০৭:৫৬ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

সংশোধন হচ্ছে আইন, মোটরসাইকেলসহ সব গাড়ির বীমা লাগবে

নিজস্ব সংবাদ দাতা
  • আপডেট সময় ০৭:৫৪:৩৩ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৯ মার্চ ২০২৩
  • / ৬০ বার পড়া হয়েছে

ফের বাস, ট্রাক, মোটরসাইকেলসহ সব ধরনের যানবাহনের জন্য বীমা বাধ্যতামূলক করতে যাচ্ছে সরকার। এজন্য সড়ক পরিবহন আইন, ২০১৮ সংশোধন করার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। বীমা করা না থাকলে তিন হাজার টাকা পর্যন্ত জরিমানা গুনতে হবে যানবাহন মালিককে।

জানা গেছে, গত ১ মার্চ জাতীয় বীমা দিবসের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বীমা না করা কোনো যানবাহন যাতে চলাচল করতে না পারে, সে জন্য নির্দেশনা দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এরপরই যানবাহনের জন্য বীমা বাধ্যতামূলক করার সুপারিশ প্রণয়নে আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের অতিরিক্ত সচিব অমল কৃষ্ণ মণ্ডলকে সভাপতি করে ১১ সদস্যের একটি কমিটি গঠন করা হয়। ওই কমিটি ইতিমধ্যে বিদ্যমান সড়ক পরিবহন আইন সংশোধন করে এতে একটি উপধারা সংযোজনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

উপধারাটি হবে এমন, ‘যদি কোনো ব্যক্তি ৬০(২) ধারার বিধান লঙ্ঘন করেন, তাহলে তা হবে একটি অপরাধ এবং এই অপরাধের জন্য তিনি অনধিক তিন হাজার টাকা পর্যন্ত অর্থদণ্ডে দণ্ডিত হবেন।’চলতি ২০২৩ সালের ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত দেশের সড়ক ও মহাসড়কে চলাচলকারী মোটরসাইকেল, গাড়ি, বাস, ট্রাকসহ বিভিন্ন ধরনের মোট যানবাহনের সংখ্যা ৫৬ লাখ ৬১ হাজার ৪১৮টি। বীমা করা বাধ্যতামূলক না হওয়ায় এসব গাড়ি থেকে প্রতিবছর ৮৭৮ কোটি টাকার রাজস্ব থেকে বঞ্চিত থাকছে সরকার। এর মধ্যে কর ও মূল্য সংযোজন কর (ভ্যাট) বাবদ ৮৪৯ কোটি টাকা এবং স্ট্যাম্প ডিউটি হিসেবে আরও ২৮ কোটি ধরা হয়েছে।

আইন সংশোধনের পক্ষে যুক্তি দিয়ে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে এসব তথ্য পাঠানো হবে বলে জানা গেছে। বাংলাদেশ ইনস্যুরেন্স অ্যাসোসিয়েশনের (বিআইএ) সভাপতি শেখ কবির হোসেন বলেন, পরিবহন মালিকদের প্রভাবে ২০১৮ সালে একটি সড়ক পরিবহন আইন করা হয়েছিল। এতে বীমা ছাড়া রাস্তায় গাড়ি চলাচলের সুযোগ রাখা হয়। সেই থেকে বীমা খাত যেমন ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে, সরকারও রাজস্ব হারাচ্ছে। আশার কথা হলো, প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনার পর শেষ পর্যন্ত আইনে একটি ধারা যুক্ত হচ্ছে।

এ বিষয়ে আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের শীর্ষ এক কর্মকর্তা জানান, কোনো দেশেই বীমা ছাড়া যানবাহন চলতে পারে না, বাংলাদেশেও পারবে না। এ জন্য শিগগিরই আইন সংশোধন করা হবে। সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের সচিব এ বি এম আমিন উল্লাহ নুরী বলেন, সড়ক পরিবহন আইন, ২০১৮ সংশোধনের কাজ প্রক্রিয়াধীন। সড়কে যান চলাচলের জন্য এটা দরকার।

