০৭:৫১ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪

বাংলাদেশের অর্থনৈতিক অঞ্চলে সৌদির জন্য জমির প্রস্তাব প্রধানমন্ত্রীর

নিজস্ব সংবাদ দাতা
  • আপডেট সময় ১০:০৭:৩৬ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১১ মার্চ ২০২৩
  • / ৬৫ বার পড়া হয়েছে

বাংলাদেশের বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চলে (এসইজেড) সৌদি আরবের জন্য জমির প্রস্তাব দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সৌদির বাণিজ্যমন্ত্রী ড. মাজেদ বিন আবদুল্লাহ আল কাসাবির নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধি দল শুক্রবার (১০ মার্চ) সন্ধ্যায় গণভবনে গেলে শেখ হাসিনা এই অনুরোধ জানান।

প্রধানমন্ত্রী সৌদি আরবকে বাংলাদেশে তেল শোধনাগার স্থাপনের প্রস্তাব দেন যেখানে অপরিশোধিত তেলসহ সব ধরনের তেল পরিশোধন করা যায়। বৈঠকে উভয়ে পারস্পরিক স্বার্থে উভয় দেশের ব্যবসা বৃদ্ধির বিষয়ে আলোচনা করেন। সৌদির বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, তার দেশের শীর্ষ বিনিয়োগকারীরা বাংলাদেশে বিশেষ করে নবায়নযোগ্য জ্বালানি খাতে বিনিয়োগ করতে আগ্রহী। এ প্রসঙ্গে তিনি বাংলাদেশে আমলাতান্ত্রিক বিলম্ব সমাধানের মাধ্যমে বিনিয়োগ পদ্ধতি সহজিকরণের আহ্বান জানান।

জবাবে প্রধানমন্ত্রী বলেন, তিনি ইতোমধ্যে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের মাধ্যমে বিনিয়োগ পদ্ধতি সহজ ও দ্রুত করার জন্য বলেছেন। তিনি বলেন, তার সরকার সৌদি আরবে যাওয়ার আগে বাংলাদেশি শ্রমিকদের আরবি ভাষা ভালোভাবে জানার সুবিধার্থে একটি আরবি ভাষা ইনস্টিটিউট তৈরি করতে চায়, যাতে তারা আরবি ভাষার লোকদের সঙ্গে সহজে যোগাযোগ স্থাপন করতে পারে। সৌদি মন্ত্রী বলেন, তাদের ক্রাউন প্রিন্স বাংলাদেশ সফরে আগ্রহী।

তখন প্রধানমন্ত্রী বলেন, তার দেশ সৌদি ক্রাউন প্রিন্সকে গ্রহণ করার জন্য অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছে।এ সময় শেখ হাসিনার গতিশীল নেতৃত্বে বাংলাদেশের উল্লেখযোগ্য অগ্রগতি ও উন্নয়নের ভূয়সী প্রশংসা করেন ড. মাজেদ বিন আবদুল্লাহ আল কাসাবি। রোহিঙ্গা সংকট নিয়ে কথা বলতে গিয়ে সৌদি মন্ত্রী শেখ হাসিনাকে মাদার অব হিউম্যানিটি হিসেবে আখ্যায়িত করেন। একইসঙ্গে তিনি শেখ হাসিনাকে ওমরাহ পালনের আমন্ত্রণ জানান। সূত্র : বাসস

ট্যাগস

নিউজটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশের অর্থনৈতিক অঞ্চলে সৌদির জন্য জমির প্রস্তাব প্রধানমন্ত্রীর

আপডেট সময় ১০:০৭:৩৬ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১১ মার্চ ২০২৩

বাংলাদেশের বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চলে (এসইজেড) সৌদি আরবের জন্য জমির প্রস্তাব দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সৌদির বাণিজ্যমন্ত্রী ড. মাজেদ বিন আবদুল্লাহ আল কাসাবির নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধি দল শুক্রবার (১০ মার্চ) সন্ধ্যায় গণভবনে গেলে শেখ হাসিনা এই অনুরোধ জানান।

প্রধানমন্ত্রী সৌদি আরবকে বাংলাদেশে তেল শোধনাগার স্থাপনের প্রস্তাব দেন যেখানে অপরিশোধিত তেলসহ সব ধরনের তেল পরিশোধন করা যায়। বৈঠকে উভয়ে পারস্পরিক স্বার্থে উভয় দেশের ব্যবসা বৃদ্ধির বিষয়ে আলোচনা করেন। সৌদির বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, তার দেশের শীর্ষ বিনিয়োগকারীরা বাংলাদেশে বিশেষ করে নবায়নযোগ্য জ্বালানি খাতে বিনিয়োগ করতে আগ্রহী। এ প্রসঙ্গে তিনি বাংলাদেশে আমলাতান্ত্রিক বিলম্ব সমাধানের মাধ্যমে বিনিয়োগ পদ্ধতি সহজিকরণের আহ্বান জানান।

জবাবে প্রধানমন্ত্রী বলেন, তিনি ইতোমধ্যে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের মাধ্যমে বিনিয়োগ পদ্ধতি সহজ ও দ্রুত করার জন্য বলেছেন। তিনি বলেন, তার সরকার সৌদি আরবে যাওয়ার আগে বাংলাদেশি শ্রমিকদের আরবি ভাষা ভালোভাবে জানার সুবিধার্থে একটি আরবি ভাষা ইনস্টিটিউট তৈরি করতে চায়, যাতে তারা আরবি ভাষার লোকদের সঙ্গে সহজে যোগাযোগ স্থাপন করতে পারে। সৌদি মন্ত্রী বলেন, তাদের ক্রাউন প্রিন্স বাংলাদেশ সফরে আগ্রহী।

তখন প্রধানমন্ত্রী বলেন, তার দেশ সৌদি ক্রাউন প্রিন্সকে গ্রহণ করার জন্য অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছে।এ সময় শেখ হাসিনার গতিশীল নেতৃত্বে বাংলাদেশের উল্লেখযোগ্য অগ্রগতি ও উন্নয়নের ভূয়সী প্রশংসা করেন ড. মাজেদ বিন আবদুল্লাহ আল কাসাবি। রোহিঙ্গা সংকট নিয়ে কথা বলতে গিয়ে সৌদি মন্ত্রী শেখ হাসিনাকে মাদার অব হিউম্যানিটি হিসেবে আখ্যায়িত করেন। একইসঙ্গে তিনি শেখ হাসিনাকে ওমরাহ পালনের আমন্ত্রণ জানান। সূত্র : বাসস