০৩:১৮ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪

যুক্তরাষ্ট্রে করোনা মহামারির জরুরি অবস্থার অবসান

নিজস্ব সংবাদ দাতা
  • আপডেট সময় ০৩:১২:৪৫ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১১ এপ্রিল ২০২৩
  • / ৫৯ বার পড়া হয়েছে

তিন বছরেরও বেশি সময় পর অবশেষে যুক্তরাষ্ট্রে করোনাভাইরাসের মহামারিতে জারি করা জরুরি অবস্থা তুলে নেওয়া হয়েছে। স্থানীয় সময় সোমবার (১০ এপ্রিল) আনুষ্ঠানিকভাবে কোভিড জাতীয় স্বাস্থ্য জরুরি অবস্থার অবসান করেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন।

হোয়াইট হাউস বলেছে, কংগ্রেসে আগে পাস হওয়া একটি আইনে স্বাক্ষর করেছেন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। এর ফলে ওই আইনটি ‘কোভিড-১৯ মহামারি সম্পর্কিত জাতীয় জরুরি অবস্থার অবসান ঘটিয়েছে।’

বিশ্বের বৃহত্তম অর্থনীতির এই দেশকে করোনা মহামারি থেকে মুক্ত রাখতে ২০২০ সালের জানুয়ারিতে এই জরুরি অবস্থা আরোপ করা হয়েছিল। তবে মহামারিতে দেশটিতে ১০ লাখেরও বেশি মানুষ প্রাণ হারিয়েছেন।

বার্তাসংস্থা এএফপি বলছে, জরুরি অবস্থার অবসান হওয়ায় যুক্তরাষ্ট্রে কোভিড পরীক্ষা, বিনামূল্যের ভ্যাকসিন এবং অন্যান্য জরুরি ব্যবস্থার জন্য বিশাল তহবিল এখন বন্ধ হয়ে যাবে। তবে ভবিষ্যতে করোনার যেকোনো ভ্যারিয়েন্টের বিরুদ্ধে লড়াই করার জন্য বাইডেন প্রশাসন অন্যান্য ব্যবস্থা নিয়ে কাজ করেছে বলে জানিয়েছে হোয়াইট হাউস।

ট্যাগস

নিউজটি শেয়ার করুন

যুক্তরাষ্ট্রে করোনা মহামারির জরুরি অবস্থার অবসান

আপডেট সময় ০৩:১২:৪৫ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১১ এপ্রিল ২০২৩

তিন বছরেরও বেশি সময় পর অবশেষে যুক্তরাষ্ট্রে করোনাভাইরাসের মহামারিতে জারি করা জরুরি অবস্থা তুলে নেওয়া হয়েছে। স্থানীয় সময় সোমবার (১০ এপ্রিল) আনুষ্ঠানিকভাবে কোভিড জাতীয় স্বাস্থ্য জরুরি অবস্থার অবসান করেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন।

হোয়াইট হাউস বলেছে, কংগ্রেসে আগে পাস হওয়া একটি আইনে স্বাক্ষর করেছেন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। এর ফলে ওই আইনটি ‘কোভিড-১৯ মহামারি সম্পর্কিত জাতীয় জরুরি অবস্থার অবসান ঘটিয়েছে।’

বিশ্বের বৃহত্তম অর্থনীতির এই দেশকে করোনা মহামারি থেকে মুক্ত রাখতে ২০২০ সালের জানুয়ারিতে এই জরুরি অবস্থা আরোপ করা হয়েছিল। তবে মহামারিতে দেশটিতে ১০ লাখেরও বেশি মানুষ প্রাণ হারিয়েছেন।

বার্তাসংস্থা এএফপি বলছে, জরুরি অবস্থার অবসান হওয়ায় যুক্তরাষ্ট্রে কোভিড পরীক্ষা, বিনামূল্যের ভ্যাকসিন এবং অন্যান্য জরুরি ব্যবস্থার জন্য বিশাল তহবিল এখন বন্ধ হয়ে যাবে। তবে ভবিষ্যতে করোনার যেকোনো ভ্যারিয়েন্টের বিরুদ্ধে লড়াই করার জন্য বাইডেন প্রশাসন অন্যান্য ব্যবস্থা নিয়ে কাজ করেছে বলে জানিয়েছে হোয়াইট হাউস।