১০:০১ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

রোনালদোর শাস্তি দাবি সৌদি নারী আইনজীবীর

নিজস্ব সংবাদ দাতা
  • আপডেট সময় ০৮:১৮:১৭ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৪ এপ্রিল ২০২৩
  • / ৫০ বার পড়া হয়েছে

ম্যাচ চলাকালীন অশালীন অঙ্গিভঙ্গি ও প্রতিপক্ষের বিপক্ষে অখেলোয়াড়সুলভ আচরণের জন্য কঠিন শাস্তির শঙ্কায় পড়েছিলেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। মাঠে এরকম আচরণের জন্য ম্যাচে হলুদ কার্ড দেখেন পর্তুগিজ এই সুপারস্টার। তবে এমন ঘটনায় রোনালদোর এত লঘু শাস্তি অনেকেই মেনে নিতে পারছিলেন না।

সৌদি প্রো লিগে আল হিলালের বিপক্ষের ম্যাচে রেসলিং স্টাইলে প্রতিপক্ষ খেলোয়াড়কে ফাউল করে হলুদ কার্ড দেখেন আল-নাসরে তারকা রোনালদো। মঙ্গলবারের ওই ম্যাচে হারের পর গ্যালারি থেকে ‘মেসি’ স্লোগান শুনে অশালীন অঙ্গভঙ্গি করেন সিআরসেভেন।এমন অভিযোগের প্রেক্ষিতে রোনালদোর বিরুদ্ধে তদন্তে নামে সৌদি ফুটবল ফেডারেশন। তবে শেষ পর্যন্ত নির্দোষ প্রমাণিত হয়েছেন ৩৮ বছর বয়সী এই তারকা। কিন্তু মধ্যপ্রাচ্যের দেশটিতে তাকে ঘিরে সমালোচনা থেমে নেই। তাই আল-নাসরের পর্তুগিজ উইঙ্গার এত সহজে পার পাচ্ছেন না।

এবার রোনালদোকে আইন অনুযায়ী কঠিন শাস্তির দাবি জানিয়েছেন সৌদি আরবের শীর্ষ আইনজীবী নউফ বিনতে আহমেদ। ওই নারী আইনজীবী দাবি করেছেন, রোনালদো সৌদি আরবের নিয়ম ভঙ্গ করেছেন। নউফের মতে, একজন বিদেশি হিসেবে রোনালদো যে ধরনের অপরাধ করেছেন, তাতে তাকে গ্রেপ্তার করা উচিত। পর্তুগিজ সুপারস্টারের সেই অঙ্গভঙ্গির একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টুইটারে পোস্ট করে শাস্তির আওতায় আনার আহ্বান জানিয়েছেন ওই নারী আইনজীবী।

ভিডিওর ক্যাপশনে নউফ বিনতে আহমেদ লিখেছেন, ‘রোনালদোকে শাস্তির আওতায় আনা উচিত। সৌদি আরবের আইনভঙ্গ করায় তার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রীয় বিধান অনুযায়ী, শাস্তির পদক্ষেপ নেওয়া উচিত। রোনালদো সৌদি আরবের সাধারণ জনগণের সামনে শালীনতা ভঙ্গ করেছেন। এটা ফৌজদারি অপরাধ।’ তাই নিজ উদ্যোগে রোনালদোর বিরুদ্ধে মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছেন বলে জানিয়েছেন নউফ বিনতে আহমেদ।

এর আগে আল-হিলালের বিপক্ষে ম্যাচের পর রোনালদোর পক্ষে এক বিবৃতি দিয়েছিল আল-নাসরে। সেখানে তারা জানিয়েছিল, ‘রোনালদো ইনজুরিতে ভুগছিলেন। ম্যাচে গুস্তাভো কুয়েলারের সঙ্গে চ্যালেঞ্জের পর সংবেদনশীল জায়গায় চোট পান তিনি। এটা নিশ্চিত তথ্য। বাইরের লোকেরা যা মন চায় ভাবতে পারে।’

