০৯:৫৯ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ০৫ মার্চ ২০২৪

মঙ্গলবার কিশোরগঞ্জ যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী

নিজস্ব সংবাদ দাতা
  • আপডেট সময় ১১:৩৯:৩৩ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৩
  • / ৭৫ বার পড়া হয়েছে

আগামী মঙ্গলবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) কিশোরগঞ্জ জেলার মিঠামইন উপজেলায় যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। দীর্ঘ দুই যুগ পর কিশোরগঞ্জে যাচ্ছেন তিনি।

বীর মুক্তিযোদ্ধা আবদুল হামিদ সেনানিবাস উদ্বোধনের পাশাপাশি হাওরের উন্নয়ন কর্মকাণ্ড স্বচক্ষে দেখতে প্রধানমন্ত্রীর এই মিঠামইন সফর। তার এ সফরকে কেন্দ্র করে গোটা কিশোরগঞ্জ জেলায় উৎসবমুখর পরিবেশ বিরাজ করছে। এরই মধ্যে শেষ হয়েছে মঞ্চের সাজসজ্জা, মাঠের সৌন্দর্য বর্ধন ও নিরাপত্তাসহ সব ধরনের কাজ।

রাস্তায় রাস্তায় প্রধানমন্ত্রীর আগমনকে ঘিরে ব্যানার, ফেস্টুন টানিয়ে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন স্থানীয় নেতাকর্মীরা। এদিন সকাল ১০টায় প্রধানমন্ত্রী মিঠামইনে বীর মুক্তিযোদ্ধা আবদুল হামিদ সেনানিবাস (ক্যান্টনমেন্ট) উদ্বোধন শেষে বিকেলে মিঠামইন হেলিপ্যাড মাঠে জনসভায় যোগদান দিবেন। এ ছাড়া রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদের আমন্ত্রণে তার (রাষ্ট্রপতি) গ্রামের বাড়িতে মেহমান হবেন প্রধানমন্ত্রী।

এ বিষয়ে কিশোরগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য রেজওয়ান আহাম্মদ তৌফিক জানান, বর্তমান প্রধানমন্ত্রীর আমলে হাওরের এত ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে, তা ভাষায় প্রকাশ করার মতো নয়। এক সময় হাওরে মানুষ আসতে চাইত না, আর এখন দেখতে আসে। প্রধানমন্ত্রীর অবদানের কারণেই এই উন্নয়ন হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী তাদের বাড়িতে মেহমান হবেন, এতে তারা খুবই খুশি। তিনি আরও জানান, হাওরে যত ধরনের মাছ পাওয়া যায়, প্রধানমন্ত্রীর আপ্যায়নে তা রাখার চেষ্টা করবেন তারা। আর প্রধানমন্ত্রী বরাবরই অষ্টগ্রামের পনির পছন্দ করেন। সেই পনির গণভবনে মাঝে মধ্যেই পাঠানো হয়।

ট্যাগস

নিউজটি শেয়ার করুন

মঙ্গলবার কিশোরগঞ্জ যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী

আপডেট সময় ১১:৩৯:৩৩ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৩

আগামী মঙ্গলবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) কিশোরগঞ্জ জেলার মিঠামইন উপজেলায় যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। দীর্ঘ দুই যুগ পর কিশোরগঞ্জে যাচ্ছেন তিনি।

বীর মুক্তিযোদ্ধা আবদুল হামিদ সেনানিবাস উদ্বোধনের পাশাপাশি হাওরের উন্নয়ন কর্মকাণ্ড স্বচক্ষে দেখতে প্রধানমন্ত্রীর এই মিঠামইন সফর। তার এ সফরকে কেন্দ্র করে গোটা কিশোরগঞ্জ জেলায় উৎসবমুখর পরিবেশ বিরাজ করছে। এরই মধ্যে শেষ হয়েছে মঞ্চের সাজসজ্জা, মাঠের সৌন্দর্য বর্ধন ও নিরাপত্তাসহ সব ধরনের কাজ।

রাস্তায় রাস্তায় প্রধানমন্ত্রীর আগমনকে ঘিরে ব্যানার, ফেস্টুন টানিয়ে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন স্থানীয় নেতাকর্মীরা। এদিন সকাল ১০টায় প্রধানমন্ত্রী মিঠামইনে বীর মুক্তিযোদ্ধা আবদুল হামিদ সেনানিবাস (ক্যান্টনমেন্ট) উদ্বোধন শেষে বিকেলে মিঠামইন হেলিপ্যাড মাঠে জনসভায় যোগদান দিবেন। এ ছাড়া রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদের আমন্ত্রণে তার (রাষ্ট্রপতি) গ্রামের বাড়িতে মেহমান হবেন প্রধানমন্ত্রী।

এ বিষয়ে কিশোরগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য রেজওয়ান আহাম্মদ তৌফিক জানান, বর্তমান প্রধানমন্ত্রীর আমলে হাওরের এত ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে, তা ভাষায় প্রকাশ করার মতো নয়। এক সময় হাওরে মানুষ আসতে চাইত না, আর এখন দেখতে আসে। প্রধানমন্ত্রীর অবদানের কারণেই এই উন্নয়ন হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী তাদের বাড়িতে মেহমান হবেন, এতে তারা খুবই খুশি। তিনি আরও জানান, হাওরে যত ধরনের মাছ পাওয়া যায়, প্রধানমন্ত্রীর আপ্যায়নে তা রাখার চেষ্টা করবেন তারা। আর প্রধানমন্ত্রী বরাবরই অষ্টগ্রামের পনির পছন্দ করেন। সেই পনির গণভবনে মাঝে মধ্যেই পাঠানো হয়।