১২:০৫ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪

বাংলাদেশের স্বাধীনতা দিবসে বাইডেনের শুভেচ্ছা

নিজস্ব সংবাদ দাতা
  • আপডেট সময় ০৪:১৩:৩১ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৮ মার্চ ২০২৩
  • / ৫৮ বার পড়া হয়েছে

বাংলাদেশের স্বাধীনতা দিবসে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও জনগণকে শুভেচ্ছা জানিয়ে চিঠি দিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। সোমবার (২৭ মার্চ) ঢাকাস্থ মার্কিন দূতাবাস চিঠিটি শেয়ার করেছে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে লেখা চিঠিতে মার্কিন প্রেসিডেন্ট বলেছেন, স্বাধীনতার ৫০ বছরেরও বেশি সময়ে কূটনৈতিক সম্পর্কে যুক্তরাষ্ট্র ও বাংলাদেশ একসঙ্গে অনেক কিছু অর্জন করেছে। বাংলাদেশ স্বাধীনতা ও মুক্তির মূল্য গভীরভাবে বোঝে। তারা ১৯৭১ সালে নিজেদের ভাগ্য নিজেরা নির্ধারণ করতে সাহসিকতার সঙ্গে লড়াই করেছে। তিনি বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের পক্ষ থেকে আমি আপনাকে (শেখ হাসিনা) এবং বাংলাদেশের জনগণকে স্বাধীনতা দিবসের শুভেচ্ছা জানাই।

বিগত অর্ধ শতাব্দীরও বেশি সময় দ্বিপক্ষীয় সম্পর্কের ফলে অর্থনৈতিক উন্নয়নে অগ্রগতি, জনগণের মধ্যে সম্পর্ক জোরদার, বৈশ্বিক স্বাস্থ্য ও জলবায়ু সমস্যা মোকাবেলা, রোহিঙ্গা শরণার্থীদের মানবিক সহায়তায় অংশীদারিত্ব এবং একটি সমৃদ্ধ, নিরাপদ, গণতান্ত্রিক ও স্বাধীন বাংলাদেশ গড়ার অঙ্গীকার অর্জিত হয়েছে। চিঠিতে মার্কিন প্রেসিডেন্ট প্রায় ১০ লাখ রোহিঙ্গা শরণার্থীর জন্য সীমান্ত উন্মুক্ত করে দিয়ে তাদের স্বাগত জানানো এবং শান্তিরক্ষা কার্যক্রমে সবচেয়ে বড় অবদানকারী হিসেবে ঝুঁকিপূর্ণদের রক্ষার জন্য বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীর ভূয়সী প্রশংসা করেন।

তিনি বলেন, আপনি বাস্তবে বিশ্বের জন্য সহানুভূতি ও উদারতার উদাহরণ স্থাপন করেছেন। আমরা রোহিঙ্গা শরণার্থী সংকটের দীর্ঘমেয়াদি সমাধান খুঁজছি এবং নৃশংসতার জন্য দায়ী অপরাধীদের জবাবদিহিতার সম্মুখীন করার অঙ্গীকারে অংশীদার। আমরা গ্লোবাল অ্যাকশন প্ল্যান মন্ত্রী পর্যায়ের বৈঠকের সহ-আয়োজনের জন্য বাংলাদেশকে ধন্যবাদ জানাই যা বৈশ্বিক মহামারী অবসানে রাজনৈতিক অঙ্গীকারকে উল্লেখযোগ্যভাবে উন্নীত করেছে।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট আরও বলেন, বাংলাদেশ যখন তার পরবর্তী নির্বাচনের কাছাকাছি আসছে তখন আমি আমাদের উভয় দেশের জনগণ, গণতন্ত্র ও সাম্যের বিষয়ে যে গভীর মূল্যবোধ পোষণ করে এবং মানবাধিকার, অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচনের প্রতি যে সম্মান প্রদর্শন করে তা স্মরণ করছি। পরিশেষে তিনি বলেন, স্বাধীনতা দিবস উদযাপনের দিনে আপনার এবং বাংলাদেশের জনগণের প্রতি আমার আন্তরিক শুভেচ্ছা গ্রহণ করুন। জয় বাংলা। সূত্র : বাসস