ট্যাগস

নিউজটি শেয়ার করুন

সংশোধন হচ্ছে আইন, মোটরসাইকেলসহ সব গাড়ির বীমা লাগবে

আপডেট সময় ০৭:৫৪:৩৩ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৯ মার্চ ২০২৩

ফের বাস, ট্রাক, মোটরসাইকেলসহ সব ধরনের যানবাহনের জন্য বীমা বাধ্যতামূলক করতে যাচ্ছে সরকার। এজন্য সড়ক পরিবহন আইন, ২০১৮ সংশোধন করার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। বীমা করা না থাকলে তিন হাজার টাকা পর্যন্ত জরিমানা গুনতে হবে যানবাহন মালিককে।

জানা গেছে, গত ১ মার্চ জাতীয় বীমা দিবসের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বীমা না করা কোনো যানবাহন যাতে চলাচল করতে না পারে, সে জন্য নির্দেশনা দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এরপরই যানবাহনের জন্য বীমা বাধ্যতামূলক করার সুপারিশ প্রণয়নে আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের অতিরিক্ত সচিব অমল কৃষ্ণ মণ্ডলকে সভাপতি করে ১১ সদস্যের একটি কমিটি গঠন করা হয়। ওই কমিটি ইতিমধ্যে বিদ্যমান সড়ক পরিবহন আইন সংশোধন করে এতে একটি উপধারা সংযোজনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

উপধারাটি হবে এমন, ‘যদি কোনো ব্যক্তি ৬০(২) ধারার বিধান লঙ্ঘন করেন, তাহলে তা হবে একটি অপরাধ এবং এই অপরাধের জন্য তিনি অনধিক তিন হাজার টাকা পর্যন্ত অর্থদণ্ডে দণ্ডিত হবেন।’চলতি ২০২৩ সালের ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত দেশের সড়ক ও মহাসড়কে চলাচলকারী মোটরসাইকেল, গাড়ি, বাস, ট্রাকসহ বিভিন্ন ধরনের মোট যানবাহনের সংখ্যা ৫৬ লাখ ৬১ হাজার ৪১৮টি। বীমা করা বাধ্যতামূলক না হওয়ায় এসব গাড়ি থেকে প্রতিবছর ৮৭৮ কোটি টাকার রাজস্ব থেকে বঞ্চিত থাকছে সরকার। এর মধ্যে কর ও মূল্য সংযোজন কর (ভ্যাট) বাবদ ৮৪৯ কোটি টাকা এবং স্ট্যাম্প ডিউটি হিসেবে আরও ২৮ কোটি ধরা হয়েছে।

আইন সংশোধনের পক্ষে যুক্তি দিয়ে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে এসব তথ্য পাঠানো হবে বলে জানা গেছে। বাংলাদেশ ইনস্যুরেন্স অ্যাসোসিয়েশনের (বিআইএ) সভাপতি শেখ কবির হোসেন বলেন, পরিবহন মালিকদের প্রভাবে ২০১৮ সালে একটি সড়ক পরিবহন আইন করা হয়েছিল। এতে বীমা ছাড়া রাস্তায় গাড়ি চলাচলের সুযোগ রাখা হয়। সেই থেকে বীমা খাত যেমন ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে, সরকারও রাজস্ব হারাচ্ছে। আশার কথা হলো, প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনার পর শেষ পর্যন্ত আইনে একটি ধারা যুক্ত হচ্ছে।

এ বিষয়ে আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের শীর্ষ এক কর্মকর্তা জানান, কোনো দেশেই বীমা ছাড়া যানবাহন চলতে পারে না, বাংলাদেশেও পারবে না। এ জন্য শিগগিরই আইন সংশোধন করা হবে। সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের সচিব এ বি এম আমিন উল্লাহ নুরী বলেন, সড়ক পরিবহন আইন, ২০১৮ সংশোধনের কাজ প্রক্রিয়াধীন। সড়কে যান চলাচলের জন্য এটা দরকার।