০৬:২৬ অপরাহ্ন, রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪

ফায়ার সার্ভিস অফিসে হামলাকারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

নিজস্ব সংবাদ দাতা
  • আপডেট সময় ০৬:০৪:৪২ অপরাহ্ন, বুধবার, ৫ এপ্রিল ২০২৩
  • / ৫৫ বার পড়া হয়েছে

ফায়ার সার্ভিস অফিসে হামলাকারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বুধবার (৫ এপ্রিল) পদ্মা সেতুর সরকারি ঋণ পরিশোধের প্রথম চেক হস্তান্তর অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, বঙ্গবাজারের অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা অন্তত দুঃখজনক। ক্ষতিগ্রস্তদের সর্বোচ্চ সহযোগিতা করার চেষ্টা করা হবে। তিনি বলেন, বঙ্গবাজারে আগুন লাগার সময় ফায়ার সার্ভিসের সদর দপ্তরে যারা হামলা চালিয়েছে তাদের চিহ্নিত করতে বলেছি, তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এ ছাড়া ভবিষ্যতে কেউ যদি ফায়ার সার্ভিসের কোনো মানুষের ওপর বা কোনো গাড়ির ওপর এই ধরনের আক্রমণ করে বা জনস্বার্থে ব্যবহার করা জিনিসের ওপর আঘাত হানে তাদের কিন্তু ছাড় দেওয়া হবে না বলেও হুঁশিয়ারি দেন সরকারপ্রধান। শেখ হাসিনা বলেন, বঙ্গবাজার মার্কেটে ১৯৯৫ সালের পর ২০১৮ সালেও আগুন লাগে। তারপর আমরা এখানে সুপরিকল্পিত মার্কেট করার প্রকল্প গ্রহণ করি। তখন বেশ কিছু লোক বাধা দেয়। তারা বাধা না দিলে আজ এই ধরনের ভয়াবহ দুর্ঘটনা ঘটতো না।

তিনি বলেন, অনেক উন্নত দেশ থেকে বাংলাদেশের আর্থিক অবস্থা ভালো। জনগণের সমর্থনই সরকারের মূল শক্তি। তিনি বলেন, দেশি ও বিদেশি সকল বাধা-বিপত্তি পেরিয়ে পদ্মা সেতুর নির্মাণ করে বিশ্বকে সক্ষমতা দেখিয়েছে বাংলাদেশ। অনুষ্ঠানে চুক্তি অনুযায়ী পদ্মা সেতু নির্মাণের প্রথম ও দ্বিতীয় কিস্তি হিসেবে ঋণের ৩১৬ কোটি ৯০ লাখ ৯৭ হাজার ৪৯ কোটি টাকার চেক অর্থ বিভাগের কাছে তুলে দেয় বাংলাদেশ সেতু কর্তৃপক্ষ।

ট্যাগস

নিউজটি শেয়ার করুন

ফায়ার সার্ভিস অফিসে হামলাকারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

আপডেট সময় ০৬:০৪:৪২ অপরাহ্ন, বুধবার, ৫ এপ্রিল ২০২৩

ফায়ার সার্ভিস অফিসে হামলাকারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বুধবার (৫ এপ্রিল) পদ্মা সেতুর সরকারি ঋণ পরিশোধের প্রথম চেক হস্তান্তর অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, বঙ্গবাজারের অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা অন্তত দুঃখজনক। ক্ষতিগ্রস্তদের সর্বোচ্চ সহযোগিতা করার চেষ্টা করা হবে। তিনি বলেন, বঙ্গবাজারে আগুন লাগার সময় ফায়ার সার্ভিসের সদর দপ্তরে যারা হামলা চালিয়েছে তাদের চিহ্নিত করতে বলেছি, তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এ ছাড়া ভবিষ্যতে কেউ যদি ফায়ার সার্ভিসের কোনো মানুষের ওপর বা কোনো গাড়ির ওপর এই ধরনের আক্রমণ করে বা জনস্বার্থে ব্যবহার করা জিনিসের ওপর আঘাত হানে তাদের কিন্তু ছাড় দেওয়া হবে না বলেও হুঁশিয়ারি দেন সরকারপ্রধান। শেখ হাসিনা বলেন, বঙ্গবাজার মার্কেটে ১৯৯৫ সালের পর ২০১৮ সালেও আগুন লাগে। তারপর আমরা এখানে সুপরিকল্পিত মার্কেট করার প্রকল্প গ্রহণ করি। তখন বেশ কিছু লোক বাধা দেয়। তারা বাধা না দিলে আজ এই ধরনের ভয়াবহ দুর্ঘটনা ঘটতো না।

তিনি বলেন, অনেক উন্নত দেশ থেকে বাংলাদেশের আর্থিক অবস্থা ভালো। জনগণের সমর্থনই সরকারের মূল শক্তি। তিনি বলেন, দেশি ও বিদেশি সকল বাধা-বিপত্তি পেরিয়ে পদ্মা সেতুর নির্মাণ করে বিশ্বকে সক্ষমতা দেখিয়েছে বাংলাদেশ। অনুষ্ঠানে চুক্তি অনুযায়ী পদ্মা সেতু নির্মাণের প্রথম ও দ্বিতীয় কিস্তি হিসেবে ঋণের ৩১৬ কোটি ৯০ লাখ ৯৭ হাজার ৪৯ কোটি টাকার চেক অর্থ বিভাগের কাছে তুলে দেয় বাংলাদেশ সেতু কর্তৃপক্ষ।