১০:৪৩ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ০৫ মার্চ ২০২৪

‘পদ্মা সেতুতে মোটরসাইকেল চালু প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার’

নিজস্ব সংবাদ দাতা
  • আপডেট সময় ১০:৪৯:৫৫ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৩
  • / ৪৩ বার পড়া হয়েছে

পদ্মা সেতু দিয়ে মোটরসাইকেল চলাচলের অনুমতি ঘরমুখো মানুষদের জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ঈদ উপহার বলে জানিয়েছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। বৃহস্পতিবার (২০ এপ্রিল) পদ্মা সেতুতে যানবাহন চলাচল পরিদর্শনে গিয়ে তিনি সাংবাদিকদের এ কথা বলেন।

সেতুমন্ত্রী বলেন, পদ্মা সেতু জাতির সম্পদ। এই সম্পদ সুশৃঙ্খলভাবে ব্যবহার করা প্রত্যেক নাগরিকের করণীয়। কিন্তু নিয়ম ও শর্ত না মানলে আবারও পদ্মা সেতুতে মোটরসাইকেল বন্ধ ঘোষণা করা হবে। বাইকারদের উদ্দেশে ওবায়দুল কাদের আরও বলেন, প্রধানমন্ত্রীর উপহারের মর্যাদা আপনারা (বাইকার) সবসময় রাখবেন। তাহলে সবসময় পদ্মা সেতু খোলা থাকবে।

তিনি বলেন, সব নিয়মকানুন মেনে মোটরসাইকেল চালাতে হবে। তবে, কেউ নিয়ম ভঙ্গ করলে অভিযোগ অনুসারে শাস্তি নিশ্চিত করা হবে। পদ্মা সেতুতে বাইক চলাচলে যেসব নির্দেশনা মানতে হবে- নির্ধারিত টোল দিয়ে সর্বোচ্চ ৬০ কিলোমিটার গতিতে সেতু পারাপার হতে হবে। মোটরসাইকেলের জন্য নির্ধারিত টোলবুথ ও নির্ধারিত লেন ব্যবহার করতে হবে। কোনো অবস্থাতেই নির্ধারিত লেন পরিবর্তন করা যাবে না।

ওভারটেকও করা যাবে না। চালক ও আরোহীকে হেলমেটসহ প্রয়োজনীয় নিরাপত্তা সামগ্রী ব্যবহার করতে হবে। কোনো অবস্থাতেই সেতুর উপর দাঁড়ানো বা ছবি তোলা যাবে না। চালকসহ সর্বোচ্চ দুইজন মোটরসাইকেলে চড়তে পারবে।

ট্যাগস

নিউজটি শেয়ার করুন

‘পদ্মা সেতুতে মোটরসাইকেল চালু প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার’

আপডেট সময় ১০:৪৯:৫৫ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৩

পদ্মা সেতু দিয়ে মোটরসাইকেল চলাচলের অনুমতি ঘরমুখো মানুষদের জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ঈদ উপহার বলে জানিয়েছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। বৃহস্পতিবার (২০ এপ্রিল) পদ্মা সেতুতে যানবাহন চলাচল পরিদর্শনে গিয়ে তিনি সাংবাদিকদের এ কথা বলেন।

সেতুমন্ত্রী বলেন, পদ্মা সেতু জাতির সম্পদ। এই সম্পদ সুশৃঙ্খলভাবে ব্যবহার করা প্রত্যেক নাগরিকের করণীয়। কিন্তু নিয়ম ও শর্ত না মানলে আবারও পদ্মা সেতুতে মোটরসাইকেল বন্ধ ঘোষণা করা হবে। বাইকারদের উদ্দেশে ওবায়দুল কাদের আরও বলেন, প্রধানমন্ত্রীর উপহারের মর্যাদা আপনারা (বাইকার) সবসময় রাখবেন। তাহলে সবসময় পদ্মা সেতু খোলা থাকবে।

তিনি বলেন, সব নিয়মকানুন মেনে মোটরসাইকেল চালাতে হবে। তবে, কেউ নিয়ম ভঙ্গ করলে অভিযোগ অনুসারে শাস্তি নিশ্চিত করা হবে। পদ্মা সেতুতে বাইক চলাচলে যেসব নির্দেশনা মানতে হবে- নির্ধারিত টোল দিয়ে সর্বোচ্চ ৬০ কিলোমিটার গতিতে সেতু পারাপার হতে হবে। মোটরসাইকেলের জন্য নির্ধারিত টোলবুথ ও নির্ধারিত লেন ব্যবহার করতে হবে। কোনো অবস্থাতেই নির্ধারিত লেন পরিবর্তন করা যাবে না।

ওভারটেকও করা যাবে না। চালক ও আরোহীকে হেলমেটসহ প্রয়োজনীয় নিরাপত্তা সামগ্রী ব্যবহার করতে হবে। কোনো অবস্থাতেই সেতুর উপর দাঁড়ানো বা ছবি তোলা যাবে না। চালকসহ সর্বোচ্চ দুইজন মোটরসাইকেলে চড়তে পারবে।