০৩:২৩ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪

বিশ্বকে গুরুত্বপূর্ণ জলবায়ু সংক্রান্ত বিষয়ে ঐকমত্যে পৌঁছাতে হবে : পরিবেশমন্ত্রী

নিজস্ব সংবাদ দাতা
  • আপডেট সময় ০৭:১৯:৫০ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৬ মার্চ ২০২৩
  • / ৫৩ বার পড়া হয়েছে

বাংলাদেশে ডেনমার্ক রাজ্যের রাষ্ট্রদূত উইনি এস্ট্রুপ পিটারসেন, আরব আমিরাতের রাষ্ট্রদূত আবদুল্লাহ আলী আবদুল্লাহ খাসেফ আল হামুদি এবং আরব রিপাবলিক অব মিশরের চার্জ ডি’অ্যাফিয়ার্স মিনা মাকারি আজ বাংলাদেশ সচিবালয়ে মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রী মোঃ শাহাব উদ্দিনের সাথে সাক্ষাৎ করেন।

মন্ত্রণালয়ের সচিব ডক্টর ফারহিনা আহমেদ, অতিরিক্ত সচিব (প্রশাসন) ইকবাল আব্দুল্লাহ হারুন, অতিরিক্ত সচিব (জলবায়ু পরিবর্তন) মোঃ মনিরুজ্জামান, অতিরিক্ত সচিব (পরিবেশ) সঞ্জয় কুমার ভৌমিক প্রমুখ এসময় উপস্থিত ছিলেন। পরিবেশমন্ত্রী বলেন, কিছু জটিল জলবায়ু বিষয়ে আমাদের দুবাই, সংযুক্ত আরব আমিরাতে অনুষ্ঠিতব্য COP28-এ ঐকমত্যে পৌঁছাতে হবে। ক্ষয়ক্ষতি মোকাবেলার জন্য তহবিলের উৎস অবশ্যই COP28-এ চূড়ান্ত করতে হবে।

এই ক্ষয়ক্ষতির তহবিলগুলি অভিযোজন প্রয়োজনের জন্য অন্যান্য তহবিলের সাথে কোনো আপস না করে নতুন এবং অতিরিক্ত হওয়া উচিত। আমাদের ক্ষয় ক্ষতির তহবিলের কাঠামো এবং পরিচালনার পদ্ধতিতেও উল্লেখযোগ্য অগ্রগতি হওয়া দরকার যাতে এটি যত তাড়াতাড়ি সম্ভব কার্যকর করা যায়। পরিবেশমন্ত্রী বলেন, 1.5 ℃ নাগালের মধ্যে রাখার জন্য ২০৩০ সালের মধ্যে বৈশ্বিক GHG নির্গমন ৪৩ শতাংশ কমাতে ‘মিটিগেশন ওয়ার্ক প্রোগ্রাম’-এ দলগুলোর ঐক্যমত পোষণ করতে হবে।

COP29-এ সিদ্ধান্ত গ্রহণের জন্য NCQG-তে COP28-এ উল্লেখযোগ্য অগ্রগতি থাকতে হবে। আমাদের জলবায়ু অর্থায়নের সংজ্ঞা চূড়ান্ত করতে হবে। NCQG গৃহীত হওয়ার আগে আমরা উন্নত দেশগুলির দ্বারা US$100 বিলিয়নের মাইলফলক অর্জনের জন্যও উন্মুখ; ১০০ বিলিয়ন মার্কিন ডলারের লক্ষ্য অর্জন না করে, একটি নতুন লক্ষ্য নির্ধারণ করা দলগুলোর কাছে বিশ্বাসযোগ্য হবে না। এরপর মন্ত্রী এই মাসে কোপেনহেগেন জলবায়ু মন্ত্রী পর্যায়ের বৈঠকের আয়োজন করার জন্য ডেনমার্ক সরকারকে ধন্যবাদ জানান।

বাংলাদেশে নিযুক্ত ডেনমার্কের রাষ্ট্রদূত উইনি এস্ট্রাপ পিটারসেন বলেন, শুধুমাত্র জলবায়ু পরিবর্তনের ঝুঁকিপূর্ণ দেশ হিসেবেই নয় সফলভাবে এ ঝুঁকি মোকাবিলায় বাংলাদেশ বিশ্বের শীর্ষ দেশগুলোর অন্যতম। বাংলাদেশে নিযুক্ত আরব আমিরাতের রাষ্ট্রদূত আব্দুল্লা আলী আব্দুল্লা খাসেইফ আলহমুদী আশাবাদ ব্যক্ত করে বলেন, আগামী নভেম্বরে সংযুক্ত আরব আমিরাতে অনুষ্ঠিতব্য কপ-২৮ এ লস এন্ড ড্যামেজ সহ অন্যান্য এজেন্ডাতে উল্লেখযোগ্য অগ্রগতি হবে।

