০৫:৪৩ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

সময় পেলে খেলি, আর সময় নিয়ে রাজনীতি করি : মাশরাফী

নিজস্ব সংবাদ দাতা
  • আপডেট সময় ০৮:৫৫:৪২ অপরাহ্ন, শনিবার, ৪ মার্চ ২০২৩
  • / ৬২ বার পড়া হয়েছে

আওয়ামী লীগের যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক ও নড়াইল-২ আসনের সংসদ সদস্য মাশরাফী বিন মোর্ত্তজা বলেছেন, আমার কাজ হচ্ছে সময় পেলে ক্রিকেট খেলি, আর সময় নিয়ে রাজনীতি করি। আমার দায়িত্ব হচ্ছে আপনাদের জন্য কাজ করা।

শনিবার (৪ মার্চ) বিকেলে ‘জনতার মুখোমুখি জনতার সেবক’ স্লোগানকে সামনে রেখে তৃতীয় পর্যায়ে লোহাগড়া উপজেলার লোহাগড়া ইউনিয়নের কালনা চর-করফা কওমি মাদরাসা মাঠে জনসভায় এক আলোচনা অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন। মাশরাফী বলেন, আমার মেয়াদকাল আছে আর আট মাস।

আর এই আট মাস আমি জীবন বাজি রেখে আপনাদের জন্য কাজ করে যাব। যতক্ষণ আছি আল্লাহ আমার হায়াৎ রাখছে, কাজ করে যাব। আমি কাজ করব কি না, মূল বিষয় কিন্তু সেটা। আমি কিন্তু কোনো গ্রুপিং করি না। একে ধরো ওকে মারো ওকে পুলিশে দাও, এসব করি না। এগুলো আমার কাজ না। আমার কাজ হচ্ছে সময় পেলে ক্রিকেট খেলি, আর সময় নিয়ে রাজনীতি করি, আর কিছু করি না।

আমার দায়িত্ব হচ্ছে আপনাদের জন্য কাজ করা। বিগত ৪০ থেকে ৪৫ বছরের সাথে আমার চার বছর মেলান, অনেক কিছুই এগিয়েছে। জনতার মুখোমুখি এ অনুষ্ঠানে ইউনিয়নের বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ উপস্থিত থেকে মাশরাফীকে ইউনিয়নের উন্নয়ন সম্পর্কিতসহ দীর্ঘ ৪ বছরের কার্যক্রম, সফলতা-ব্যর্থতা, এলাকায় জনগণের জন্য কতটুকু করতে পেরেছেন বা পারেননি, সাধারণ মানুষের চাওয়া-পাওয়ার বিষয়ে প্রশ্ন করেন এবং তিনি তার উত্তর দেন।

লোহাগড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মুন্সী আলাউদ্দিনের সভাপতিত্বে ‘জনতার মুখোমুখি জনতার সেবক’ অনুষ্ঠানে জনতার প্রশ্নোত্তর পর্বের আয়োজন করে লোহাগড়া ইউনিয়ন পরিষদ। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, লোহাগড়ার পৌর মেয়র ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ মশিয়ুর রহমান, লোহাগড়া ইউপি চেয়ারম্যান নাজমীন বেগমসহ রাজনৈতিক নেতা ও বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ।

ট্যাগস

নিউজটি শেয়ার করুন

সময় পেলে খেলি, আর সময় নিয়ে রাজনীতি করি : মাশরাফী

আপডেট সময় ০৮:৫৫:৪২ অপরাহ্ন, শনিবার, ৪ মার্চ ২০২৩

আওয়ামী লীগের যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক ও নড়াইল-২ আসনের সংসদ সদস্য মাশরাফী বিন মোর্ত্তজা বলেছেন, আমার কাজ হচ্ছে সময় পেলে ক্রিকেট খেলি, আর সময় নিয়ে রাজনীতি করি। আমার দায়িত্ব হচ্ছে আপনাদের জন্য কাজ করা।

শনিবার (৪ মার্চ) বিকেলে ‘জনতার মুখোমুখি জনতার সেবক’ স্লোগানকে সামনে রেখে তৃতীয় পর্যায়ে লোহাগড়া উপজেলার লোহাগড়া ইউনিয়নের কালনা চর-করফা কওমি মাদরাসা মাঠে জনসভায় এক আলোচনা অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন। মাশরাফী বলেন, আমার মেয়াদকাল আছে আর আট মাস।

আর এই আট মাস আমি জীবন বাজি রেখে আপনাদের জন্য কাজ করে যাব। যতক্ষণ আছি আল্লাহ আমার হায়াৎ রাখছে, কাজ করে যাব। আমি কাজ করব কি না, মূল বিষয় কিন্তু সেটা। আমি কিন্তু কোনো গ্রুপিং করি না। একে ধরো ওকে মারো ওকে পুলিশে দাও, এসব করি না। এগুলো আমার কাজ না। আমার কাজ হচ্ছে সময় পেলে ক্রিকেট খেলি, আর সময় নিয়ে রাজনীতি করি, আর কিছু করি না।

আমার দায়িত্ব হচ্ছে আপনাদের জন্য কাজ করা। বিগত ৪০ থেকে ৪৫ বছরের সাথে আমার চার বছর মেলান, অনেক কিছুই এগিয়েছে। জনতার মুখোমুখি এ অনুষ্ঠানে ইউনিয়নের বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ উপস্থিত থেকে মাশরাফীকে ইউনিয়নের উন্নয়ন সম্পর্কিতসহ দীর্ঘ ৪ বছরের কার্যক্রম, সফলতা-ব্যর্থতা, এলাকায় জনগণের জন্য কতটুকু করতে পেরেছেন বা পারেননি, সাধারণ মানুষের চাওয়া-পাওয়ার বিষয়ে প্রশ্ন করেন এবং তিনি তার উত্তর দেন।

লোহাগড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মুন্সী আলাউদ্দিনের সভাপতিত্বে ‘জনতার মুখোমুখি জনতার সেবক’ অনুষ্ঠানে জনতার প্রশ্নোত্তর পর্বের আয়োজন করে লোহাগড়া ইউনিয়ন পরিষদ। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, লোহাগড়ার পৌর মেয়র ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ মশিয়ুর রহমান, লোহাগড়া ইউপি চেয়ারম্যান নাজমীন বেগমসহ রাজনৈতিক নেতা ও বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ।