০১:০৪ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪

সব হারিয়ে নিস্ব বাংলাদেশির পাশে কলকাতা পুলিশ, ২৪ ঘণ্টায় উদ্ধার মালামাল

নিজস্ব সংবাদ দাতা
  • আপডেট সময় ০৯:৩৮:৫২ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২১ মার্চ ২০২৩
  • / ৬৮ বার পড়া হয়েছে

কলকাতা থেকে দেশে ফেরার পথে বাংলাদেশি গোপাল দাস নামে এক ব্যক্তি লক্ষাধিক টাকা ও ব্যাগপত্র হারিয়ে দিশেহারা হয়ে পড়ে। এ ঘটনায় নিউমার্কেট থানায় অভিযোগ করলে কলকাতা পুলিশ গোপালের পাশে দাঁড়ায়। এরপর উদ্ধার হয় হারানো টাকাপয়সা ও ব্যাগ।

২০ মার্চ (সোমবার) কোলকাতা পুলিশের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে এ বিষয়ে একটি বিবৃতি দেওয়া হয়। ফেসবুকে পোস্টে উল্লেখ করা হয়, গত শুক্রবার (১৭ মার্চ) কলকাতা নিউমার্কেট এলাকায় এ ঘটনা।

কলকাতা পুলিশের ফেসবুক পোস্ট থেকে জানা যায়, গোপাল দাস দেশে ফিরে আসার সময় মির্জা গালিব স্ট্রিটে এক বন্ধুর সঙ্গে কিছু কেনাকাটায় ব্যস্ত ছিলেন। হঠাৎ দেখেন, নিজের সাইড ব্যাগের চেন খোলা এবং ভেতর থেকে আরেকটি ছোট ব্যাগ উধাও। ব্যাগে ছিল আনুমানকি ৫০০ মার্কিন ডলার, ৪০ হাজার বাংলাদেশি টাকা এবং ৬ হাজার ভারতীয় মুদ্রা। এদিকে গোপালের হাতে ২৪ ঘণ্টাও নেই। তার দেশে ফেরার বিমান ছিল ১৮ মার্চ রাতে।

এ ঘটনায় গোপাল দ্রুত নিউমার্কেট থানায় অভিযোগ দিলে সঙ্গে সঙ্গেই কাজে লেগে যান পুলিশ। প্রযুক্তির সাহায্যে তথ্য সংগ্রহ করে চিহ্নিত করে ফেলেন দুই সন্দেহভাজনকে এবং ২৪ ঘণ্টার মধ্যেই রাতভর তল্লাশি চালিয়ে গ্রেপ্তারও করে ফেলেন তাদের। এরপর উদ্ধার হওয়া টাকা ও অন্যান্য জিনিসপত্র আদালতের মাধ্যমে ফিরিয়ে দেওয়া হয় গোপালকে।

ট্যাগস

নিউজটি শেয়ার করুন

সব হারিয়ে নিস্ব বাংলাদেশির পাশে কলকাতা পুলিশ, ২৪ ঘণ্টায় উদ্ধার মালামাল

আপডেট সময় ০৯:৩৮:৫২ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২১ মার্চ ২০২৩

কলকাতা থেকে দেশে ফেরার পথে বাংলাদেশি গোপাল দাস নামে এক ব্যক্তি লক্ষাধিক টাকা ও ব্যাগপত্র হারিয়ে দিশেহারা হয়ে পড়ে। এ ঘটনায় নিউমার্কেট থানায় অভিযোগ করলে কলকাতা পুলিশ গোপালের পাশে দাঁড়ায়। এরপর উদ্ধার হয় হারানো টাকাপয়সা ও ব্যাগ।

২০ মার্চ (সোমবার) কোলকাতা পুলিশের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে এ বিষয়ে একটি বিবৃতি দেওয়া হয়। ফেসবুকে পোস্টে উল্লেখ করা হয়, গত শুক্রবার (১৭ মার্চ) কলকাতা নিউমার্কেট এলাকায় এ ঘটনা।

কলকাতা পুলিশের ফেসবুক পোস্ট থেকে জানা যায়, গোপাল দাস দেশে ফিরে আসার সময় মির্জা গালিব স্ট্রিটে এক বন্ধুর সঙ্গে কিছু কেনাকাটায় ব্যস্ত ছিলেন। হঠাৎ দেখেন, নিজের সাইড ব্যাগের চেন খোলা এবং ভেতর থেকে আরেকটি ছোট ব্যাগ উধাও। ব্যাগে ছিল আনুমানকি ৫০০ মার্কিন ডলার, ৪০ হাজার বাংলাদেশি টাকা এবং ৬ হাজার ভারতীয় মুদ্রা। এদিকে গোপালের হাতে ২৪ ঘণ্টাও নেই। তার দেশে ফেরার বিমান ছিল ১৮ মার্চ রাতে।

এ ঘটনায় গোপাল দ্রুত নিউমার্কেট থানায় অভিযোগ দিলে সঙ্গে সঙ্গেই কাজে লেগে যান পুলিশ। প্রযুক্তির সাহায্যে তথ্য সংগ্রহ করে চিহ্নিত করে ফেলেন দুই সন্দেহভাজনকে এবং ২৪ ঘণ্টার মধ্যেই রাতভর তল্লাশি চালিয়ে গ্রেপ্তারও করে ফেলেন তাদের। এরপর উদ্ধার হওয়া টাকা ও অন্যান্য জিনিসপত্র আদালতের মাধ্যমে ফিরিয়ে দেওয়া হয় গোপালকে।