০৯:৩০ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪

নির্বাচনের খবর সংগ্রহে বাধা দিলে ২-৭ বছরের জেল

নিজস্ব সংবাদ দাতা
  • আপডেট সময় ০৪:০১:১৬ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৮ মার্চ ২০২৩
  • / ৬০ বার পড়া হয়েছে

ভোটের দিনে নির্বাচন কমিশন অনুমোদিত সাংবাদিক ও পর্যবেক্ষকদের বাধা দিলে বা সম্পদ বিনষ্ট করলে দুই থেকে ৭ বছর পর্যন্ত সাজার বিধান রেখে নির্বাচনী আইন গণপ্রতিনিধিত্ব আদেশ (আরপিও) সংশোধনের প্রস্তাব নীতিগত অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা।

মঙ্গলবার (২৮ মার্চ) প্রধানমন্ত্রীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মন্ত্রিসভার বৈঠকে ইসির এই প্রস্তাবের নীতিগত অনুমোদন দেওয়া হয়। পরে সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সচিব (সমন্বয় ও সংস্কার) মো. মাহমুদুল হোসাইন খান সাংবাদিকদের এ ব্যাপারে ব্রিফ করেন।

সংশোধনী প্রস্তাব মন্ত্রিসভায় অনুমোদন পাওয়ায় এবার সংসদের আসন্ন অধিবেশনে এটি বিল আকারে উঠতে পারে। বিল পাস হলে দলগুলো নারী কোটা পূরণে আরও সাত বছর সময় পাচ্ছে। আগামী ৬ এপ্রিল সংসদের ২২তম অধিবেশন বসবে।

এছাড়া মন্ত্রিসভা বৈঠকে ‘ব্যাংক-কোম্পানি (সংশোধন) আইন, ২০২৩’ এর খসড়া চূড়ান্ত অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা। এতে কোনো পরিবার থেকে সর্বোচ্চ তিনজনের বেশি ব্যাংকের পরিচালনা বোর্ডে থাকতে পারবেন না। আগে এই সংখ্যাটি ছিল চারজন।

ট্যাগস

নিউজটি শেয়ার করুন

নির্বাচনের খবর সংগ্রহে বাধা দিলে ২-৭ বছরের জেল

আপডেট সময় ০৪:০১:১৬ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৮ মার্চ ২০২৩

ভোটের দিনে নির্বাচন কমিশন অনুমোদিত সাংবাদিক ও পর্যবেক্ষকদের বাধা দিলে বা সম্পদ বিনষ্ট করলে দুই থেকে ৭ বছর পর্যন্ত সাজার বিধান রেখে নির্বাচনী আইন গণপ্রতিনিধিত্ব আদেশ (আরপিও) সংশোধনের প্রস্তাব নীতিগত অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা।

মঙ্গলবার (২৮ মার্চ) প্রধানমন্ত্রীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মন্ত্রিসভার বৈঠকে ইসির এই প্রস্তাবের নীতিগত অনুমোদন দেওয়া হয়। পরে সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সচিব (সমন্বয় ও সংস্কার) মো. মাহমুদুল হোসাইন খান সাংবাদিকদের এ ব্যাপারে ব্রিফ করেন।

সংশোধনী প্রস্তাব মন্ত্রিসভায় অনুমোদন পাওয়ায় এবার সংসদের আসন্ন অধিবেশনে এটি বিল আকারে উঠতে পারে। বিল পাস হলে দলগুলো নারী কোটা পূরণে আরও সাত বছর সময় পাচ্ছে। আগামী ৬ এপ্রিল সংসদের ২২তম অধিবেশন বসবে।

এছাড়া মন্ত্রিসভা বৈঠকে ‘ব্যাংক-কোম্পানি (সংশোধন) আইন, ২০২৩’ এর খসড়া চূড়ান্ত অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা। এতে কোনো পরিবার থেকে সর্বোচ্চ তিনজনের বেশি ব্যাংকের পরিচালনা বোর্ডে থাকতে পারবেন না। আগে এই সংখ্যাটি ছিল চারজন।