০৪:৫২ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪

বিএনপির নেতারা কে কোথায় ঈদ করবেন

নিজস্ব সংবাদ দাতা
  • আপডেট সময় ১০:৪৬:৫৩ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৩
  • / ৫৯ বার পড়া হয়েছে

ঈদ উদযাপনে নাড়ির টানে বাড়ি ফিরছেন মানুষ। বাদ যান না রাজনীতিবিদরাও। তবে এবার ঈদে বেশির ভাগ রাজনীতিবিদ ঢাকায় অবস্থান করবেন। কেউ কেউ নামাজ শেষে নির্বাচনি এলাকায় যাবেন। অনেকে নির্বাচনি এলাকায়ও ঈদ করবেন। এবার বিএনপির নেতারা নিজ এলাকায় যাচ্ছেন আন্দোলনের বার্তা নিয়ে।

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া গুলশানের বাসভবন ‘ফিরোজা’য় ঈদ করবেন। দীর্ঘদিন পর এবার তিনি ছোট ছেলে প্রয়াত আরাফাত রহমান কোকোর স্ত্রী শর্মিলী রহমান সিঁথির সঙ্গে ঈদ করবেন। এছাড়াও বোন সেলিমা ইসলাম ও ভাই শামীম এস্কান্দারসহ পরিবারের কয়েকজন সদস্যও ঈদের দিন খালেদা জিয়ার সঙ্গে সময় কাটাবেন। ওইদিন সন্ধ্যায় তার সঙ্গে বিএনপির সিনিয়র নেতাদের দেখা করার কথা রয়েছে।

এছাড়াও বেলা ১১টায় দলের প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের মাজারে ফাতেহা পাঠ ও দোয়া করবেন বিএনপির সিনিয়র নেতারা। বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এবার ঢাকায় ঈদ করবেন। ঈদের পর তার নিজ এলাকা ঠাকুরগাঁওয়ে যাওয়ার কথা রয়েছে। বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন কুমিল্লার দাউদকান্দিতে এবং আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী চট্টগ্রামের নিজ এলাকায় ঈদ করবেন। মির্জা আব্বাস, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, ব্যারিস্টার জমির উদ্দিন সরকার, নজরুল ইসলাম খান ও সেলিমা রহমান ঢাকায় থাকবেন।

তবে স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. আব্দুল মঈন খান ঈদের দিন নিজ এলাকা নরসিংদীতে যাওয়ার কথা রয়েছে। ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু চিকিৎসার জন্য সিঙ্গাপুর এবং সালাউদ্দিন আহমেদ ভারতে আছেন। সিনিয়র যুগ্মমহাসচিব রুহুল কবির রিজভী সাড়ে চার মাস ধরে কারাগারে রয়েছেন। জানা যায়, তিনি ৫০ মামলায় জামিন পেয়েছেন, তার মুক্তিতে এখন কোনো বাধা নেই। কারামুক্ত হলে রাজধানীর আদাবরের বাসায় ঈদ করার কথা রয়েছে। এছাড়া দলটির ভাইস চেয়ারম্যান ব্যারিস্টার শাহজাহান ওমর, আবদুল আউয়াল মিন্টু, অধ্যাপক এজেডএম জাহিদ হোসেনসহ অনেকে ঢাকায় থাকবেন।

আর ভাইস চেয়ারম্যান মো. শাহজাহান, বরকতউল্লাহ বুলু নোয়াখালীতে, যুগ্মমহাসচিব অ্যাডভোকেট সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল বরিশালে এবং সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু নাটোরে নিজ এলাকায় ঈদ করবেন। কেন্দ্রীয় দপ্তরের দায়িত্বে থাকা সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ এমরান সালেহ প্রিন্স ময়মনসিংহের নিজ এলাকা থেকে ঘুরে এসেছেন। ঢাকায় ঈদ করে তিনি আবারও নিজ এলাকায় যাবেন। আরেক সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট আব্দুস সালাম আজাদ নিজ এলাকা মুন্সীগঞ্জে যাওয়ার কথা রয়েছে।

এছাড়া কেন্দ্রীয় নেতা মোস্তাফিজুর রহমান বাবুল নিজ এলাকা জামালপুরের মেলান্দহে, আবু নাসের মোহাম্মদ রহমতুল্লাহ, তাবিথ আউয়াল ও প্রকৌশলী ইশরাক হোসেন ঢাকায় ঈদ করবেন। ঢাকা মহানগরের আমানউল্লাহ আমান, আব্দুস সালাম, আমিনুল হক ও রফিকুল আলম মজনু নিজ নির্বাচনি এলাকায় ঈদ করবেন।

