০৯:৩৪ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২২ জুন ২০২৪

যুদ্ধাপরাধের অভিযোগে পুতিনের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা

নিজস্ব সংবাদ দাতা
  • আপডেট সময় ০৯:৫৬:৩৫ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৮ মার্চ ২০২৩
  • / ৭৯ বার পড়া হয়েছে

ইউক্রেনে যুদ্ধাপরাধ করার অভিযোগে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেছে আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালত (আইসিসি)। গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারির পর, তাৎক্ষণিকভাবে কোনো প্রতিক্রিয়া জানায়নি রাশিয়া।

দ্য হেগ ভিত্তিক আদালতটি শুক্রবার (১৭ মার্চ) এক বিবৃতিতে এ তথ্য জানিয়েছে। খবর আল জাজিরা’র। পুতিন ছাড়াও মারিয়া আলেকসেয়েভনা লভোভা-বেলোভার বিরুদ্ধে একই অপরাধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেছে আইসিসি। মারিয়া হচ্ছেন রুশ প্রেসিডেন্টের অফিসের শিশু অধিকার বিষয়ক কমিশনার। ২০২২ সালের ফেব্রুয়ারিতে ইউক্রেনে হামলা করার পর থেকেই, দেশটিতে মানবতা বিরোধী যুদ্ধাপরাধ সংঘটিত করার অভিযোগ ওঠেছে রাশিয়ার বিরুদ্ধে। তবে এসব অভিযোগ বরাবরই প্রত্যাখ্যান করেছে মস্কো।

আইসিসি জানিয়েছে, পুতিন ‘জনসংখ্যার (শিশুদের) বেআইনি নির্বাসন এবং ইউক্রেনের অধিকৃত এলাকা থেকে রাশিয়ান ফেডারেশনে বেআইনিভাবে জনসংখ্যা (শিশুদের) স্থানান্তরের কারণে যুদ্ধাপরাধের জন্য দায়ী’। এর একদিন আগে জাতিসংঘ সমর্থিত একটি তদন্তে রাশিয়ার বিরুদ্ধে ব্যাপক মাত্রায় যুদ্ধাপরাধের অভিযোগ আনা হয়। এর মধ্যে রুশ নিয়ন্ত্রিত এলাকাগুলোয় শিশুদের জোরপূর্বক নির্বাসনও রয়েছে বলে ওই তদন্তে উঠে আসে।

ট্যাগস

নিউজটি শেয়ার করুন

যুদ্ধাপরাধের অভিযোগে পুতিনের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা

আপডেট সময় ০৯:৫৬:৩৫ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৮ মার্চ ২০২৩

ইউক্রেনে যুদ্ধাপরাধ করার অভিযোগে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেছে আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালত (আইসিসি)। গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারির পর, তাৎক্ষণিকভাবে কোনো প্রতিক্রিয়া জানায়নি রাশিয়া।

দ্য হেগ ভিত্তিক আদালতটি শুক্রবার (১৭ মার্চ) এক বিবৃতিতে এ তথ্য জানিয়েছে। খবর আল জাজিরা’র। পুতিন ছাড়াও মারিয়া আলেকসেয়েভনা লভোভা-বেলোভার বিরুদ্ধে একই অপরাধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেছে আইসিসি। মারিয়া হচ্ছেন রুশ প্রেসিডেন্টের অফিসের শিশু অধিকার বিষয়ক কমিশনার। ২০২২ সালের ফেব্রুয়ারিতে ইউক্রেনে হামলা করার পর থেকেই, দেশটিতে মানবতা বিরোধী যুদ্ধাপরাধ সংঘটিত করার অভিযোগ ওঠেছে রাশিয়ার বিরুদ্ধে। তবে এসব অভিযোগ বরাবরই প্রত্যাখ্যান করেছে মস্কো।

আইসিসি জানিয়েছে, পুতিন ‘জনসংখ্যার (শিশুদের) বেআইনি নির্বাসন এবং ইউক্রেনের অধিকৃত এলাকা থেকে রাশিয়ান ফেডারেশনে বেআইনিভাবে জনসংখ্যা (শিশুদের) স্থানান্তরের কারণে যুদ্ধাপরাধের জন্য দায়ী’। এর একদিন আগে জাতিসংঘ সমর্থিত একটি তদন্তে রাশিয়ার বিরুদ্ধে ব্যাপক মাত্রায় যুদ্ধাপরাধের অভিযোগ আনা হয়। এর মধ্যে রুশ নিয়ন্ত্রিত এলাকাগুলোয় শিশুদের জোরপূর্বক নির্বাসনও রয়েছে বলে ওই তদন্তে উঠে আসে।