০৮:০৯ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪

প্রয়োজনে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন পরিবর্তন : আইনমন্ত্রী

নিজস্ব সংবাদ দাতা
  • আপডেট সময় ০৫:৫৩:৪২ অপরাহ্ন, রবিবার, ২ এপ্রিল ২০২৩
  • / ৭৫ বার পড়া হয়েছে

আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেছেন, ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মাধ্যমে হয়রানির অভিযোগ উঠছে। প্রয়োজনে এ আইন পরিবর্তনের উদ্যোগ নেওয়া হবে। তবে এ আইনের প্রয়োজনীয়তা রয়েছে।

রোববার (২ এপ্রিল) ঢাকা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি (ডিসিসিআই) আয়োজিত সেমিনার শেষে এসব কথা বলেন তিনি। আনিসুল হক বলেন, মামলা কোনো সাংবাদিক বা গণমাধ্যমের বিরুদ্ধে হয়নি। এ মামলা হয়েছে অন্যায় ও অপরাধের বিরুদ্ধে। প্রথম আলোর সম্পাদকের আগাম জামিন শুনানিতে অপরাগতা প্রকাশ করে হাইকোর্টের একটি বেঞ্চ।

এ বিষয়ে মন্ত্রী বলেন, বিচার বিভাগ নিয়ে আমার কিছু বলা ঠিক হবে না, এ নিয়ে আমি কিছু বলতে চাই না। তিনি বলেন, বিশ্বের সব দেশে ডিজিটাল সিকিউরিটি অ্যাক্ট আছে। কিন্তু সেখানে হয়তো সরাসরি ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বলা নেই। ডিজিটাল অপরাধ কমাতে এ আইন করেছে সব দেশ। আমাদেরও থাকা প্রয়োজন।

এসময় আইনমন্ত্রী বলেন, ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের কিছু অপব্যবহার হয়েছিল, সেটা আমরা স্বীকার করে এ বিষয়ে কী পরিবর্তন আনা যায় সেটা নিয়ে জাতিসংঘের মানবাধিকার কমিশনের সঙ্গে আলোচনা করেছি। আলোচনা এখনও চলমান আছে।

ট্যাগস

নিউজটি শেয়ার করুন

প্রয়োজনে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন পরিবর্তন : আইনমন্ত্রী

আপডেট সময় ০৫:৫৩:৪২ অপরাহ্ন, রবিবার, ২ এপ্রিল ২০২৩

আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেছেন, ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মাধ্যমে হয়রানির অভিযোগ উঠছে। প্রয়োজনে এ আইন পরিবর্তনের উদ্যোগ নেওয়া হবে। তবে এ আইনের প্রয়োজনীয়তা রয়েছে।

রোববার (২ এপ্রিল) ঢাকা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি (ডিসিসিআই) আয়োজিত সেমিনার শেষে এসব কথা বলেন তিনি। আনিসুল হক বলেন, মামলা কোনো সাংবাদিক বা গণমাধ্যমের বিরুদ্ধে হয়নি। এ মামলা হয়েছে অন্যায় ও অপরাধের বিরুদ্ধে। প্রথম আলোর সম্পাদকের আগাম জামিন শুনানিতে অপরাগতা প্রকাশ করে হাইকোর্টের একটি বেঞ্চ।

এ বিষয়ে মন্ত্রী বলেন, বিচার বিভাগ নিয়ে আমার কিছু বলা ঠিক হবে না, এ নিয়ে আমি কিছু বলতে চাই না। তিনি বলেন, বিশ্বের সব দেশে ডিজিটাল সিকিউরিটি অ্যাক্ট আছে। কিন্তু সেখানে হয়তো সরাসরি ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বলা নেই। ডিজিটাল অপরাধ কমাতে এ আইন করেছে সব দেশ। আমাদেরও থাকা প্রয়োজন।

এসময় আইনমন্ত্রী বলেন, ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের কিছু অপব্যবহার হয়েছিল, সেটা আমরা স্বীকার করে এ বিষয়ে কী পরিবর্তন আনা যায় সেটা নিয়ে জাতিসংঘের মানবাধিকার কমিশনের সঙ্গে আলোচনা করেছি। আলোচনা এখনও চলমান আছে।