০৮:০৭ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪

বিশ্ববাজারে বেড়েছে স্বর্ণের দাম

নিজস্ব সংবাদ দাতা
  • আপডেট সময় ০৮:০০:৪৭ অপরাহ্ন, বুধবার, ১ মার্চ ২০২৩
  • / ৯২ বার পড়া হয়েছে

টানা একমাস দরপতনের পর বিশ্ববাজারে স্বর্ণের দাম বেড়েছে। গত একমাসে প্রতি আউন্স স্বর্ণের দাম ১৩৫ ডলার কমেছে। আর চলতি সপ্তাহের প্রথম তিন কার্যদিবসে ২০ ডলারের বেশি বেড়েছে প্রতি আউন্স স্বর্ণের দাম।

বুধবার (১ মার্চ) বাংলাদেশ সময় দুপুর ২টা ৫ মিনিটে প্রতি আউন্স স্বর্ণের দাম দাঁড়িয়েছে ১ হাজার ৮৩৩ ডলারে। অর্থাৎ দেশের বাজারে দাম কমানোর পর বিশ্ববাজারে প্রতি আউন্স স্বর্ণের দাম ২৩ ডলার বেড়ে গেছে।

বিশ্ববাজারে স্বর্ণের দরপতনের মধ্যেই দেশে দুই দফা দাম কমানো হয়েছিল। চলতি বছরের ১৫ জানুয়ারি দাম বাড়ার মাধ্যমে ভালো মানের এক ভরি স্বর্ণের দাম হয় ৯৩ হাজার ৪২৯ টাকা। পরে ফেব্রুয়ারিতে দুই দফায় কিছুটা কমে স্বর্ণের দাম। দেশের বাজারে স্বর্ণের দাম যখন কমানোর ঘোষণা দেওয়া হয় সেই সময় বিশ্ববাজারে প্রতি আউন্স স্বর্ণের দাম ছিল ১ হাজার ৮১০ ডলার।

সবশেষ গত ২৬ ফেব্রুয়ারি ২২ ক্যারেট প্রতি ভরি (১১ দশমিক ৬৬৪ গ্রাম) স্বর্ণের দাম ১ হাজার ১৬৬ টাকা কমিয়ে ৯১ হাজার ৯৬ টাকা করা হয়েছে। এ ছাড়া ২১ ক্যারেটের এক ভরি স্বর্ণের দাম ১ হাজার ৫০ টাকা কমিয়ে ৮৭ হাজার ১৩ টাকা, ১৮ ক্যারেটের প্রতি ভরি স্বর্ণের দাম ৮৭৫ টাকা কমে ৭৪ হাজার ৫৯১ টাকা এবং সনাতন পদ্ধতির স্বর্ণের দাম ভরিতে ৬৯৮ টাকা কমে ৬২ হাজার ১৬৯ টাকা দাম নির্ধারণ করা হয়।

স্বর্ণের দামের বিশ্ববাজারের চিত্র পর্যালোচনায় দেখা যায়, চলতি বছরের শুরুতে প্রতি আউন্স স্বর্ণের দাম ছিল ১ হাজার ৮২৪ ডলার। নতুন বছর ২০২৩ সালের প্রথম মাস জানুয়ারিতে দফায় দফায় স্বর্ণের দাম বাড়ে। এতে ফেব্রুয়ারির প্রথমদিন প্রতি আউন্স স্বর্ণের দাম ১ হাজার ৯৫০ ডলারে উঠে যায়। এরপর থেকেই স্বর্ণের দাম কমতে শুরু করে। গত সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসের লেনদেন শেষে প্রতি আউন্স স্বর্ণের দাম দাঁড়ায় ১ হাজার ৮১০ ডলার।

ট্যাগস

নিউজটি শেয়ার করুন

বিশ্ববাজারে বেড়েছে স্বর্ণের দাম

আপডেট সময় ০৮:০০:৪৭ অপরাহ্ন, বুধবার, ১ মার্চ ২০২৩

টানা একমাস দরপতনের পর বিশ্ববাজারে স্বর্ণের দাম বেড়েছে। গত একমাসে প্রতি আউন্স স্বর্ণের দাম ১৩৫ ডলার কমেছে। আর চলতি সপ্তাহের প্রথম তিন কার্যদিবসে ২০ ডলারের বেশি বেড়েছে প্রতি আউন্স স্বর্ণের দাম।

বুধবার (১ মার্চ) বাংলাদেশ সময় দুপুর ২টা ৫ মিনিটে প্রতি আউন্স স্বর্ণের দাম দাঁড়িয়েছে ১ হাজার ৮৩৩ ডলারে। অর্থাৎ দেশের বাজারে দাম কমানোর পর বিশ্ববাজারে প্রতি আউন্স স্বর্ণের দাম ২৩ ডলার বেড়ে গেছে।

বিশ্ববাজারে স্বর্ণের দরপতনের মধ্যেই দেশে দুই দফা দাম কমানো হয়েছিল। চলতি বছরের ১৫ জানুয়ারি দাম বাড়ার মাধ্যমে ভালো মানের এক ভরি স্বর্ণের দাম হয় ৯৩ হাজার ৪২৯ টাকা। পরে ফেব্রুয়ারিতে দুই দফায় কিছুটা কমে স্বর্ণের দাম। দেশের বাজারে স্বর্ণের দাম যখন কমানোর ঘোষণা দেওয়া হয় সেই সময় বিশ্ববাজারে প্রতি আউন্স স্বর্ণের দাম ছিল ১ হাজার ৮১০ ডলার।

সবশেষ গত ২৬ ফেব্রুয়ারি ২২ ক্যারেট প্রতি ভরি (১১ দশমিক ৬৬৪ গ্রাম) স্বর্ণের দাম ১ হাজার ১৬৬ টাকা কমিয়ে ৯১ হাজার ৯৬ টাকা করা হয়েছে। এ ছাড়া ২১ ক্যারেটের এক ভরি স্বর্ণের দাম ১ হাজার ৫০ টাকা কমিয়ে ৮৭ হাজার ১৩ টাকা, ১৮ ক্যারেটের প্রতি ভরি স্বর্ণের দাম ৮৭৫ টাকা কমে ৭৪ হাজার ৫৯১ টাকা এবং সনাতন পদ্ধতির স্বর্ণের দাম ভরিতে ৬৯৮ টাকা কমে ৬২ হাজার ১৬৯ টাকা দাম নির্ধারণ করা হয়।

স্বর্ণের দামের বিশ্ববাজারের চিত্র পর্যালোচনায় দেখা যায়, চলতি বছরের শুরুতে প্রতি আউন্স স্বর্ণের দাম ছিল ১ হাজার ৮২৪ ডলার। নতুন বছর ২০২৩ সালের প্রথম মাস জানুয়ারিতে দফায় দফায় স্বর্ণের দাম বাড়ে। এতে ফেব্রুয়ারির প্রথমদিন প্রতি আউন্স স্বর্ণের দাম ১ হাজার ৯৫০ ডলারে উঠে যায়। এরপর থেকেই স্বর্ণের দাম কমতে শুরু করে। গত সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসের লেনদেন শেষে প্রতি আউন্স স্বর্ণের দাম দাঁড়ায় ১ হাজার ৮১০ ডলার।