০৮:৪৪ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২২ জুন ২০২৪

রাশিয়ার বিরুদ্ধে বিশ্বকে এক হওয়ার আহ্বান জেলেনস্কির

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
  • আপডেট সময় ০৮:৫৯:০৬ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২৩
  • / ১৬৭ বার পড়া হয়েছে

ইউক্রেনে রুশ আগ্রাসন বন্ধ করতে বিশ্বকে এক হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি।

মঙ্গলবার নিউইয়র্কে জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদে এক আবেগঘন ভাষণে তিনি এই আহ্বান জানান। খবর বিবসির।

সাধারণ পরিষদে যোগদানকারী বিশ্ব নেতাদের উদ্দেশে ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট জেলেনস্কি বলেন, ‘শয়তানকে বিশ্বাস করা যায় না। পরমাণু শক্তিধর রাশিয়ার বিশ্বকে ‘চূড়ান্ত যুদ্ধের দিকে ঠেলে দেওয়া’ বন্ধ করতে হবে।

ইউক্রেনীয় শিশুদের অপহরণ করে মস্কো ‘গণহত্যা’ চালিয়েছে অভিযোগ করে তিনি বলেন, ‘রাশিয়ার পরমাণু অস্ত্র রাখার অধিকার নেই। অস্ত্রীকরণ অবশ্যই রোধ করতে হবে। যুদ্ধাপরাধের অবশ্যই শাস্তি হতে হবে। নির্বাসিত ব্যক্তিদের অবশ্যই দেশে ফিরে আসতে হবে এবং দখলদারকে অবশ্যই তাদের নিজ ভূমিতে ফিরে আসতে হবে। আর আমাদের এ জন্য অবশ্যই ঐক্যবদ্ধ হতে হবে।’

গত মার্চে ইন্টারন্যাশনাল ক্রিমিনাল কোর্ট (আইসিসি) রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের বিরুদ্ধে ইউক্রেনীয় শিশুদের রাশিয়ায় বেআইনিভাবে নির্বাসনের অভিযোগে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেছে। মস্কো বারবার ইউক্রেনের অভিযোগ অস্বীকার করেছে। তবে বেশ কয়েকটি আন্তর্জাতিক সংস্থা ইঙ্গিত করেছে যে, রাশিয়া ইউক্রেনে যুদ্ধাপরাধ করেছে।

জাতিসংঘের বার্ষিক সাধারণ পরিষদে যোগদানকারী বিশ্ব নেতাদের উদ্দেশে জেলেনস্কি বলেন, ‘রাশিয়া যখন বিশ্বকে চূড়ান্ত যুদ্ধের দিকে ঠেলে দিচ্ছে, ইউক্রেন তখন এটাই নিশ্চিত করার জন্য সবকিছু করছে যে, রাশিয়ার আগ্রাসনের পর বিশ্বের কেউ অন্য কোনও দেশকে আক্রমণ করার সাহস করবে না।’

ট্যাগস

নিউজটি শেয়ার করুন

রাশিয়ার বিরুদ্ধে বিশ্বকে এক হওয়ার আহ্বান জেলেনস্কির

আপডেট সময় ০৮:৫৯:০৬ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২৩

ইউক্রেনে রুশ আগ্রাসন বন্ধ করতে বিশ্বকে এক হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি।

মঙ্গলবার নিউইয়র্কে জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদে এক আবেগঘন ভাষণে তিনি এই আহ্বান জানান। খবর বিবসির।

সাধারণ পরিষদে যোগদানকারী বিশ্ব নেতাদের উদ্দেশে ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট জেলেনস্কি বলেন, ‘শয়তানকে বিশ্বাস করা যায় না। পরমাণু শক্তিধর রাশিয়ার বিশ্বকে ‘চূড়ান্ত যুদ্ধের দিকে ঠেলে দেওয়া’ বন্ধ করতে হবে।

ইউক্রেনীয় শিশুদের অপহরণ করে মস্কো ‘গণহত্যা’ চালিয়েছে অভিযোগ করে তিনি বলেন, ‘রাশিয়ার পরমাণু অস্ত্র রাখার অধিকার নেই। অস্ত্রীকরণ অবশ্যই রোধ করতে হবে। যুদ্ধাপরাধের অবশ্যই শাস্তি হতে হবে। নির্বাসিত ব্যক্তিদের অবশ্যই দেশে ফিরে আসতে হবে এবং দখলদারকে অবশ্যই তাদের নিজ ভূমিতে ফিরে আসতে হবে। আর আমাদের এ জন্য অবশ্যই ঐক্যবদ্ধ হতে হবে।’

গত মার্চে ইন্টারন্যাশনাল ক্রিমিনাল কোর্ট (আইসিসি) রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের বিরুদ্ধে ইউক্রেনীয় শিশুদের রাশিয়ায় বেআইনিভাবে নির্বাসনের অভিযোগে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেছে। মস্কো বারবার ইউক্রেনের অভিযোগ অস্বীকার করেছে। তবে বেশ কয়েকটি আন্তর্জাতিক সংস্থা ইঙ্গিত করেছে যে, রাশিয়া ইউক্রেনে যুদ্ধাপরাধ করেছে।

জাতিসংঘের বার্ষিক সাধারণ পরিষদে যোগদানকারী বিশ্ব নেতাদের উদ্দেশে জেলেনস্কি বলেন, ‘রাশিয়া যখন বিশ্বকে চূড়ান্ত যুদ্ধের দিকে ঠেলে দিচ্ছে, ইউক্রেন তখন এটাই নিশ্চিত করার জন্য সবকিছু করছে যে, রাশিয়ার আগ্রাসনের পর বিশ্বের কেউ অন্য কোনও দেশকে আক্রমণ করার সাহস করবে না।’