০৭:৪৫ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪

প্রয়োজনে সাংবাদিক নীতিমালা সংশোধন করা হবে : সিইসি

নিজস্ব সংবাদ দাতা
  • আপডেট সময় ০৫:২৬:৪৩ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ এপ্রিল ২০২৩
  • / ১১৬ বার পড়া হয়েছে

প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কাজী হাবিবুল আউয়াল বলেছেন, সংবাদ সংগ্রহে ইসির প্রণীত নীতিমালা নিয়ে উদ্বিগ্ন হওয়ার কোনো কারণ নেই, প্রয়োজনে নীতিমালা সংশোধন করা হবে।

বৃহস্পতিবার (১৩ এপ্রিল) নির্বাচন ভবনে তিনি এ কথা বলেন। বুধবার সাংবাদিকদের সংবাদ সংগ্রহে ইসির প্রণীত নীতিমালা জারির পর থেকে নানা মহলের সমালোচনার মুখে পড়ে কমিশন। কাজী হাবিবুল আউয়াল বলেন, আমরা সংবাদ সংগ্রহে সাংবাদিকদের জন্য একটা নীতিমালা জারি করেছি।

এটা নিয়ে কিছু বিভ্রান্তি সৃষ্টি হয়েছে। সেটা আমরা মিডিয়া থেকে জানতে পেরেছি। বিষয়টা নিয়ে আমরা নিজেদের মধ্যে আলোচনা করেছি। আমরা বলতে চাই, কোনো ডকুমেন্ট চিরস্থায়ী নয়। যদি প্রয়োজন হয়, সময়ের সঙ্গে পরিবর্তন করা যায়। আমরা যে নীতিমালা জারি করেছি, সেটা নিয়ে উদ্বিগ্ন হওয়ার কোনো কারণ নেই। সিইসি আরও বলেন, নির্বাচন কমিশন সুশৃঙ্খল, সুষ্ঠু পরিবেশে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হোক সেই জিনিসটা চায়।

এ জন্য আমরা সব বিষয়ে একটি শৃঙ্খলা বিধানের চেষ্টা করব। অবাধ, নিরপেক্ষ নির্বাচন যাতে বাধাগ্রস্ত না হয়, সেই জিনিসটা মাথায় রেখেই নীতিমালাটা করেছি। যেহেতু আপনারা নির্বাচন পর্যবেক্ষণের কাজ করবেন, আপনাদের মতামতগুলো নিয়ে আমরা বসে আরও আলোচনা করে সিদ্ধান্ত নেব।

ট্যাগস

নিউজটি শেয়ার করুন

প্রয়োজনে সাংবাদিক নীতিমালা সংশোধন করা হবে : সিইসি

আপডেট সময় ০৫:২৬:৪৩ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ এপ্রিল ২০২৩

প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কাজী হাবিবুল আউয়াল বলেছেন, সংবাদ সংগ্রহে ইসির প্রণীত নীতিমালা নিয়ে উদ্বিগ্ন হওয়ার কোনো কারণ নেই, প্রয়োজনে নীতিমালা সংশোধন করা হবে।

বৃহস্পতিবার (১৩ এপ্রিল) নির্বাচন ভবনে তিনি এ কথা বলেন। বুধবার সাংবাদিকদের সংবাদ সংগ্রহে ইসির প্রণীত নীতিমালা জারির পর থেকে নানা মহলের সমালোচনার মুখে পড়ে কমিশন। কাজী হাবিবুল আউয়াল বলেন, আমরা সংবাদ সংগ্রহে সাংবাদিকদের জন্য একটা নীতিমালা জারি করেছি।

এটা নিয়ে কিছু বিভ্রান্তি সৃষ্টি হয়েছে। সেটা আমরা মিডিয়া থেকে জানতে পেরেছি। বিষয়টা নিয়ে আমরা নিজেদের মধ্যে আলোচনা করেছি। আমরা বলতে চাই, কোনো ডকুমেন্ট চিরস্থায়ী নয়। যদি প্রয়োজন হয়, সময়ের সঙ্গে পরিবর্তন করা যায়। আমরা যে নীতিমালা জারি করেছি, সেটা নিয়ে উদ্বিগ্ন হওয়ার কোনো কারণ নেই। সিইসি আরও বলেন, নির্বাচন কমিশন সুশৃঙ্খল, সুষ্ঠু পরিবেশে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হোক সেই জিনিসটা চায়।

এ জন্য আমরা সব বিষয়ে একটি শৃঙ্খলা বিধানের চেষ্টা করব। অবাধ, নিরপেক্ষ নির্বাচন যাতে বাধাগ্রস্ত না হয়, সেই জিনিসটা মাথায় রেখেই নীতিমালাটা করেছি। যেহেতু আপনারা নির্বাচন পর্যবেক্ষণের কাজ করবেন, আপনাদের মতামতগুলো নিয়ে আমরা বসে আরও আলোচনা করে সিদ্ধান্ত নেব।