০২:৫৯ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪

বেজমেন্টের জমা গ্যাসই বিস্ফোরণের কারণ হতে পারে : র‍্যাব

নিজস্ব সংবাদ দাতা
  • আপডেট সময় ০৬:১৭:২৭ অপরাহ্ন, বুধবার, ৮ মার্চ ২০২৩
  • / ৬৭ বার পড়া হয়েছে

র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‍্যাব) বোম্ব ডিসপোজাল ইউনিটের প্রধান মেজর মশিউর রহমান বলেছেন, রাজধানীর সিদ্দিকবাজারে বিস্ফোরণের ঘটনাটি বেজমেন্টে জমে থাকা গ্যাস থেকে হতে পারে।

বুধবার (৮ মার্চ) দুপুরে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন। মেজর মশিউর রহমান বলেন, এ ঘটনা এসি থেকে ঘটেনি, আমরা এটা নিশ্চিত হয়েছি। প্রাথমিকভাবে ধারণা করছি বিস্ফোরণ বেজমেন্ট থেকে হয়েছে। এটি স্বাভাবিক কোনো বিস্ফোরণ নয়। গ্যাস জমে কিংবা অন্য কোনোভাবে বিস্ফোরণ ঘটেছে।

র‌্যাবের এ কর্মকর্তা বলেন, র‌্যাবের ডগ স্কোয়াড এবং বোম্ব ডিসপোজাল ইউনিট এখানে উপস্থিত আছে। তারা তিতাস গ্যাস কর্তৃপক্ষ এবং রাজউকের বিশেষজ্ঞদের সঙ্গে সমন্বয় করে কাজ করছে। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত ১৯ জন নিহত হয়েছেন।

আহত হয়েছেন শতাধিক মানুষ। যাদের মধ্যে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে ভর্তি আছেন ১০ জন, যাদের কেউই শঙ্কামুক্ত নন বলে জানিয়েছেন চিকিৎসক। আর ৭০ জনকে ভর্তি করা হয়েছে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে।

ট্যাগস

নিউজটি শেয়ার করুন

বেজমেন্টের জমা গ্যাসই বিস্ফোরণের কারণ হতে পারে : র‍্যাব

আপডেট সময় ০৬:১৭:২৭ অপরাহ্ন, বুধবার, ৮ মার্চ ২০২৩

র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‍্যাব) বোম্ব ডিসপোজাল ইউনিটের প্রধান মেজর মশিউর রহমান বলেছেন, রাজধানীর সিদ্দিকবাজারে বিস্ফোরণের ঘটনাটি বেজমেন্টে জমে থাকা গ্যাস থেকে হতে পারে।

বুধবার (৮ মার্চ) দুপুরে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন। মেজর মশিউর রহমান বলেন, এ ঘটনা এসি থেকে ঘটেনি, আমরা এটা নিশ্চিত হয়েছি। প্রাথমিকভাবে ধারণা করছি বিস্ফোরণ বেজমেন্ট থেকে হয়েছে। এটি স্বাভাবিক কোনো বিস্ফোরণ নয়। গ্যাস জমে কিংবা অন্য কোনোভাবে বিস্ফোরণ ঘটেছে।

র‌্যাবের এ কর্মকর্তা বলেন, র‌্যাবের ডগ স্কোয়াড এবং বোম্ব ডিসপোজাল ইউনিট এখানে উপস্থিত আছে। তারা তিতাস গ্যাস কর্তৃপক্ষ এবং রাজউকের বিশেষজ্ঞদের সঙ্গে সমন্বয় করে কাজ করছে। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত ১৯ জন নিহত হয়েছেন।

আহত হয়েছেন শতাধিক মানুষ। যাদের মধ্যে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে ভর্তি আছেন ১০ জন, যাদের কেউই শঙ্কামুক্ত নন বলে জানিয়েছেন চিকিৎসক। আর ৭০ জনকে ভর্তি করা হয়েছে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে।