০৯:৩৩ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

সতর্ক করার পরেও প্রচারণায় আজমত উল্লা, ইসিতে তলব

নিজস্ব সংবাদ দাতা
  • আপডেট সময় ১১:০৫:৫২ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ৫ মে ২০২৩
  • / ৫২ বার পড়া হয়েছে

সতর্ক করার পরেও ফের নির্বাচনি প্রচারণায় অংশ নেওয়ায় গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী আজমত উল্লা খানকে তলব করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। বৃহস্পতিবার (৪ মে) নির্বাচন কমিশনের (ইসি) সহকারী জনসংযোগ পরিচালক মো. আশাদুল হক স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে এ তথ্য জানানো হয়।

চিঠিতে বলা হয়, আচরণবিধি লঙ্ঘন করায় আজমত উল্লাকে গত ৩০ এপ্রিল স্মারকমূলে ব্যাখ্যা তলব করা হয়। তা সত্ত্বেও বৃহস্পতিবার (৪ মে) যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী মো. জাহিদ আহসান রাসেল সভা করে আজমত উল্লা খানের পক্ষে ভোট চেয়েছেন। যেখানে আজমত উল্লা উপস্থিত ছিলেন, যা বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়া এবং সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচারিত হয়েছে। আচরণবিধি লঙ্ঘন করায় প্রার্থিতা বাতিলের বিধান রয়েছে।

এতে আরও বলা হয়, আজমত উল্লাকে ইতোপূর্বে সতর্ক করা সত্বেও প্রতীক বরাদ্দের পূর্বে নির্বাচনি প্রচারণা করার ফলে আচরণবিধিমালার ৫ বিধি ভঙ্গের দায়ে কেনো তার প্রার্থিতা বাতিল করা হবে না, সে বিষয়ে নির্বাচন কমিশনে ব্যক্তিগতভাবে উপস্থিত হয়ে আমাগী ৭ মে বিকেল ৩ টায় ব্যাখ্যা দেওয়ার জন্য নির্বাচন কমিশন সিদ্ধান্ত দিয়েছেন।

এছাড়া নির্বাচন উপলক্ষে সরকারের একজন গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি হওয়া সত্ত্বেও প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল সভা করে আজমত উল্লার উপস্থিতিতে তার পক্ষে ভোট চেয়ে সিটি কর্পোরেশন (নির্বাচন আচরণ) বিধিমালা, ২০১৬ লঙ্ঘন করেছেন। এ বিষয়টি জাহিদ আহসান রাসেলের গোচরে নেওয়ার জন্য তার একান্ত সচিবকে নির্বাচন কমিশনের পক্ষে চিঠি প্রেরণ করা হয়েছে।

ট্যাগস

নিউজটি শেয়ার করুন

সতর্ক করার পরেও প্রচারণায় আজমত উল্লা, ইসিতে তলব

আপডেট সময় ১১:০৫:৫২ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ৫ মে ২০২৩

সতর্ক করার পরেও ফের নির্বাচনি প্রচারণায় অংশ নেওয়ায় গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী আজমত উল্লা খানকে তলব করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। বৃহস্পতিবার (৪ মে) নির্বাচন কমিশনের (ইসি) সহকারী জনসংযোগ পরিচালক মো. আশাদুল হক স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে এ তথ্য জানানো হয়।

চিঠিতে বলা হয়, আচরণবিধি লঙ্ঘন করায় আজমত উল্লাকে গত ৩০ এপ্রিল স্মারকমূলে ব্যাখ্যা তলব করা হয়। তা সত্ত্বেও বৃহস্পতিবার (৪ মে) যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী মো. জাহিদ আহসান রাসেল সভা করে আজমত উল্লা খানের পক্ষে ভোট চেয়েছেন। যেখানে আজমত উল্লা উপস্থিত ছিলেন, যা বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়া এবং সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচারিত হয়েছে। আচরণবিধি লঙ্ঘন করায় প্রার্থিতা বাতিলের বিধান রয়েছে।

এতে আরও বলা হয়, আজমত উল্লাকে ইতোপূর্বে সতর্ক করা সত্বেও প্রতীক বরাদ্দের পূর্বে নির্বাচনি প্রচারণা করার ফলে আচরণবিধিমালার ৫ বিধি ভঙ্গের দায়ে কেনো তার প্রার্থিতা বাতিল করা হবে না, সে বিষয়ে নির্বাচন কমিশনে ব্যক্তিগতভাবে উপস্থিত হয়ে আমাগী ৭ মে বিকেল ৩ টায় ব্যাখ্যা দেওয়ার জন্য নির্বাচন কমিশন সিদ্ধান্ত দিয়েছেন।

এছাড়া নির্বাচন উপলক্ষে সরকারের একজন গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি হওয়া সত্ত্বেও প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল সভা করে আজমত উল্লার উপস্থিতিতে তার পক্ষে ভোট চেয়ে সিটি কর্পোরেশন (নির্বাচন আচরণ) বিধিমালা, ২০১৬ লঙ্ঘন করেছেন। এ বিষয়টি জাহিদ আহসান রাসেলের গোচরে নেওয়ার জন্য তার একান্ত সচিবকে নির্বাচন কমিশনের পক্ষে চিঠি প্রেরণ করা হয়েছে।