০৬:৪৫ অপরাহ্ন, রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪

মডেল তাসনিয়ার বিরুদ্ধে যত অভিযোগ!

নিজস্ব সংবাদ দাতা
  • আপডেট সময় ০৭:১১:০১ অপরাহ্ন, শনিবার, ১ এপ্রিল ২০২৩
  • / ৬৭ বার পড়া হয়েছে

উঠতি মডেল ও অভিনেত্রী তাসনিয়া রহমানের বিরুদ্ধে প্রতারণা, অর্থ আত্মসাত এবং হুমকির অভিযোগ তুলেছেন কয়েকজন ভুক্তভোগী। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক প্রযোজক জানিয়েছেন, তাসনিয়ার সঙ্গে তার প্রেমের সম্পর্ক ছিলো।

সে কৌশলে তাদের অন্তরঙ্গ মুহূর্তের ছবি, ভিডিও তুলে রাখে। পরে সেগুলো দেখিয়ে তার কাছ থেকে একের পর টাকা আদায় করেন তিনি। এ পর্যন্ত তাসনিয়াকে বেশ কয়েক লাখ টাকা দিয়েছেন। তারপরও ব্ল্যাকমেইলিংয়ের হাত থেকে রক্ষা পাচ্ছেন না।

আরেকটি সূত্রে জানা গেছে, এফবিসিসিআই-এর একজন সাবেক পরিচালকের বিরুদ্ধে ধর্ষণের মামলা করে মোটা অংকের টাকা দাবি করেছিলেন তাসনিয়া। তবে আদালতে দাখিল করা পুলিশের তদন্ত প্রতিবেদনে সেই ব্যবসায়ী নির্দোষ প্রমাণিত হয়েছেন।

সেই ব্যবসায়ীর ঘনিষ্ঠ সূত্রের দাবি, মামলায় জিততে না পেরে সেই ব্যবসায়ীকে সামাজিকভাবে হেয় করতে নিজের কাভার ফটোতে দুজনের (ব্যবসায়ীর সঙ্গে তোলা) ছবি ব্যবহার করেছেন তাসনিয়া। এ বিষয়ে আইনি সহায়তা নেবেন সেই ব্যবসায়ী।

তাসনিয়ার বিরুদ্ধে আরও একটি গুরুতর অভিযোগ রয়েছে। শোনা যাচ্ছে, কয়েক বছর আগে তার ভয়ে এক আইটি ব্যবসায়ী দেশ ছেড়ে যুক্তরাষ্ট্রে পাড়ি জমিয়েছেন। এক সময় ওই ব্যবসায়ীর সঙ্গে একই বাসায় থাকতেন তাসনিয়া। পরবর্তীতে বিবাহিত ওই ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে গর্ভপাতের অভিযোগে মামলা করার হুমকি দিয়ে মোটা অংকের টাকা দাবি করেন এই মডেল।

আরেক ব্যবসায়ীর স্ত্রী জানান, তার স্বামীর সঙ্গে অবৈধ সম্পর্কে জড়ান তাসনিয়া। পরবর্তীতে পারিবারিক চাপে তাসনিয়াকে ছেড়ে দেন সেই ব্যবসায়ী। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে তার স্বামীর কাছে মোটা অংকের টাকা দাবি করেন তাসনিয়া। অন্যথায় মিডিয়ার কাছে ওই ব্যবসায়ীর পরিচয় প্রকাশ করার হুমকি দিয়েছেন।

তবে এসব অভিযোগ প্রসঙ্গে তাসনিয়া রহমানের ভাষ্য, তার বিরুদ্ধে আনা এসব অভিযোগ মিথ্যা। কেউ যদি টাকা নেওয়ার প্রমাণ দেখাতে পারে, তাহলে অভিযোগগুলো মাথা পেতে নিবেন তিনি। এভাবে অভিযোগ করা হলে খুব শিগগির সংবাদ সম্মেলন করে বিস্তারিত বলবেন তিনি।

ট্যাগস

নিউজটি শেয়ার করুন

মডেল তাসনিয়ার বিরুদ্ধে যত অভিযোগ!

