০৬:১৪ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

মিয়ানমারে মোখার তাণ্ডব, রেড অ্যালার্ট জারি

নিজস্ব সংবাদ দাতা
  • আপডেট সময় ০২:৪৮:৩৫ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৪ মে ২০২৩
  • / ৪৩ বার পড়া হয়েছে

প্রবল শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড় মোখার অগ্রভাগ আঘাত হেনেছে মিয়ানমারের উপকূলীয় অঞ্চলে। এরই মধ্যে দেশটির রাখাইন রাজ্যের রাজধানী সিট্যুয়ে শহরের বেশ কিছু গাছ ও বাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে মোখার তাণ্ডবে।

রাখাইন রাজ্যের উপকূলীয় এলাকা থেকে লক্ষাধিক মানুষকে নিরাপদ আশ্রয়ে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে, জারি করা হয়েছে সর্বোচ্চ সতর্কতা রেড অ্যালার্ট। মিয়ানমারের সংবাদমাধ্যম দ্যা ইরাবতি রোববার (১৪ মে) এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, মোখার প্রভাবে সিট্যুয়ে ও দক্ষিণে থান্ডওয়ে শহরে প্রবল বাতাস ও বৃষ্টিপাত হচ্ছে।

প্রবল ঘূর্ণিঝড় মোখার প্রভাবে প্রবল ঝড়ের আশঙ্কায় দেশের বহু এলাকায় রেড অ্যালার্ট জারি করেছে মিয়ানমার। এছাড়া দেশটির উপকূলীয় রাখাইন রাজ্য থেকে নিরাপদ আশ্রয়ে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে লক্ষাধিক মানুষকে। রাখাইনের সিট্যুয়ের পাশাপাশি কিয়াউকফিউ, মংডু, রাথেদাউং, মাইবোন, পাউকতাও এবং মুনাং শহরে লাল সতর্কতা জারি করেছে মিয়ানমারের জান্তা।

এছাড়া এই শহর ও এলাকাগুলোতে একই সতর্কতা জারি করেছে দেশটির ক্ষমতাসীন জান্তা-বিরোধী বেসামরিক জাতীয় ঐক্য সরকার। ঘূর্ণিঝড় মোখা এক দশকেরও বেশি সময়ের মধ্যে মিয়ানমারে আঘাত হানা সবচেয়ে শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড় হতে যাচ্ছে বলেও পূর্বাভাস দেওয়া হয়েছে।

ট্যাগস

নিউজটি শেয়ার করুন

মিয়ানমারে মোখার তাণ্ডব, রেড অ্যালার্ট জারি

আপডেট সময় ০২:৪৮:৩৫ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৪ মে ২০২৩

প্রবল শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড় মোখার অগ্রভাগ আঘাত হেনেছে মিয়ানমারের উপকূলীয় অঞ্চলে। এরই মধ্যে দেশটির রাখাইন রাজ্যের রাজধানী সিট্যুয়ে শহরের বেশ কিছু গাছ ও বাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে মোখার তাণ্ডবে।

রাখাইন রাজ্যের উপকূলীয় এলাকা থেকে লক্ষাধিক মানুষকে নিরাপদ আশ্রয়ে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে, জারি করা হয়েছে সর্বোচ্চ সতর্কতা রেড অ্যালার্ট। মিয়ানমারের সংবাদমাধ্যম দ্যা ইরাবতি রোববার (১৪ মে) এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, মোখার প্রভাবে সিট্যুয়ে ও দক্ষিণে থান্ডওয়ে শহরে প্রবল বাতাস ও বৃষ্টিপাত হচ্ছে।

প্রবল ঘূর্ণিঝড় মোখার প্রভাবে প্রবল ঝড়ের আশঙ্কায় দেশের বহু এলাকায় রেড অ্যালার্ট জারি করেছে মিয়ানমার। এছাড়া দেশটির উপকূলীয় রাখাইন রাজ্য থেকে নিরাপদ আশ্রয়ে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে লক্ষাধিক মানুষকে। রাখাইনের সিট্যুয়ের পাশাপাশি কিয়াউকফিউ, মংডু, রাথেদাউং, মাইবোন, পাউকতাও এবং মুনাং শহরে লাল সতর্কতা জারি করেছে মিয়ানমারের জান্তা।

এছাড়া এই শহর ও এলাকাগুলোতে একই সতর্কতা জারি করেছে দেশটির ক্ষমতাসীন জান্তা-বিরোধী বেসামরিক জাতীয় ঐক্য সরকার। ঘূর্ণিঝড় মোখা এক দশকেরও বেশি সময়ের মধ্যে মিয়ানমারে আঘাত হানা সবচেয়ে শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড় হতে যাচ্ছে বলেও পূর্বাভাস দেওয়া হয়েছে।