০৬:৩৪ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪

ফের বাড়ছে ব্রয়লার মুরগির দাম

নিজস্ব সংবাদ দাতা
  • আপডেট সময় ১১:৪৮:১৮ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ৩১ মার্চ ২০২৩
  • / ৭৭ বার পড়া হয়েছে

কিছুটা কমার পর বাজারে ফের বাড়তে শুরু করেছে ব্রয়লার ও সোনালী মুরগির দাম। মাত্র দুই দিনের ব্যবধানে ব্রয়লার মুরগির দাম কেজিপ্রতি ২০ থেকে ৩০ টাকা বেড়ে বিক্রি হচ্ছে ২২০ টাকায়। আর সোনালি মুরগির কেজি ১০ থেকে ২০ টাকা বেড়ে বিক্রি হচ্ছে ৩৫০ থেকে ৩৬০ টাকায়। খুচরা ব্যবসায়ীরা বলছেন, পাইকারিতে আবারও দাম বেড়ে যাওয়ায় তারাও দাম বাড়াতে বাধ্য হচ্ছেন।

শুক্রবার (৩১ মার্চ) রাজধানীর কারওয়ান বাজারে ঘুরে এই চিত্র দেখা গেছে। কারওয়ান বাজারের মুরগি ব্যবসায়ী আমজাদ হোসেন বলেন, দুই দিন ধরে মুরগির দাম আবারও বাড়তে শুরু করেছে। পাইকারিতে দাম বাড়ায় খুচরা বাজারেও কেজি প্রতি ব্রয়লার মুরগি ২০ থেকে ৩০ টাকা এবং সোনালি মুরগি ১০ থেকে ২০ টাকা বেশি দামে বিক্রি হচ্ছে। এ বিষয়ে বাংলাদেশ দোকান মালিক সমিতির সভাপতি হেলাল উদ্দিন বলেন, মুরগির বাজার কিছুটা ওঠানামা করবেই। তবে ব্রয়লার মুরগির কেজি ২০০ থেকে ২২০ টাকার মধ্যে থাকাটা ভালো।

দাম যেন আর না বাড়ে, সেটি আমরা পর্যবেক্ষণ করছি। এর আগে, রমজান মাস শুরু হওয়ার দুই দিন আগে ব্রয়লার মুরগির দাম রেকর্ড পরিমাণ বেড়ে কেজিপ্রতি বিক্রি হয় ২৭০ টাকায়। আর সোনালি মুরগি বিক্রি হয় ৩৮০ টাকা কেজি। গত ২৩ মার্চ এক বৈঠকে এফবিসিসিআই সরকারকে মুরগি আমদানি উন্মুক্ত করে দেওয়ার পরামর্শ দিলে খামারিরা দাম কমানো শুরু করে। এতে সপ্তাহের ব্যবধানে ব্রয়লার মুরগির দাম কেজিতে ৭০ থেকে ৮০ টাকা কমে ১৯০ থেকে ২০০ টাকায় দাঁড়ায়।

একই সঙ্গে সোনালি মুরগির দাম কেজিতে ৩০ থেকে ৪০ টাকা কমে ৩৪০ টাকায় নেমে আসে। এদিকে, সপ্তাহের ব্যবধানে ডজনে ১০ টাকা বেড়ে ডিম বিক্রি হচ্ছে ১৩৫ থেকে ১৪০ টাকায়। পাশাপাশি বেড়েছে মাছের দামও। কেজিতে ২০ থেকে ৫০ টাকা পর্যন্ত দাম বেড়ে রুই মাছ বিক্রি হচ্ছে সাড়ে চার শ টাকায়। এ ছাড়া কাতল মাছ বিক্রি হচ্ছে সাড়ে তিন শ টাকা কেজি।

ট্যাগস

নিউজটি শেয়ার করুন

ফের বাড়ছে ব্রয়লার মুরগির দাম

আপডেট সময় ১১:৪৮:১৮ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ৩১ মার্চ ২০২৩

কিছুটা কমার পর বাজারে ফের বাড়তে শুরু করেছে ব্রয়লার ও সোনালী মুরগির দাম। মাত্র দুই দিনের ব্যবধানে ব্রয়লার মুরগির দাম কেজিপ্রতি ২০ থেকে ৩০ টাকা বেড়ে বিক্রি হচ্ছে ২২০ টাকায়। আর সোনালি মুরগির কেজি ১০ থেকে ২০ টাকা বেড়ে বিক্রি হচ্ছে ৩৫০ থেকে ৩৬০ টাকায়। খুচরা ব্যবসায়ীরা বলছেন, পাইকারিতে আবারও দাম বেড়ে যাওয়ায় তারাও দাম বাড়াতে বাধ্য হচ্ছেন।

শুক্রবার (৩১ মার্চ) রাজধানীর কারওয়ান বাজারে ঘুরে এই চিত্র দেখা গেছে। কারওয়ান বাজারের মুরগি ব্যবসায়ী আমজাদ হোসেন বলেন, দুই দিন ধরে মুরগির দাম আবারও বাড়তে শুরু করেছে। পাইকারিতে দাম বাড়ায় খুচরা বাজারেও কেজি প্রতি ব্রয়লার মুরগি ২০ থেকে ৩০ টাকা এবং সোনালি মুরগি ১০ থেকে ২০ টাকা বেশি দামে বিক্রি হচ্ছে। এ বিষয়ে বাংলাদেশ দোকান মালিক সমিতির সভাপতি হেলাল উদ্দিন বলেন, মুরগির বাজার কিছুটা ওঠানামা করবেই। তবে ব্রয়লার মুরগির কেজি ২০০ থেকে ২২০ টাকার মধ্যে থাকাটা ভালো।

দাম যেন আর না বাড়ে, সেটি আমরা পর্যবেক্ষণ করছি। এর আগে, রমজান মাস শুরু হওয়ার দুই দিন আগে ব্রয়লার মুরগির দাম রেকর্ড পরিমাণ বেড়ে কেজিপ্রতি বিক্রি হয় ২৭০ টাকায়। আর সোনালি মুরগি বিক্রি হয় ৩৮০ টাকা কেজি। গত ২৩ মার্চ এক বৈঠকে এফবিসিসিআই সরকারকে মুরগি আমদানি উন্মুক্ত করে দেওয়ার পরামর্শ দিলে খামারিরা দাম কমানো শুরু করে। এতে সপ্তাহের ব্যবধানে ব্রয়লার মুরগির দাম কেজিতে ৭০ থেকে ৮০ টাকা কমে ১৯০ থেকে ২০০ টাকায় দাঁড়ায়।

একই সঙ্গে সোনালি মুরগির দাম কেজিতে ৩০ থেকে ৪০ টাকা কমে ৩৪০ টাকায় নেমে আসে। এদিকে, সপ্তাহের ব্যবধানে ডজনে ১০ টাকা বেড়ে ডিম বিক্রি হচ্ছে ১৩৫ থেকে ১৪০ টাকায়। পাশাপাশি বেড়েছে মাছের দামও। কেজিতে ২০ থেকে ৫০ টাকা পর্যন্ত দাম বেড়ে রুই মাছ বিক্রি হচ্ছে সাড়ে চার শ টাকায়। এ ছাড়া কাতল মাছ বিক্রি হচ্ছে সাড়ে তিন শ টাকা কেজি।