ট্যাগস

নিউজটি শেয়ার করুন

বিশ্বকে গুরুত্বপূর্ণ জলবায়ু সংক্রান্ত বিষয়ে ঐকমত্যে পৌঁছাতে হবে : পরিবেশমন্ত্রী

আপডেট সময় ০৭:১৯:৫০ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৬ মার্চ ২০২৩

বাংলাদেশে ডেনমার্ক রাজ্যের রাষ্ট্রদূত উইনি এস্ট্রুপ পিটারসেন, আরব আমিরাতের রাষ্ট্রদূত আবদুল্লাহ আলী আবদুল্লাহ খাসেফ আল হামুদি এবং আরব রিপাবলিক অব মিশরের চার্জ ডি’অ্যাফিয়ার্স মিনা মাকারি আজ বাংলাদেশ সচিবালয়ে মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রী মোঃ শাহাব উদ্দিনের সাথে সাক্ষাৎ করেন।

মন্ত্রণালয়ের সচিব ডক্টর ফারহিনা আহমেদ, অতিরিক্ত সচিব (প্রশাসন) ইকবাল আব্দুল্লাহ হারুন, অতিরিক্ত সচিব (জলবায়ু পরিবর্তন) মোঃ মনিরুজ্জামান, অতিরিক্ত সচিব (পরিবেশ) সঞ্জয় কুমার ভৌমিক প্রমুখ এসময় উপস্থিত ছিলেন। পরিবেশমন্ত্রী বলেন, কিছু জটিল জলবায়ু বিষয়ে আমাদের দুবাই, সংযুক্ত আরব আমিরাতে অনুষ্ঠিতব্য COP28-এ ঐকমত্যে পৌঁছাতে হবে। ক্ষয়ক্ষতি মোকাবেলার জন্য তহবিলের উৎস অবশ্যই COP28-এ চূড়ান্ত করতে হবে।

এই ক্ষয়ক্ষতির তহবিলগুলি অভিযোজন প্রয়োজনের জন্য অন্যান্য তহবিলের সাথে কোনো আপস না করে নতুন এবং অতিরিক্ত হওয়া উচিত। আমাদের ক্ষয় ক্ষতির তহবিলের কাঠামো এবং পরিচালনার পদ্ধতিতেও উল্লেখযোগ্য অগ্রগতি হওয়া দরকার যাতে এটি যত তাড়াতাড়ি সম্ভব কার্যকর করা যায়। পরিবেশমন্ত্রী বলেন, 1.5 ℃ নাগালের মধ্যে রাখার জন্য ২০৩০ সালের মধ্যে বৈশ্বিক GHG নির্গমন ৪৩ শতাংশ কমাতে ‘মিটিগেশন ওয়ার্ক প্রোগ্রাম’-এ দলগুলোর ঐক্যমত পোষণ করতে হবে।

COP29-এ সিদ্ধান্ত গ্রহণের জন্য NCQG-তে COP28-এ উল্লেখযোগ্য অগ্রগতি থাকতে হবে। আমাদের জলবায়ু অর্থায়নের সংজ্ঞা চূড়ান্ত করতে হবে। NCQG গৃহীত হওয়ার আগে আমরা উন্নত দেশগুলির দ্বারা US$100 বিলিয়নের মাইলফলক অর্জনের জন্যও উন্মুখ; ১০০ বিলিয়ন মার্কিন ডলারের লক্ষ্য অর্জন না করে, একটি নতুন লক্ষ্য নির্ধারণ করা দলগুলোর কাছে বিশ্বাসযোগ্য হবে না। এরপর মন্ত্রী এই মাসে কোপেনহেগেন জলবায়ু মন্ত্রী পর্যায়ের বৈঠকের আয়োজন করার জন্য ডেনমার্ক সরকারকে ধন্যবাদ জানান।

বাংলাদেশে নিযুক্ত ডেনমার্কের রাষ্ট্রদূত উইনি এস্ট্রাপ পিটারসেন বলেন, শুধুমাত্র জলবায়ু পরিবর্তনের ঝুঁকিপূর্ণ দেশ হিসেবেই নয় সফলভাবে এ ঝুঁকি মোকাবিলায় বাংলাদেশ বিশ্বের শীর্ষ দেশগুলোর অন্যতম। বাংলাদেশে নিযুক্ত আরব আমিরাতের রাষ্ট্রদূত আব্দুল্লা আলী আব্দুল্লা খাসেইফ আলহমুদী আশাবাদ ব্যক্ত করে বলেন, আগামী নভেম্বরে সংযুক্ত আরব আমিরাতে অনুষ্ঠিতব্য কপ-২৮ এ লস এন্ড ড্যামেজ সহ অন্যান্য এজেন্ডাতে উল্লেখযোগ্য অগ্রগতি হবে।