০৩:৪৩ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪

মুখ খুললেন সাদিক আব্দুল্লাহ

নিজস্ব সংবাদ দাতা
  • আপডেট সময় ০৫:৩৮:৫১ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৩
  • / ৪৭ বার পড়া হয়েছে

আসন্ন বরিশাল সিটি করপোরেশন নির্বাচনে মনোনয়ন বঞ্চিত হওয়ার পর অনেকটা চুপচাপ ছিলেন মেয়র সেরনিয়াবাত সাদিক আব্দুল্লাহ। তার বদলে চাচা আবুল খায়ের আবদুল্লাহ ওরফে খোকন সেরনিয়াবাতকে মনোনয়ন দেওয়ায় তার কর্মী-সমর্থকরাও বরিশালে অনেকটা কোণঠাসা হয়ে পড়তে শুরু করেছেন। এমন পরিস্থিতিতে মুখ খুলেছেন সাদিক আব্দুল্লাহ।

মঙ্গলবার (১৮ এপ্রিল) দুপুরে বরিশালের আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের সঙ্গে ভার্চুয়াল বৈঠকে সাদিক আব্দুল্লাহ সবার উদ্দেশে বলেন- ‘আমরা অপেক্ষা করছি আমাদের অভিভাবক (আবুল হাসানাত আব্দুল্লাহ) মহানগর ও জেলার নেতাদের সঙ্গে বৈঠক করবেন। শেখ হাসিনার সিদ্ধান্তই চূড়ান্ত। তিনি আমার চাচাকে মেয়র পদে নমিনেশন দিয়েছেন। তার সিদ্ধান্তই চূড়ান্ত। এতে কারও কোনো সন্দেহ আছে?’ এ সময় সামনে থাকা সবাই সমস্বরে বলেন- ‘না সন্দেহ নেই।’

সাদিক আব্দুল্লাহ বলেন, এমন কোনো কাজ করব না যাতে মাঝখান দিয়ে অন্য লোকজন ফায়দা নেয়। সবার উদ্দেশে বলছি- যারা লাফালাফি করছে সুবিধাভোগী লোকজন, এরা তো করবেই স্বাভাবিক। আমরা অপেক্ষা করছি বাবা কখন মিটিং ডাকবেন, মহানগর ও জেলার নেতাদের সঙ্গে। তখন বাবার সঙ্গে আমি আসব। বরিশালের মেয়র বলেন, আজকে আপনাদের সঙ্গে কথা বলছি একটা বিষয় ক্লিয়ার করার জন্য। সেটা হলো, এখানে কোনো দ্বিধা-দ্বন্দ্ব নেই। শেখ হাসিনার সিদ্ধান্তই চূড়ান্ত।

অন্য ঈদ বরিশালে করলেও এবার বাবার সঙ্গে ঢাকায় ঈদ করবেন বলেও জানান সাদিক আব্দুল্লাহ। মনোনয়ন বঞ্চিত হওয়ার পর আর বরিশাল যাননি সাদিক আব্দুল্লাহ। বর্তমানে পরিবারের সঙ্গে তিনি ঢাকায় অবস্থান করছেন। তিনি বলেন, সবসময় আপনাদের সঙ্গে ঈদ করি। এবার সুযোগ পেয়েছি বাবার সঙ্গে ঈদ করার। দেখা হবে আপনাদের সঙ্গে।

ট্যাগস

নিউজটি শেয়ার করুন

মুখ খুললেন সাদিক আব্দুল্লাহ

আপডেট সময় ০৫:৩৮:৫১ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৩

আসন্ন বরিশাল সিটি করপোরেশন নির্বাচনে মনোনয়ন বঞ্চিত হওয়ার পর অনেকটা চুপচাপ ছিলেন মেয়র সেরনিয়াবাত সাদিক আব্দুল্লাহ। তার বদলে চাচা আবুল খায়ের আবদুল্লাহ ওরফে খোকন সেরনিয়াবাতকে মনোনয়ন দেওয়ায় তার কর্মী-সমর্থকরাও বরিশালে অনেকটা কোণঠাসা হয়ে পড়তে শুরু করেছেন। এমন পরিস্থিতিতে মুখ খুলেছেন সাদিক আব্দুল্লাহ।

মঙ্গলবার (১৮ এপ্রিল) দুপুরে বরিশালের আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের সঙ্গে ভার্চুয়াল বৈঠকে সাদিক আব্দুল্লাহ সবার উদ্দেশে বলেন- ‘আমরা অপেক্ষা করছি আমাদের অভিভাবক (আবুল হাসানাত আব্দুল্লাহ) মহানগর ও জেলার নেতাদের সঙ্গে বৈঠক করবেন। শেখ হাসিনার সিদ্ধান্তই চূড়ান্ত। তিনি আমার চাচাকে মেয়র পদে নমিনেশন দিয়েছেন। তার সিদ্ধান্তই চূড়ান্ত। এতে কারও কোনো সন্দেহ আছে?’ এ সময় সামনে থাকা সবাই সমস্বরে বলেন- ‘না সন্দেহ নেই।’

সাদিক আব্দুল্লাহ বলেন, এমন কোনো কাজ করব না যাতে মাঝখান দিয়ে অন্য লোকজন ফায়দা নেয়। সবার উদ্দেশে বলছি- যারা লাফালাফি করছে সুবিধাভোগী লোকজন, এরা তো করবেই স্বাভাবিক। আমরা অপেক্ষা করছি বাবা কখন মিটিং ডাকবেন, মহানগর ও জেলার নেতাদের সঙ্গে। তখন বাবার সঙ্গে আমি আসব। বরিশালের মেয়র বলেন, আজকে আপনাদের সঙ্গে কথা বলছি একটা বিষয় ক্লিয়ার করার জন্য। সেটা হলো, এখানে কোনো দ্বিধা-দ্বন্দ্ব নেই। শেখ হাসিনার সিদ্ধান্তই চূড়ান্ত।

অন্য ঈদ বরিশালে করলেও এবার বাবার সঙ্গে ঢাকায় ঈদ করবেন বলেও জানান সাদিক আব্দুল্লাহ। মনোনয়ন বঞ্চিত হওয়ার পর আর বরিশাল যাননি সাদিক আব্দুল্লাহ। বর্তমানে পরিবারের সঙ্গে তিনি ঢাকায় অবস্থান করছেন। তিনি বলেন, সবসময় আপনাদের সঙ্গে ঈদ করি। এবার সুযোগ পেয়েছি বাবার সঙ্গে ঈদ করার। দেখা হবে আপনাদের সঙ্গে।