০৫:১৮ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

‘প্রথম আলোর ভুল উন্নত দেশে হলে লাইসেন্স বাতিল হতো’

নিজস্ব সংবাদ দাতা
  • আপডেট সময় ০৬:৪৭:৩৯ অপরাহ্ন, রবিবার, ২ এপ্রিল ২০২৩
  • / ৬৪ বার পড়া হয়েছে

স্বাধীনতা দিবসে দৈনিক প্রথম আলোয় প্রকাশিত বিতর্কিত প্রতিবেদনের বিষয়ে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, কোনো উন্নত দেশে ‘চাইল্ড এক্সপ্লয়টেশন’ বা শিশু নির্যাতন করে সংবাদ প্রচার করা হলে সেই সংবাদমাধ্যমের লাইসেন্স বাতিল করা হতো। সরকার এখনো তা করেনি। শেখ হাসিনা অনেক ধৈর্য ধরে অপেক্ষা করছেন।

রোববার (২ এপ্রিল) জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ১০৩তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসি মিলনায়তনে ছাত্রলীগ আয়োজিত আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন। প্রথম আলোর ওই প্রতিবেদন প্রসঙ্গে ওবায়দুল কাদের আরও বলেন, কেউ কেউ বলেন, ভুল তো অপরাধ নয়। ঠিক আছে, ভুল অপরাধ নয়। কিন্তু অপরাধকে নিছক ভুল বলে কি এড়িয়ে যাওয়া যায়।

এটা জঘন্যতম অপরাধ। এটা ‘চাইল্ড এক্সপ্লয়টেশন’। এই ভুলের জন্য কি কেউ ক্ষমা চেয়েছে। অথচ ঔদ্ধত্যপূর্ণভাবে ‘তারাই ঠিক’ সেই অহংকারে বুদ হয়ে নিজেদের বক্তব্যকে সমর্থন করে যাচ্ছে। রিপোর্টার্স উইদাউট বর্ডার্সের (আরএসএফ) বিবৃতি প্রসঙ্গে তিনি বলেন, তারা বিবৃতি দিয়ে বলেছে, সাংবাদিককে ভয় দেখাতে সরকার এই কাজ করেছে, একটি পত্রিকার রিপোর্টারকে গ্রেপ্তার করেছে, তার বিরুদ্ধে মামলা করেছে। মামলা সরকার করেনি, মামলা বেসরকারিভাবে হয়েছে। কিন্তু অপরাধের কি কোনো শাস্তি নেই?

তিনি আরও বলেন, মহান স্বাধীনতা দিবসে জাতীয় স্মৃতিসৌধের পাশে একটা বাচ্চাকে ব্যবহার করে দিনমজুরের নামে উদ্ধৃতি দিয়ে যারা জঘন্য অপরাধ করেছে, সেই অপরাধের জন্য তাদের শাস্তি পাওয়া উচিত। আমরা অনেক কিছু সহ্য করছি। এ সময় বিএনপির আন্দোলন নিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, মির্জা ফখরুল সাহেব আবার গণঅভ্যুত্থানের হুমকি দিলেন। গতকালের (শনিবার) তাদের অবস্থান কর্মসূচি দেখলাম।

অবস্থান কর্মসূচিতে পাঁচ থেকে সাতশো লোকের উপস্থিতি। আমাদের জেলা পর্যায়েও এক হাজারের কম হয় না। কর্মসূচির নামে রোজার দিনে রাস্তা বন্ধ করে মানুষকে কষ্ট দেওয়া হচ্ছে। এসব কর্মসূচি দিয়ে গণঅভ্যুত্থান হয় না। দেখতে দেখতে চৌদ্দ বছর চলে গেল, মানুষ বাঁচে কয় বছর? আরও অপেক্ষা করুন, অতীত ভুলে যান৷ জনগণ ছাড়া গণঅভ্যুত্থান হবে না।

ঢাবি ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক তানভীর হাসান সৈকতের সঞ্চালনায় আলোচনা সভায় সভাপতির বক্তব্য রাখেন ঢাবি ছাত্রলীগের সভাপতি মাজহারুল কবির শয়ন। এসময় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি সাদ্দাম হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক শেখ ওয়ালী আসিফ ইনান।

