০২:৫৩ অপরাহ্ন, শনিবার, ২০ জুলাই ২০২৪

‘মেসির বার্সায় ফেরাটা কঠিন’

নিজস্ব সংবাদ দাতা
  • আপডেট সময় ১০:৫৬:৩৭ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৮ এপ্রিল ২০২৩
  • / ৮০ বার পড়া হয়েছে

দীর্ঘ ১৭ বছরের সম্পর্ক শেষে ২০২১ সালে করোনার মাঝপথে বার্সেলোনা ছেড়ে প্যারিসে পাড়ি জমান লিওনেল আন্দ্রেস মেসি। দীর্ঘদিনের সম্পর্কের বিদায় বাজেভাবে কান্নায় শেষ হয়েছিল। ২০২১ সালে কাতালুনিয়া থেকে প্যারিস সেইন্ট জার্মেইতে (পিএসজি) যোগ দেন মেসি। বছর দুয়েক ধরে পিএসজিতে খেলা মেসি ক্লাবটির সঙ্গে নতুন করে চুক্তি করতে রাজি হয়নি। ফলে ২০২৩ সালেই মেসি এবং পিএসজির সম্পর্ক শেষ হয়ে যাবে।

ফলে মেসি এই মৌসুম শেষে নতুন ক্লাবে যোগ দেবেন এমন গুঞ্জনই রটেছে। অনেকের ধারণা, মেসি আবারও বার্সায় ফিরবেন নিজের ক্যারিয়ারের ইতি টানতে। তবে মেসির বাবা হোর্হে মেসির ধারণা, তেমন পরিস্থিতি আর নেই। যদিও বার্সায় ফেরার সম্ভাবনা একদম উড়িয়েও দেননি মেসির বাবা। সে সময়ে তার ভাষ্য, তবে আমি নিশ্চিতভাবে কিছু বলতে পারছি না। আসলে আমি জানি না। জীবন যেকোনো দিকে মোড় দিতে পারে।

এদিকে পিএসজির সঙ্গে চুক্তির মেয়াদ শেষ হওয়ার বাকি প্রায় ২ মাস। কিন্তু লিওনেল মেসির দলবদল নিয়ে এখনই আলোচনা চলছে। এরই মধ্যে বিশ্বকাপজয়ী মহাতারকার সামনে অবিশ্বাস্য টাকার বস্তা নিয়ে হাজির সৌদি ক্লাব আল-হিলাল। আর্জেন্টাইন খুদে জাদুকরের সাবেক ক্লাব বার্সেলোনাও মেসিকে ফেরানোর ব্যাপারে আশাবাদী। এই খবর ছড়ানোর অনেক আগে থেকেই মেসিকে দলে ভেড়াতে রীতিমতো উঠেপড়ে লেগেছে যুক্তরাষ্ট্রের সকার ক্লাব ইন্টার মিয়ামি। এজন্য সকার লিগটির সবগুলো দল মিলে টাকা দেওয়ার প্রস্তাব দিয়েছিল মায়ামি। এমনকি মেসিকে পেতে বেতনের সঙ্গে ক্লাবের মালিকানা দিয়ে দিতে চেয়েছে ক্লাবটি।

ফলে মেসির সামনে এখন একদিকে চড়া মূল্যের পারিশ্রমিকের অফার, অন্যদিকে তার আবেগের ক্লাব বার্সার অনুরোধ। আবার পিএসজিও নাকি মেসির সঙ্গে এক বছরের চুক্তি করতে চায়। কিন্তু মেসি সেটি মানছেন না; তিনি চান দুই বছরের চুক্তি। এসব মারপ্যাঁচ লাগানো খবরের মধ্যেই সৌদি ক্লাব আল-হিলালের সঙ্গে চুক্তির গুঞ্জনও নতুন করে সামনে উঠে এসেছে। তাই যতই দিন যাচ্ছে, মেসির ক্যাম্প-ন্যু’তে ফেরার গুঞ্জন ততই জোড়ালো হয়ে উঠছে। সম্প্রতি স্প্যানিশ মিডিয়ায় খবর, ১৫টি সুটকেস নিয়ে প্যারিস থেকে স্পেনে এসেছেন মেসি! এমনকি বিভিন্ন দিক থেকে মেসির পুরনো স্মৃতিভূমিতে ফেরার গুঞ্জন।