ট্যাগস

নিউজটি শেয়ার করুন

বিএনপির নেতারা কে কোথায় ঈদ করবেন

আপডেট সময় ১০:৪৬:৫৩ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৩

ঈদ উদযাপনে নাড়ির টানে বাড়ি ফিরছেন মানুষ। বাদ যান না রাজনীতিবিদরাও। তবে এবার ঈদে বেশির ভাগ রাজনীতিবিদ ঢাকায় অবস্থান করবেন। কেউ কেউ নামাজ শেষে নির্বাচনি এলাকায় যাবেন। অনেকে নির্বাচনি এলাকায়ও ঈদ করবেন। এবার বিএনপির নেতারা নিজ এলাকায় যাচ্ছেন আন্দোলনের বার্তা নিয়ে।

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া গুলশানের বাসভবন ‘ফিরোজা’য় ঈদ করবেন। দীর্ঘদিন পর এবার তিনি ছোট ছেলে প্রয়াত আরাফাত রহমান কোকোর স্ত্রী শর্মিলী রহমান সিঁথির সঙ্গে ঈদ করবেন। এছাড়াও বোন সেলিমা ইসলাম ও ভাই শামীম এস্কান্দারসহ পরিবারের কয়েকজন সদস্যও ঈদের দিন খালেদা জিয়ার সঙ্গে সময় কাটাবেন। ওইদিন সন্ধ্যায় তার সঙ্গে বিএনপির সিনিয়র নেতাদের দেখা করার কথা রয়েছে।

এছাড়াও বেলা ১১টায় দলের প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের মাজারে ফাতেহা পাঠ ও দোয়া করবেন বিএনপির সিনিয়র নেতারা। বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এবার ঢাকায় ঈদ করবেন। ঈদের পর তার নিজ এলাকা ঠাকুরগাঁওয়ে যাওয়ার কথা রয়েছে। বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন কুমিল্লার দাউদকান্দিতে এবং আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী চট্টগ্রামের নিজ এলাকায় ঈদ করবেন। মির্জা আব্বাস, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, ব্যারিস্টার জমির উদ্দিন সরকার, নজরুল ইসলাম খান ও সেলিমা রহমান ঢাকায় থাকবেন।

তবে স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. আব্দুল মঈন খান ঈদের দিন নিজ এলাকা নরসিংদীতে যাওয়ার কথা রয়েছে। ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু চিকিৎসার জন্য সিঙ্গাপুর এবং সালাউদ্দিন আহমেদ ভারতে আছেন। সিনিয়র যুগ্মমহাসচিব রুহুল কবির রিজভী সাড়ে চার মাস ধরে কারাগারে রয়েছেন। জানা যায়, তিনি ৫০ মামলায় জামিন পেয়েছেন, তার মুক্তিতে এখন কোনো বাধা নেই। কারামুক্ত হলে রাজধানীর আদাবরের বাসায় ঈদ করার কথা রয়েছে। এছাড়া দলটির ভাইস চেয়ারম্যান ব্যারিস্টার শাহজাহান ওমর, আবদুল আউয়াল মিন্টু, অধ্যাপক এজেডএম জাহিদ হোসেনসহ অনেকে ঢাকায় থাকবেন।

আর ভাইস চেয়ারম্যান মো. শাহজাহান, বরকতউল্লাহ বুলু নোয়াখালীতে, যুগ্মমহাসচিব অ্যাডভোকেট সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল বরিশালে এবং সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু নাটোরে নিজ এলাকায় ঈদ করবেন। কেন্দ্রীয় দপ্তরের দায়িত্বে থাকা সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ এমরান সালেহ প্রিন্স ময়মনসিংহের নিজ এলাকা থেকে ঘুরে এসেছেন। ঢাকায় ঈদ করে তিনি আবারও নিজ এলাকায় যাবেন। আরেক সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট আব্দুস সালাম আজাদ নিজ এলাকা মুন্সীগঞ্জে যাওয়ার কথা রয়েছে।

এছাড়া কেন্দ্রীয় নেতা মোস্তাফিজুর রহমান বাবুল নিজ এলাকা জামালপুরের মেলান্দহে, আবু নাসের মোহাম্মদ রহমতুল্লাহ, তাবিথ আউয়াল ও প্রকৌশলী ইশরাক হোসেন ঢাকায় ঈদ করবেন। ঢাকা মহানগরের আমানউল্লাহ আমান, আব্দুস সালাম, আমিনুল হক ও রফিকুল আলম মজনু নিজ নির্বাচনি এলাকায় ঈদ করবেন।