ট্যাগস

নিউজটি শেয়ার করুন

‘প্রথম আলোর ভুল উন্নত দেশে হলে লাইসেন্স বাতিল হতো’

আপডেট সময় ০৬:৪৭:৩৯ অপরাহ্ন, রবিবার, ২ এপ্রিল ২০২৩

স্বাধীনতা দিবসে দৈনিক প্রথম আলোয় প্রকাশিত বিতর্কিত প্রতিবেদনের বিষয়ে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, কোনো উন্নত দেশে ‘চাইল্ড এক্সপ্লয়টেশন’ বা শিশু নির্যাতন করে সংবাদ প্রচার করা হলে সেই সংবাদমাধ্যমের লাইসেন্স বাতিল করা হতো। সরকার এখনো তা করেনি। শেখ হাসিনা অনেক ধৈর্য ধরে অপেক্ষা করছেন।

রোববার (২ এপ্রিল) জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ১০৩তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসি মিলনায়তনে ছাত্রলীগ আয়োজিত আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন। প্রথম আলোর ওই প্রতিবেদন প্রসঙ্গে ওবায়দুল কাদের আরও বলেন, কেউ কেউ বলেন, ভুল তো অপরাধ নয়। ঠিক আছে, ভুল অপরাধ নয়। কিন্তু অপরাধকে নিছক ভুল বলে কি এড়িয়ে যাওয়া যায়।

এটা জঘন্যতম অপরাধ। এটা ‘চাইল্ড এক্সপ্লয়টেশন’। এই ভুলের জন্য কি কেউ ক্ষমা চেয়েছে। অথচ ঔদ্ধত্যপূর্ণভাবে ‘তারাই ঠিক’ সেই অহংকারে বুদ হয়ে নিজেদের বক্তব্যকে সমর্থন করে যাচ্ছে। রিপোর্টার্স উইদাউট বর্ডার্সের (আরএসএফ) বিবৃতি প্রসঙ্গে তিনি বলেন, তারা বিবৃতি দিয়ে বলেছে, সাংবাদিককে ভয় দেখাতে সরকার এই কাজ করেছে, একটি পত্রিকার রিপোর্টারকে গ্রেপ্তার করেছে, তার বিরুদ্ধে মামলা করেছে। মামলা সরকার করেনি, মামলা বেসরকারিভাবে হয়েছে। কিন্তু অপরাধের কি কোনো শাস্তি নেই?

তিনি আরও বলেন, মহান স্বাধীনতা দিবসে জাতীয় স্মৃতিসৌধের পাশে একটা বাচ্চাকে ব্যবহার করে দিনমজুরের নামে উদ্ধৃতি দিয়ে যারা জঘন্য অপরাধ করেছে, সেই অপরাধের জন্য তাদের শাস্তি পাওয়া উচিত। আমরা অনেক কিছু সহ্য করছি। এ সময় বিএনপির আন্দোলন নিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, মির্জা ফখরুল সাহেব আবার গণঅভ্যুত্থানের হুমকি দিলেন। গতকালের (শনিবার) তাদের অবস্থান কর্মসূচি দেখলাম।

অবস্থান কর্মসূচিতে পাঁচ থেকে সাতশো লোকের উপস্থিতি। আমাদের জেলা পর্যায়েও এক হাজারের কম হয় না। কর্মসূচির নামে রোজার দিনে রাস্তা বন্ধ করে মানুষকে কষ্ট দেওয়া হচ্ছে। এসব কর্মসূচি দিয়ে গণঅভ্যুত্থান হয় না। দেখতে দেখতে চৌদ্দ বছর চলে গেল, মানুষ বাঁচে কয় বছর? আরও অপেক্ষা করুন, অতীত ভুলে যান৷ জনগণ ছাড়া গণঅভ্যুত্থান হবে না।

ঢাবি ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক তানভীর হাসান সৈকতের সঞ্চালনায় আলোচনা সভায় সভাপতির বক্তব্য রাখেন ঢাবি ছাত্রলীগের সভাপতি মাজহারুল কবির শয়ন। এসময় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি সাদ্দাম হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক শেখ ওয়ালী আসিফ ইনান।