ট্যাগস

নিউজটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশের স্বাধীনতা দিবসে বাইডেনের শুভেচ্ছা

আপডেট সময় ০৪:১৩:৩১ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৮ মার্চ ২০২৩

বাংলাদেশের স্বাধীনতা দিবসে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও জনগণকে শুভেচ্ছা জানিয়ে চিঠি দিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। সোমবার (২৭ মার্চ) ঢাকাস্থ মার্কিন দূতাবাস চিঠিটি শেয়ার করেছে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে লেখা চিঠিতে মার্কিন প্রেসিডেন্ট বলেছেন, স্বাধীনতার ৫০ বছরেরও বেশি সময়ে কূটনৈতিক সম্পর্কে যুক্তরাষ্ট্র ও বাংলাদেশ একসঙ্গে অনেক কিছু অর্জন করেছে। বাংলাদেশ স্বাধীনতা ও মুক্তির মূল্য গভীরভাবে বোঝে। তারা ১৯৭১ সালে নিজেদের ভাগ্য নিজেরা নির্ধারণ করতে সাহসিকতার সঙ্গে লড়াই করেছে। তিনি বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের পক্ষ থেকে আমি আপনাকে (শেখ হাসিনা) এবং বাংলাদেশের জনগণকে স্বাধীনতা দিবসের শুভেচ্ছা জানাই।

বিগত অর্ধ শতাব্দীরও বেশি সময় দ্বিপক্ষীয় সম্পর্কের ফলে অর্থনৈতিক উন্নয়নে অগ্রগতি, জনগণের মধ্যে সম্পর্ক জোরদার, বৈশ্বিক স্বাস্থ্য ও জলবায়ু সমস্যা মোকাবেলা, রোহিঙ্গা শরণার্থীদের মানবিক সহায়তায় অংশীদারিত্ব এবং একটি সমৃদ্ধ, নিরাপদ, গণতান্ত্রিক ও স্বাধীন বাংলাদেশ গড়ার অঙ্গীকার অর্জিত হয়েছে। চিঠিতে মার্কিন প্রেসিডেন্ট প্রায় ১০ লাখ রোহিঙ্গা শরণার্থীর জন্য সীমান্ত উন্মুক্ত করে দিয়ে তাদের স্বাগত জানানো এবং শান্তিরক্ষা কার্যক্রমে সবচেয়ে বড় অবদানকারী হিসেবে ঝুঁকিপূর্ণদের রক্ষার জন্য বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীর ভূয়সী প্রশংসা করেন।

তিনি বলেন, আপনি বাস্তবে বিশ্বের জন্য সহানুভূতি ও উদারতার উদাহরণ স্থাপন করেছেন। আমরা রোহিঙ্গা শরণার্থী সংকটের দীর্ঘমেয়াদি সমাধান খুঁজছি এবং নৃশংসতার জন্য দায়ী অপরাধীদের জবাবদিহিতার সম্মুখীন করার অঙ্গীকারে অংশীদার। আমরা গ্লোবাল অ্যাকশন প্ল্যান মন্ত্রী পর্যায়ের বৈঠকের সহ-আয়োজনের জন্য বাংলাদেশকে ধন্যবাদ জানাই যা বৈশ্বিক মহামারী অবসানে রাজনৈতিক অঙ্গীকারকে উল্লেখযোগ্যভাবে উন্নীত করেছে।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট আরও বলেন, বাংলাদেশ যখন তার পরবর্তী নির্বাচনের কাছাকাছি আসছে তখন আমি আমাদের উভয় দেশের জনগণ, গণতন্ত্র ও সাম্যের বিষয়ে যে গভীর মূল্যবোধ পোষণ করে এবং মানবাধিকার, অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচনের প্রতি যে সম্মান প্রদর্শন করে তা স্মরণ করছি। পরিশেষে তিনি বলেন, স্বাধীনতা দিবস উদযাপনের দিনে আপনার এবং বাংলাদেশের জনগণের প্রতি আমার আন্তরিক শুভেচ্ছা গ্রহণ করুন। জয় বাংলা। সূত্র : বাসস