০৬:৫১ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪

রমজানের প্রথম জুমায় মুসল্লিদের ঢল

নিজস্ব সংবাদ দাতা
  • আপডেট সময় ০৮:০৯:১৩ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৪ মার্চ ২০২৩
  • / ৭৭ বার পড়া হয়েছে

পবিত্র রমজান মাসের প্রথম জুমায় রাজধানীসহ সারাদেশের মসজিদে মুসল্লিদের ঢল নামে। নামাজ শেষে দেশ ও জাতির কল্যাণ কামনায় মোনাজাতে অংশ নেন তারা।

রমজানের প্রথম রোজা ও জুমা আজ (শুক্রবার)। এদিন প্রখর রোদ উপেক্ষা করেই জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমে বড় জুমার জামাত অনুষ্ঠিত হয়। সাদা-কালো, ধনী-গরিব, ছোট-বড় সকলের উপস্থিতিতে কানায় কানায় পূর্ণ হয় জাতীয় মসজিদ। মুসল্লিদের মসজিদের আঙিনা ছাড়িয়ে রাস্তায় নামাজ আদায় করতে দেখা গেছে।

জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমে বেলা সাড়ে ১১টা থেকে নানা বয়সী মানুষ আসা শুরু করেন। দুপুর সাড়ে ১২টার দিকেই ভরে ওঠে মসজিদের মূল ভবন। ভেতরে জায়গা না হওয়ায় বাইরে নামাজ আদায় করেন মুসল্লিরা। নামাজের আগে মসজিদে মসজিদে দেওয়া হবে বিশেষ খুতবা। আজ বায়তুল মোকাররমে খুৎবা পেশ করেন খতিব মুফতি রুহুল আমীন। তিনি নামাজের পাশাপাশি জাকাত আদায়ের গুরুত্ব ও কারা জাকাতের প্রথম হকদার তা তুলে ধরেন।

মুফতি রুহুল আমীন বলেন, এই রমজান মাসে নাজিল হয় পবিত্র কোরআন। এই মাসে কোরআন তেলোয়াতের ফজিলত অনেক বেশি। তাই আমাদের উচিত সহীহভাবে এই মাসে বেশি-বেশি কোরআন তেলোয়াত করা। কবরের আজাব থেকে মুক্তি পাওয়ার জন্য এই রমজান সবার কাজে আসবে বলেও উল্লেখ করেন তিনি। রমজানের তারাবির গুরুত্ব তুলে ধরে মুফতি বলেন, অবশ্যই অবশ্যই নামাজ বাদ দেবেন না। কোরআন খতমের তারাবি আদায়ে যদি সমস্যা থাকে, তবে সূরা তারাবি হলেও পড়বেন।

রমজানের প্রথম জুমায় হাইকোর্ট জামে মসজিদ, লালবাগ শাহী মসজিদ, মহাখালী মসজিদে গাউছুল আজম, চকবাজার শাহী মসজিদসহ রাজধানীর গুরুত্বপূর্ণ মসজিদগুলোতে মুসল্লিদের ব্যাপক সমাগম হয়েছে। রাজধানীর বায়তুল মোকাররম মসজিদের সামনে ও আশপাশের এলাকায় মুসল্লিদের নিরাপত্তা রক্ষার্থে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর বিপুলসংখ্যক সদস্য মোতায়েন করা হয়।

ট্যাগস

নিউজটি শেয়ার করুন

রমজানের প্রথম জুমায় মুসল্লিদের ঢল

আপডেট সময় ০৮:০৯:১৩ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৪ মার্চ ২০২৩

পবিত্র রমজান মাসের প্রথম জুমায় রাজধানীসহ সারাদেশের মসজিদে মুসল্লিদের ঢল নামে। নামাজ শেষে দেশ ও জাতির কল্যাণ কামনায় মোনাজাতে অংশ নেন তারা।

রমজানের প্রথম রোজা ও জুমা আজ (শুক্রবার)। এদিন প্রখর রোদ উপেক্ষা করেই জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমে বড় জুমার জামাত অনুষ্ঠিত হয়। সাদা-কালো, ধনী-গরিব, ছোট-বড় সকলের উপস্থিতিতে কানায় কানায় পূর্ণ হয় জাতীয় মসজিদ। মুসল্লিদের মসজিদের আঙিনা ছাড়িয়ে রাস্তায় নামাজ আদায় করতে দেখা গেছে।

জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমে বেলা সাড়ে ১১টা থেকে নানা বয়সী মানুষ আসা শুরু করেন। দুপুর সাড়ে ১২টার দিকেই ভরে ওঠে মসজিদের মূল ভবন। ভেতরে জায়গা না হওয়ায় বাইরে নামাজ আদায় করেন মুসল্লিরা। নামাজের আগে মসজিদে মসজিদে দেওয়া হবে বিশেষ খুতবা। আজ বায়তুল মোকাররমে খুৎবা পেশ করেন খতিব মুফতি রুহুল আমীন। তিনি নামাজের পাশাপাশি জাকাত আদায়ের গুরুত্ব ও কারা জাকাতের প্রথম হকদার তা তুলে ধরেন।

মুফতি রুহুল আমীন বলেন, এই রমজান মাসে নাজিল হয় পবিত্র কোরআন। এই মাসে কোরআন তেলোয়াতের ফজিলত অনেক বেশি। তাই আমাদের উচিত সহীহভাবে এই মাসে বেশি-বেশি কোরআন তেলোয়াত করা। কবরের আজাব থেকে মুক্তি পাওয়ার জন্য এই রমজান সবার কাজে আসবে বলেও উল্লেখ করেন তিনি। রমজানের তারাবির গুরুত্ব তুলে ধরে মুফতি বলেন, অবশ্যই অবশ্যই নামাজ বাদ দেবেন না। কোরআন খতমের তারাবি আদায়ে যদি সমস্যা থাকে, তবে সূরা তারাবি হলেও পড়বেন।

রমজানের প্রথম জুমায় হাইকোর্ট জামে মসজিদ, লালবাগ শাহী মসজিদ, মহাখালী মসজিদে গাউছুল আজম, চকবাজার শাহী মসজিদসহ রাজধানীর গুরুত্বপূর্ণ মসজিদগুলোতে মুসল্লিদের ব্যাপক সমাগম হয়েছে। রাজধানীর বায়তুল মোকাররম মসজিদের সামনে ও আশপাশের এলাকায় মুসল্লিদের নিরাপত্তা রক্ষার্থে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর বিপুলসংখ্যক সদস্য মোতায়েন করা হয়।