১২:৩২ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪

বিএনপিতে অধিকাংশই মুক্তিযোদ্ধা, আ.লীগে কতজন : ফখরুল

নিজস্ব সংবাদ দাতা
  • আপডেট সময় ১০:৫৫:৪৬ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৪ মে ২০২৩
  • / ৫৩ বার পড়া হয়েছে

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, আমাদের (বিএনপি) স্থায়ী কমিটি ও নির্বাহী কমিটিতে যারা আছেন তাদের অধিকাংশ মুক্তিযুদ্ধের সঙ্গে সরাসরি জড়িত ছিলেন। কিন্তু আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে যারা আছেন তাদের কয়জন ১৯৭১ সালের স্বাধীনতার যুদ্ধের সঙ্গে জড়িত ছিলেন? কিন্তু তারা স্বাধীনতাবিরোধী শক্তি হিসেবে আমাদের দিকে আঙুল তোলেন।

বৃহস্পতিবার (৪ মে) রাজধানীর সেগুনবাগিচায় সাবেক মন্ত্রী বাবু সুনীল কুমার গুপ্তের ১৪তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে এক স্মরণসভায় তিনি এসব কথা বলেন। মির্জা ফখরুল ইসলাম বলেন, বুধবার ওয়াশিংটনে বর্তমান অবৈধ সরকারের প্রধানমন্ত্রী বলেছেন- কোনো মতেই স্বাধীনতাবিরোধীদের ক্ষমতায় আসতে দেওয়া যাবে না। আমিও একই কথা বলতে চাই। কোনো মতেই স্বাধীনতাবিরোধীদের ক্ষমতায় আসতে দেওয়া যাবে না।

কিন্তু দুঃখজনকভাবে, লজ্জাজনকভাবে আজকে আওয়ামী লীগ স্বাধীনতার বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছে। এই সরকার আজকে স্বাধীনতা, গণতন্ত্র ও জনগণের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছে। তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ রাজনৈতিক দল হিসেবে অনেক পুরানো। মওলানা আবদুল হামিদ খান ভাসানী এই দলের প্রতিষ্ঠাতা। তাকেও আওয়ামী লীগ বাদ দিয়ে দিয়েছে। কারণ তার চিন্তাভাবনার সঙ্গে পরবর্তীতে আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে যারা এসেছেন তার সঙ্গে মিল ছিল না।

আজকের যে আওয়ামী লীগ পরবর্তীতে যারা নেতৃত্বে এসেছিলেন, তাদের সঙ্গে আজকের নেতৃত্ব তেমন একটা মিল আছে বলে আমি মনে করি না। ভাসানী অনুসারী পরিষদের সভাপতি শেখ রফিকুল ইসলাম বাবলুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন জাতীয় পার্টির (কাজী জাফর) চেয়ারম্যান মোস্তফা জামাল হায়দার, গণফোরামের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট সুব্রত চৌধুরী প্রমুখ।

ট্যাগস

নিউজটি শেয়ার করুন

বিএনপিতে অধিকাংশই মুক্তিযোদ্ধা, আ.লীগে কতজন : ফখরুল

আপডেট সময় ১০:৫৫:৪৬ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৪ মে ২০২৩

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, আমাদের (বিএনপি) স্থায়ী কমিটি ও নির্বাহী কমিটিতে যারা আছেন তাদের অধিকাংশ মুক্তিযুদ্ধের সঙ্গে সরাসরি জড়িত ছিলেন। কিন্তু আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে যারা আছেন তাদের কয়জন ১৯৭১ সালের স্বাধীনতার যুদ্ধের সঙ্গে জড়িত ছিলেন? কিন্তু তারা স্বাধীনতাবিরোধী শক্তি হিসেবে আমাদের দিকে আঙুল তোলেন।

বৃহস্পতিবার (৪ মে) রাজধানীর সেগুনবাগিচায় সাবেক মন্ত্রী বাবু সুনীল কুমার গুপ্তের ১৪তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে এক স্মরণসভায় তিনি এসব কথা বলেন। মির্জা ফখরুল ইসলাম বলেন, বুধবার ওয়াশিংটনে বর্তমান অবৈধ সরকারের প্রধানমন্ত্রী বলেছেন- কোনো মতেই স্বাধীনতাবিরোধীদের ক্ষমতায় আসতে দেওয়া যাবে না। আমিও একই কথা বলতে চাই। কোনো মতেই স্বাধীনতাবিরোধীদের ক্ষমতায় আসতে দেওয়া যাবে না।

কিন্তু দুঃখজনকভাবে, লজ্জাজনকভাবে আজকে আওয়ামী লীগ স্বাধীনতার বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছে। এই সরকার আজকে স্বাধীনতা, গণতন্ত্র ও জনগণের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছে। তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ রাজনৈতিক দল হিসেবে অনেক পুরানো। মওলানা আবদুল হামিদ খান ভাসানী এই দলের প্রতিষ্ঠাতা। তাকেও আওয়ামী লীগ বাদ দিয়ে দিয়েছে। কারণ তার চিন্তাভাবনার সঙ্গে পরবর্তীতে আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে যারা এসেছেন তার সঙ্গে মিল ছিল না।

আজকের যে আওয়ামী লীগ পরবর্তীতে যারা নেতৃত্বে এসেছিলেন, তাদের সঙ্গে আজকের নেতৃত্ব তেমন একটা মিল আছে বলে আমি মনে করি না। ভাসানী অনুসারী পরিষদের সভাপতি শেখ রফিকুল ইসলাম বাবলুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন জাতীয় পার্টির (কাজী জাফর) চেয়ারম্যান মোস্তফা জামাল হায়দার, গণফোরামের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট সুব্রত চৌধুরী প্রমুখ।