০৭:১৫ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪

নওগাঁয় মাদকসহ গ্রেপ্তার ৪

নিজস্ব সংবাদ দাতা
  • আপডেট সময় ১১:৪৫:২৪ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ৩ মার্চ ২০২৩
  • / ৮২ বার পড়া হয়েছে

নওগাঁর ধামইরহাটে পৃথক অভিযানে মাদকসহ চার জনকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব।শুক্রবার (৩ মার্চ) সকালে এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানায় র‍্যাব-৫।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন, ধামইরহাট উপজেলার শিবপুর দেউলাপাড়া গ্রামের অঞ্জলী দাস (৩৫), জয়পুরহাট জেলার দোগাছী গ্রামের বাসিন্দা সুপল চন্দ্র বর্মণ (৪০), ধামইরহাট উপজেলার শিবপুর দেউলাপাড়া গ্রামের শ্রী পরিমল চন্দ্র দাস (৪১) ও পরিমলের স্ত্রী দিপ্তী (৩০)।

বিজ্ঞপ্তিতে র‍্যাব জানায়, জয়পুরহাট র‌্যাব ক্যাম্পের একটি অপারেশনাল দল কোম্পানি অধিনায়ক মেজর মোস্তফা জামান এবং স্কোয়াড কমান্ডার সিনিয়র সহকারি পুলিশ সুপার মো. মাসুদ রানার নেতৃত্বে বৃহস্পতিবার রাতে ধামইরহাট উপজেলায় অভিযান পরিচালনা করে। অভিযানে দুই হাজার ১৩০ লিটার চোলাই মদসহ চার জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

তারা দীর্ঘদিন মাদক ব্যবসার সঙ্গে জড়িত ছিল। এমন তথ্যের ভিত্তিতেই তাদের বাড়িতে অভিযান পরিচালনা করা হয়। বিজ্ঞপ্তিতে র‍্যাব আরও জানায়, গ্রেপ্তারকৃতদের বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইন-২০১৮ অনুসারে পৃথক পৃথক মামলা দায়ের করা হয়েছে।

ট্যাগস

নিউজটি শেয়ার করুন

নওগাঁয় মাদকসহ গ্রেপ্তার ৪

আপডেট সময় ১১:৪৫:২৪ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ৩ মার্চ ২০২৩

নওগাঁর ধামইরহাটে পৃথক অভিযানে মাদকসহ চার জনকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব।শুক্রবার (৩ মার্চ) সকালে এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানায় র‍্যাব-৫।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন, ধামইরহাট উপজেলার শিবপুর দেউলাপাড়া গ্রামের অঞ্জলী দাস (৩৫), জয়পুরহাট জেলার দোগাছী গ্রামের বাসিন্দা সুপল চন্দ্র বর্মণ (৪০), ধামইরহাট উপজেলার শিবপুর দেউলাপাড়া গ্রামের শ্রী পরিমল চন্দ্র দাস (৪১) ও পরিমলের স্ত্রী দিপ্তী (৩০)।

বিজ্ঞপ্তিতে র‍্যাব জানায়, জয়পুরহাট র‌্যাব ক্যাম্পের একটি অপারেশনাল দল কোম্পানি অধিনায়ক মেজর মোস্তফা জামান এবং স্কোয়াড কমান্ডার সিনিয়র সহকারি পুলিশ সুপার মো. মাসুদ রানার নেতৃত্বে বৃহস্পতিবার রাতে ধামইরহাট উপজেলায় অভিযান পরিচালনা করে। অভিযানে দুই হাজার ১৩০ লিটার চোলাই মদসহ চার জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

তারা দীর্ঘদিন মাদক ব্যবসার সঙ্গে জড়িত ছিল। এমন তথ্যের ভিত্তিতেই তাদের বাড়িতে অভিযান পরিচালনা করা হয়। বিজ্ঞপ্তিতে র‍্যাব আরও জানায়, গ্রেপ্তারকৃতদের বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইন-২০১৮ অনুসারে পৃথক পৃথক মামলা দায়ের করা হয়েছে।