এবার এ নিয়ে মুখ খুলেছেন, লা লিগার সভাপতি হ্যাভিয়ের তেবাস। তার দাবি, মেসির বার্সায় ফেরার বিষয়টি এখনও জটিল। আরএমসি রেডিওকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি জানান, মেসির বার্সায় ফেরার ব্যাপারে যদি আপনারা আমাকে প্রশ্ন করেন, তাহলে আমি বলব, ব্যাপারটা বেশ কঠিন। প্রক্রিয়াটা বেশ জটিল। বার্সা মোটেও পিএসজির মতো কোনো ক্লাব নয়, যেখানে অর্থ কোনো সমস্যা নয়। বার্সার খেলোয়াড়দের মোটা অঙ্কের বেতনে খেলানোর সামর্থ্য নেই। বিষয়টি জটিল তাদের জন্য।

তেবাস আরও যোগ করেন, বার্সেলোনাকে আগে কয়েকটি শর্ত পূরণ করতে হবে। মেসিকে জায়গা করে দিতে কিছু খেলোয়াড়কে ছেড়ে দিতে হবে। কারণ, সেটি না হলে বেতনসীমা অতিক্রম করে যাবে। খেলোয়াড়দের বেতন কমাতে হবে। এরপর মেসির বেতন নিয়ে ভাবতে হবে। মেসিকে তো আর যেকোনো অঙ্কের বেতন দেওয়া যাবে না। তার চাহিদা অনুযায়ীই দিতে হবে। মেসির চাহিদা নিশ্চয়ই বেশি হবে।

ট্যাগস

নিউজটি শেয়ার করুন

‘মেসির বার্সায় ফেরাটা কঠিন’

আপডেট সময় ১০:৫৬:৩৭ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৮ এপ্রিল ২০২৩

দীর্ঘ ১৭ বছরের সম্পর্ক শেষে ২০২১ সালে করোনার মাঝপথে বার্সেলোনা ছেড়ে প্যারিসে পাড়ি জমান লিওনেল আন্দ্রেস মেসি। দীর্ঘদিনের সম্পর্কের বিদায় বাজেভাবে কান্নায় শেষ হয়েছিল। ২০২১ সালে কাতালুনিয়া থেকে প্যারিস সেইন্ট জার্মেইতে (পিএসজি) যোগ দেন মেসি। বছর দুয়েক ধরে পিএসজিতে খেলা মেসি ক্লাবটির সঙ্গে নতুন করে চুক্তি করতে রাজি হয়নি। ফলে ২০২৩ সালেই মেসি এবং পিএসজির সম্পর্ক শেষ হয়ে যাবে।

ফলে মেসি এই মৌসুম শেষে নতুন ক্লাবে যোগ দেবেন এমন গুঞ্জনই রটেছে। অনেকের ধারণা, মেসি আবারও বার্সায় ফিরবেন নিজের ক্যারিয়ারের ইতি টানতে। তবে মেসির বাবা হোর্হে মেসির ধারণা, তেমন পরিস্থিতি আর নেই। যদিও বার্সায় ফেরার সম্ভাবনা একদম উড়িয়েও দেননি মেসির বাবা। সে সময়ে তার ভাষ্য, তবে আমি নিশ্চিতভাবে কিছু বলতে পারছি না। আসলে আমি জানি না। জীবন যেকোনো দিকে মোড় দিতে পারে।