আপডেট সময় ০৭:১১:০১ অপরাহ্ন, শনিবার, ১ এপ্রিল ২০২৩

উঠতি মডেল ও অভিনেত্রী তাসনিয়া রহমানের বিরুদ্ধে প্রতারণা, অর্থ আত্মসাত এবং হুমকির অভিযোগ তুলেছেন কয়েকজন ভুক্তভোগী। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক প্রযোজক জানিয়েছেন, তাসনিয়ার সঙ্গে তার প্রেমের সম্পর্ক ছিলো।

সে কৌশলে তাদের অন্তরঙ্গ মুহূর্তের ছবি, ভিডিও তুলে রাখে। পরে সেগুলো দেখিয়ে তার কাছ থেকে একের পর টাকা আদায় করেন তিনি। এ পর্যন্ত তাসনিয়াকে বেশ কয়েক লাখ টাকা দিয়েছেন। তারপরও ব্ল্যাকমেইলিংয়ের হাত থেকে রক্ষা পাচ্ছেন না।

আরেকটি সূত্রে জানা গেছে, এফবিসিসিআই-এর একজন সাবেক পরিচালকের বিরুদ্ধে ধর্ষণের মামলা করে মোটা অংকের টাকা দাবি করেছিলেন তাসনিয়া। তবে আদালতে দাখিল করা পুলিশের তদন্ত প্রতিবেদনে সেই ব্যবসায়ী নির্দোষ প্রমাণিত হয়েছেন।

সেই ব্যবসায়ীর ঘনিষ্ঠ সূত্রের দাবি, মামলায় জিততে না পেরে সেই ব্যবসায়ীকে সামাজিকভাবে হেয় করতে নিজের কাভার ফটোতে দুজনের (ব্যবসায়ীর সঙ্গে তোলা) ছবি ব্যবহার করেছেন তাসনিয়া। এ বিষয়ে আইনি সহায়তা নেবেন সেই ব্যবসায়ী।

তাসনিয়ার বিরুদ্ধে আরও একটি গুরুতর অভিযোগ রয়েছে। শোনা যাচ্ছে, কয়েক বছর আগে তার ভয়ে এক আইটি ব্যবসায়ী দেশ ছেড়ে যুক্তরাষ্ট্রে পাড়ি জমিয়েছেন। এক সময় ওই ব্যবসায়ীর সঙ্গে একই বাসায় থাকতেন তাসনিয়া। পরবর্তীতে বিবাহিত ওই ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে গর্ভপাতের অভিযোগে মামলা করার হুমকি দিয়ে মোটা অংকের টাকা দাবি করেন এই মডেল।

আরেক ব্যবসায়ীর স্ত্রী জানান, তার স্বামীর সঙ্গে অবৈধ সম্পর্কে জড়ান তাসনিয়া। পরবর্তীতে পারিবারিক চাপে তাসনিয়াকে ছেড়ে দেন সেই ব্যবসায়ী। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে তার স্বামীর কাছে মোটা অংকের টাকা দাবি করেন তাসনিয়া। অন্যথায় মিডিয়ার কাছে ওই ব্যবসায়ীর পরিচয় প্রকাশ করার হুমকি দিয়েছেন।

তবে এসব অভিযোগ প্রসঙ্গে তাসনিয়া রহমানের ভাষ্য, তার বিরুদ্ধে আনা এসব অভিযোগ মিথ্যা। কেউ যদি টাকা নেওয়ার প্রমাণ দেখাতে পারে, তাহলে অভিযোগগুলো মাথা পেতে নিবেন তিনি। এভাবে অভিযোগ করা হলে খুব শিগগির সংবাদ সম্মেলন করে বিস্তারিত বলবেন তিনি।