ট্যাগস

নিউজটি শেয়ার করুন

রোনালদোর শাস্তি দাবি সৌদি নারী আইনজীবীর

আপডেট সময় ০৮:১৮:১৭ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৪ এপ্রিল ২০২৩

ম্যাচ চলাকালীন অশালীন অঙ্গিভঙ্গি ও প্রতিপক্ষের বিপক্ষে অখেলোয়াড়সুলভ আচরণের জন্য কঠিন শাস্তির শঙ্কায় পড়েছিলেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। মাঠে এরকম আচরণের জন্য ম্যাচে হলুদ কার্ড দেখেন পর্তুগিজ এই সুপারস্টার। তবে এমন ঘটনায় রোনালদোর এত লঘু শাস্তি অনেকেই মেনে নিতে পারছিলেন না।

সৌদি প্রো লিগে আল হিলালের বিপক্ষের ম্যাচে রেসলিং স্টাইলে প্রতিপক্ষ খেলোয়াড়কে ফাউল করে হলুদ কার্ড দেখেন আল-নাসরে তারকা রোনালদো। মঙ্গলবারের ওই ম্যাচে হারের পর গ্যালারি থেকে ‘মেসি’ স্লোগান শুনে অশালীন অঙ্গভঙ্গি করেন সিআরসেভেন।এমন অভিযোগের প্রেক্ষিতে রোনালদোর বিরুদ্ধে তদন্তে নামে সৌদি ফুটবল ফেডারেশন। তবে শেষ পর্যন্ত নির্দোষ প্রমাণিত হয়েছেন ৩৮ বছর বয়সী এই তারকা। কিন্তু মধ্যপ্রাচ্যের দেশটিতে তাকে ঘিরে সমালোচনা থেমে নেই। তাই আল-নাসরের পর্তুগিজ উইঙ্গার এত সহজে পার পাচ্ছেন না।

এবার রোনালদোকে আইন অনুযায়ী কঠিন শাস্তির দাবি জানিয়েছেন সৌদি আরবের শীর্ষ আইনজীবী নউফ বিনতে আহমেদ। ওই নারী আইনজীবী দাবি করেছেন, রোনালদো সৌদি আরবের নিয়ম ভঙ্গ করেছেন। নউফের মতে, একজন বিদেশি হিসেবে রোনালদো যে ধরনের অপরাধ করেছেন, তাতে তাকে গ্রেপ্তার করা উচিত। পর্তুগিজ সুপারস্টারের সেই অঙ্গভঙ্গির একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টুইটারে পোস্ট করে শাস্তির আওতায় আনার আহ্বান জানিয়েছেন ওই নারী আইনজীবী।

ভিডিওর ক্যাপশনে নউফ বিনতে আহমেদ লিখেছেন, ‘রোনালদোকে শাস্তির আওতায় আনা উচিত। সৌদি আরবের আইনভঙ্গ করায় তার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রীয় বিধান অনুযায়ী, শাস্তির পদক্ষেপ নেওয়া উচিত। রোনালদো সৌদি আরবের সাধারণ জনগণের সামনে শালীনতা ভঙ্গ করেছেন। এটা ফৌজদারি অপরাধ।’ তাই নিজ উদ্যোগে রোনালদোর বিরুদ্ধে মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছেন বলে জানিয়েছেন নউফ বিনতে আহমেদ।

এর আগে আল-হিলালের বিপক্ষে ম্যাচের পর রোনালদোর পক্ষে এক বিবৃতি দিয়েছিল আল-নাসরে। সেখানে তারা জানিয়েছিল, ‘রোনালদো ইনজুরিতে ভুগছিলেন। ম্যাচে গুস্তাভো কুয়েলারের সঙ্গে চ্যালেঞ্জের পর সংবেদনশীল জায়গায় চোট পান তিনি। এটা নিশ্চিত তথ্য। বাইরের লোকেরা যা মন চায় ভাবতে পারে।’