেন বলেও জানান। তারপর আমি দুজন ডামি কাস্টমার পাঠাই। আরতি দুই নারীকে নিয়ে হাজির হন এবং তাদের হাতে কনডম তুলে দেন। আর এই পুরো ঘটনা স্পাই ক্যামেরায় দৃশ্যধারণ করা হয়েছে।’

এরপর বেশ কিছু হোটেলে অভিযান চালায় ক্রাইম ব্রাঞ্চ। পরে দিনদোশি থানায় যোগাযোগ করে এবং আরতি মিত্তলের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে দুই মডেল জানিয়েছেন, আরতি তাদের প্রত্যেককে ১৫ হাজার রুপি করে দেওয়ার কথা ছিল। প্রসঙ্গত, শুধু কাস্টিং ডিরেক্টরই নন, অভিনেত্রী হিসেবেও কাজ করেছেন আরতি। হিন্দি টেলিভিশনের পরিচিত মুখ তিনি।

‘আপনাপন’-এর মতো সিরিয়ালে অভিনয় করেছেন। এ সিরিয়ালের কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করেন রাজশ্রী ঠাকুর। ‘পরশুরাম’ সিরিয়ালেও কাজ করেছেন আরতি। কয়েক দিন আগে আর মাধবনের সঙ্গে একটি সিনেমায় অভিনয়ের কথা জানান অভিযুক্ত আরতি মিত্তল।