এদিকে পিএসজির সঙ্গে চুক্তির মেয়াদ শেষ হওয়ার বাকি প্রায় ২ মাস। কিন্তু লিওনেল মেসির দলবদল নিয়ে এখনই আলোচনা চলছে। এরই মধ্যে বিশ্বকাপজয়ী মহাতারকার সামনে অবিশ্বাস্য টাকার বস্তা নিয়ে হাজির সৌদি ক্লাব আল-হিলাল। আর্জেন্টাইন খুদে জাদুকরের সাবেক ক্লাব বার্সেলোনাও মেসিকে ফেরানোর ব্যাপারে আশাবাদী। এই খবর ছড়ানোর অনেক আগে থেকেই মেসিকে দলে ভেড়াতে রীতিমতো উঠেপড়ে লেগেছে যুক্তরাষ্ট্রের সকার ক্লাব ইন্টার মিয়ামি। এজন্য সকার লিগটির সবগুলো দল মিলে টাকা দেওয়ার প্রস্তাব দিয়েছিল মায়ামি। এমনকি মেসিকে পেতে বেতনের সঙ্গে ক্লাবের মালিকানা দিয়ে দিতে চেয়েছে ক্লাবটি।

ফলে মেসির সামনে এখন একদিকে চড়া মূল্যের পারিশ্রমিকের অফার, অন্যদিকে তার আবেগের ক্লাব বার্সার অনুরোধ। আবার পিএসজিও নাকি মেসির সঙ্গে এক বছরের চুক্তি করতে চায়। কিন্তু মেসি সেটি মানছেন না; তিনি চান দুই বছরের চুক্তি। এসব মারপ্যাঁচ লাগানো খবরের মধ্যেই সৌদি ক্লাব আল-হিলালের সঙ্গে চুক্তির গুঞ্জনও নতুন করে সামনে উঠে এসেছে। তাই যতই দিন যাচ্ছে, মেসির ক্যাম্প-ন্যু’তে ফেরার গুঞ্জন ততই জোড়ালো হয়ে উঠছে। সম্প্রতি স্প্যানিশ মিডিয়ায় খবর, ১৫টি সুটকেস নিয়ে প্যারিস থেকে স্পেনে এসেছেন মেসি! এমনকি বিভিন্ন দিক থেকে মেসির পুরনো স্মৃতিভূমিতে ফেরার গুঞ্জন।

এবার এ নিয়ে মুখ খুলেছেন, লা লিগার সভাপতি হ্যাভিয়ের তেবাস। তার দাবি, মেসির বার্সায় ফেরার বিষয়টি এখনও জটিল। আরএমসি রেডিওকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি জানান, মেসির বার্সায় ফেরার ব্যাপারে যদি আপনারা আমাকে প্রশ্ন করেন, তাহলে আমি বলব, ব্যাপারটা বেশ কঠিন। প্রক্রিয়াটা বেশ জটিল। বার্সা মোটেও পিএসজির মতো কোনো ক্লাব নয়, যেখানে অর্থ কোনো সমস্যা নয়। বার্সার খেলোয়াড়দের মোটা অঙ্কের বেতনে খেলানোর সামর্থ্য নেই। বিষয়টি জটিল তাদের জন্য।

তেবাস আরও যোগ করেন, বার্সেলোনাকে আগে কয়েকটি শর্ত পূরণ করতে হবে। মেসিকে জায়গা করে দিতে কিছু খেলোয়াড়কে ছেড়ে দিতে হবে। কারণ, সেটি না হলে বেতনসীমা অতিক্রম করে যাবে। খেলোয়াড়দের বেতন কমাতে হবে। এরপর মেসির বেতন নিয়ে ভাবতে হবে। মেসিকে তো আর যেকোনো অঙ্কের বেতন দেওয়া যাবে না। তার চাহিদা অনুযায়ীই দিতে হবে। মেসির চাহিদা নিশ্চয়ই বেশি হবে।